পাতা:পণ্ডিত শিবনাথ শাস্ত্রীর জীবনচরিত.pdf/২৭০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অষ্টাদশ অধ্যায়। বিলাত হইতে প্ৰত্যাবর্তনের পর । শিবনাথ বিলাত হইতে নূতন দৃষ্টি, নূতন ভাব, নূতন উদ্দীপনা লাইয়া দেশে ফিরিলেন । বিলাত যাইবার সময় পথে মান্দ্ৰাজ হইতে ১৮৮৮ সালের ৯ই এপ্ৰেল কন্যা হেমলতাকে লিখিতেছেন“দয়াময় প্ৰভু তঁর দাসকে রক্ষা করিতেছেন। তিনি আমাকে এই নির্জন সমুদ্রবক্ষে বলিতেছেন যে আমার ভার সম্পূর্ণ রূপে র্তার উপরে। তিনি তঁহার ব্ৰাহ্মসমাজের জন্যই আমায় সৃষ্টি করিয়াছেন। ব্ৰাহ্মসমাজের কাজের জন্য আমার এতটা উৎসাহ বাড়িতেছে, যে দশটা মত্তহস্তীর বল পাইলেও যেন কুলায় না। নিশ্চয় বোধ হইতেছে ইংলণ্ড হইতে আসিয়া অনেক কাজ করিতে পাইব ।” আবার ফিরিবার পথে কন্যাকে লিখিতেছেন :- S. S. Rohilla. 19th Novamber, 88. “যতই বাড়ীর দিকে যাইতেছি, ততই দেশের দুর্ভিক্ষ, প্রজাদের দারিদ্র্য, অজ্ঞতার কথা মনে হইয়া প্ৰাণ বিষন্ন হইতেছে। আবার গিয়া সংগ্ৰাম ক্ষেত্রে অবতরণ করিতে DDBDSS BEEL DDB DDD BDBD DDuSDBDBD BBBEBS প্রাপ্ত হইয়াছি। এখন তাহা কাৰ্য্যে পরিণত করিতে পারিলে छ।” बांद्धदिक हिङ कि ইংলণ্ড গিয়া ব্ৰাহ্মসমান্ধুের সেবার