পাতা:নবাবী আমল - নির্ম্মলশিব বন্দ্যোপাধ্যায়.pdf/৯৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চতুর্থ দৃশ্য রঘুজার শিবির মোহনচাদ মোহন । এ কি মোহ ! একি স্মৃতির দুর্জয় কশাঘাত । বিশ বৎসরের উপর যে দেশ পরিত্যাগ ক’রেছি, যার শস্য-শ্যামল মিন্ধ-কান্তি, পৰ্ব্বত-কঙ্করের শুষ্ক কঠোরতায় ডুবিয়ে দিয়ে দেশ ভুলেছি, জাতি ভুলেছি, বর্ণ ভুলেছি ; অন্নপূর্ণার মণিমন্দির ভুলে, উষ্ণরক্তবিধৌত নর-কঙ্কাল পূৰ্ণ ভৈরবীর মহাশ্মশানে বাঙ্গালার চির-অভ্যস্থ কোমলতা পুঞ্জীকৃত ভস্মে পরিণত ক’রেছি ; আজ সেই আমিআমার প্রাণে এ-কি সুর, এ-কি মমতার আবেগময়া কঙ্কার । সে আমার কে ? পূজা-নিরত সন্ন্যাসী জলদমন্ত্রে একি বিদ্যুৎ-প্রবাহ আমার কৰ্ণে ঢেলে দিলে-“চিন্ময়ী আমার স্ত্ৰী” । গৈরিক-বসনা, রুক্ষ্ম-চুর্ণ-কুন্তলা, চক্ষে দিব্য জ্যোতিঃ, কণ্ঠে মোহকারী সুধা,- BDSt D BDDB BB S S DD S BDDDS SDOBDB LBBDS fক দিয়ে আজ বিশ বৎসরের ভুল ভেঙ্গে দিলি মা ! এখন আমি বগী,-না বাঙ্গালী ? ( রঘুজী ও মীরহবিবের প্রবেশ ) রঘুজী । আপনার কথা সব শুনলেম । আপনি অতি বুদ্ধিমান, অতি কৌশলী। বীরভূম আক্রমণ ক’রবার আমার ইচ্ছা ছিল না। আমি মনে ক’রেছিলেম, নিরুপদ্রবে। বীরভূম পার হ’য়ে কাটোয় at