পাতা:পণ্ডিত শিবনাথ শাস্ত্রীর জীবনচরিত.pdf/২১৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চতুৰ্দশ অধ্যায়। ধৰ্ম্মবীর-কৰ্ম্মক্ষেত্রে । মহা সংগ্রামের ভিতর ১৮৭৮ সাল কাটিয়া গেল। ১৮৭৯ সালের জানুয়ারি মাসের মাঘোৎসবের সময় নূতন মন্দিরের ভিত্তি স্থাপিত হইল। ইহার পূর্বেই কর্ণওয়ালিস স্ট্রীটের উপর একখণ্ড জমি ক্ৰয় করা হইয়াছিল। নূতন মন্দির নিৰ্ম্মাণের জন্য সকল সভ্যই উঠিয়া পড়িয়া লাগিলেন। কাৰ্য্য নিৰ্বাহক সভায় সভ্যেরা প্ৰতোকে এক এক মাসের মাহিনী এই মন্দির নিৰ্ম্মাণের জন্য দিলেন। মহর্ষি দেবেন্দ্ৰনাথের নিকট হইতে শিবনাথ ৭০০০২ টাকা আনিলেন। ইহা ভিন্ন সিন্ধিয়া, পাঞ্জাবের সদার দয়াল সিংহ প্ৰভৃতি মুক্তহস্তে এ মন্দির নিৰ্ম্মাণের জন্য সাহায্য করিয়াছিলেন। ১৮৭৯ সালের মাঘোৎসবের সময় মন্দিরের ভিত্তি স্থাপনের সময় এক আশ্চৰ্য্য দৃশ্য দেখা গেল। BD LS DBDS S DBBDS BBBB BD DDBDBS SDDD বালক বালিকা দলে দলে আসিয়া উপস্থিত হইল।। ৭টায় সময় কাৰ্য্যনিৰ্বাহক সভার সভ্যগণ একটা প্ৰস্তরখণ্ডে সেই DDB BBB DDD S DBB B DDBBD S DDD DBDD DBBBBD SS S D DB LOB DBBBD DuDuDS DDBDLD DDB BDDD চারিদিকে ব্ৰাহ্ম ব্রাক্ষিকাগণ ঘিরিয়া Wাড়াইলেন। শিবনাথ মৰ্ম্মস্পর্শী ভাষায় সে দিনকার মহৎ কাৰ্য্যের সূচনার বর্ণনা করিলেন । যে সত্যের জন্য সংগ্ৰাম করিয়াছেন, যে সত্যস্বরূপের পূজার জন্য মন্দির নিৰ্ম্মিত হইবে তার বর্ণনা