পাতা:পঞ্চক মালা - বিজয় চন্দ্র মজুমদার.pdf/৩৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

পঞ্চকমালা।


পাতার গায়ে বাতাস বেজে
উঠ্‌ল ঘন স্বনে গো;
তোমার পানে (ফুলে সেজে)
চাইল তরু বনে গো।
তুমি ছিলে বন্যা-জলে
কূলে কূলে ফুলিয়া;—
গঙ্গা সম গেলে চলে’
তরঙ্গেতে দুলিয়া।
তাহার পরে সূর্য্য-করে—
ঝলকিল ধারণী;
শাদা মেঘের মতন্‌ বেগে
গঙ্গা-বক্ষে তরণী,
চল্‌ল ছুটে; উঠ্‌ল ফুটে
চূর্ণ ঢেউ এর বুদ্‌বুদে,—
তারার কণা, হীরের দানা,
গাঁথা সোণার বিদ্যুতে।
প্রেমের বানে, সুখের টানে,
তুমিও গেলে অম্নি ত,—
প্রীতির ধারার মাঝে ধরা
করি’ প্রতিবিম্বিত।

৩০