পাতা:নাট্য-বিকার.pdf/২২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
১৮
নাট্য-বিকার।

 রমেন্দ্র। বড় অত্যাচার! আহা! যখন আটমাস বয়েস তখন নিষ্ঠুর পিতামাতারা জবরদস্তি করে একটা নাম ঘাড়ে চাপিয়ে দেয়, আর চিরকাল সেই নামটা ব’য়ে বেড়াতে হবে।

 রাম। এই দেখুন দেখি, আপনার মতন লোক না হ’লে এ সব দুঃখ বোঝে কে? আপনি আমাকে একটা ভাল নাম দিতে পারেন?

 রমেন্দ্র। আমার কাছে উপস্থিত তো আর কোন নাম নাই, তবে যদি আমার নামটি নেন তো আমি দিতে প্রস্তুত আছি।

 রাম। (স্বগতঃ) রমেন্দ্রমোহিনী! আঃ এখন প্রাণটা জুড়াল! একি প্রেমের লক্ষণ?

 রমেন্দ্র। মনে করুন যেন আপনার নাম “রমেন্দ্রমোহিনীই ছিল! কেবল ডাক নাম—

 রাম। থাক মশাই সে নামে আর কাজ নেই। রমেন্দ্রমোহিনী! আঃ কি সুমিষ্ট নাম! (সুরে)

“নাম শুনে প্রাণ শীতল হ'ল কি মধুর নাম।”

 (স্বগতঃ) একি প্রণয়ের পূৰ্ব্বলক্ষণ! একেই কি শাস্ত্রকারেরা পূৰ্ব্বরাগ বলেন?

 রমেন্দ্র। (স্বগতঃ) বড় বেগতিক দেখছি, সরে পড়ি। -(প্রকাশ্যে) তবে এখন আমি আসি।

 রাম। আচ্ছা আপনি এখন যেতে পারেন। আর দেখুন,একবার ভূতিকে ডেকে দিয়ে যান তো; দেখুন, আপনি একটু অন্তরালে থাকুন, ডাকলেই আসবেন।