পাতা:পঞ্চরাত্র - গুরুবন্ধু ভট্টাচার্য্য.pdf/৪৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
পঞ্চরাত্র
 

 রাজা। কুমারের এই কার্য্য বাস্তবিকই প্রশংসনীয়। পরাজিত শত্রুর গুণ কীর্ত্তন ক’রে সম্মান দেখালে তাদের মনোবেদনার লাঘব হবে। বৃহন্নলা কোথায়?

 ভট। সুসংবাদ নিয়ে অন্তঃপুরে গেছেন।

 রাজা। বৃহন্নলাকে ডেকে আন।

 ভট। যে আজ্ঞা, মহারাজ।

বৃহন্নলার প্রবেশ

 বৃহ। (চারিদিকে তাকাইয়া সবিষাদে)

 গাণ্ডীবে গুণ চড়িয়ে যোদ্ধাদের সঙ্গে অল্পকাল মাত্র যুদ্ধ কত্তে হয়েছে। শর-পরিবর্ত্তনে শিথিল মুষ্টি সংহতও হয় নি। অঙ্গুলিত্র পরা অঙ্গুলিরও বিশেষ কোন কৌশল দেখাতে হয় নি। এখানে যে বীরত্ব দেখাবার বেশী প্রয়োজন হয় নি তা ভালই হ’য়েছে। স্ত্রী-বেশ ধারণ করেছি বলে দেহ অনেকটা শিথিল হ’য়েছে। গাণ্ডীব হাতে ছিল বলেই আমার মনে হয়েছে যে আমিই সেই অর্জুন।

 আমি স্ত্রী-বেশ ধারণ ক’রে লজ্জিত হ’য়েই ধনু আকর্ষণ ক’রে রাজাদের সঙ্গে যুদ্ধ করেছি। এই যুদ্ধ যে শীঘ্র শীঘ্র শেষ হ’য়ে গিয়েছে তা ভালই হ’য়েছে।[১]


  1. ‘শীঘ্রং নিম্নঃ কলুষশ্চ রেণুঃ’—‘কলুষ রেণু’ দ্ব্যর্থক—
৪৬