পাতা:নাট্য-বিকার.pdf/৪৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
৪৪
নাট্য-বিকার।

 হরিশ। শেষে এতদূর হ’ল! ওঃ! আমাকেও পাগল করে তুলেছে! হায় হায়! আমি লোকালয়ে মুখ দেখাব কেমন করে? আর পাঁচকড়িকেই বা কি বলবো? উঃ! রমেন্দ্র ছোঁড়া ভদ্রবেশে কি জঘন্য প্রকৃতির লোক!তাই আগে চেয়েছিল লিবার্টি(Liberty),পরে করল ফ্রেটার্নিটি (Fraternity), এখন দাঁড়াচ্ছে পূরো ইকোয়ালিটি (Equality); আগে ছিল মোশানমাষ্টার, এখন পুরো প্রোমোশান (Promotion) পেয়েছে! হায় হায়! আমি কি আহাম্মক!

(পাঁচকড়ির প্রবেশ।)

 পাঁচ। মশাই! আসতে আসতে একি শুনছি?আপনার আদুরে মেয়ে,আপনি তাকে আমার কাছে পাঠাতে চান না,এখন কার হাতে তুলে দিলেন বলুন দেখি?

 হরিশ। আমি কি করবে। বাবু! তোমার প্রাণের ডাক্তার বন্ধুই এই কীৰ্ত্তি করেছেন। হায় হায়! রোগের চেয়ে চিকিৎসাটা যে আরো উৎকট হ’য়ে দাঁড়াল।

(রমেন্দ্র ও তৎপশ্চাৎ রামমণির প্রবেশ।)

 তোরা আবার কোন মুখে এ বাড়ীতে ঢুকেছিস? তুই বেটা ছুঁচ হ’য়ে ঢুকে ফাল হ’য়ে বেরুলি? বেটাকে এখনি পুলিসে দেব।—কনষ্টেবল!

 কনষ্টেবল! নেপথ্যে কন। হাজির!

(ভূতির হস্ত ধরিয়া কনষ্টেবলের প্রবেশ।)

 হরিশ। এ আবার কি কীৰ্ত্তি!

 কন। মশাই, এটি কি আপনার বাড়ীর ঝি?