পাতা:পণ্ডিত শিবনাথ শাস্ত্রীর জীবনচরিত.pdf/৩৬৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চতুবিংশ অধ্যায়। ৩২২ চতুর্থতাঃ-আর একটী বিষয়ে পরপর বিরোধী ভাবের সমাবেশ আবশ্যক, তাহা ভূত ও বর্তমানের মিলন। প্রাচীনের প্রতি অতিরিক্ত আস্থা অস্বাভাবিক স্থিতিশীলতার কারণ হইলেও আমরা কি প্ৰাচীনকে বিশ্বত হইয়া বা অগ্ৰাহা করিয়া চলিতে পারি ? প্ৰাচীন হইতে বৰ্ত্তমানকে কখনই বিচ্ছিন্ন করা যাইতে পারে না । সুতরাং প্রাচীনের প্রতি সমুচিত আস্থা ধৰ্ম্মজীবনের প্রাধান পরিপোষক। অতএব যুগধৰ্ম্ম ভূত কালের ন্যায় বৰ্ত্তমানকেও অনুরাগ ও উৎসাহের সহিত আলিঙ্গন করিবে । বৰ্ত্তমানকে বিধাতার লীলাক্ষেত্ৰ বলিয়া মনে করিবে । সর্ববিধ মানবীয় উন্নতির মধ্যে আপনাকে সোৎসাহে নিক্ষেপ করিবে-সর্ববিধ উন্নতি সাধনে সহায় হইবে, পরাবিদ্যার দ্যায় অপর বিদ্যাকেও আদর করবে। বলিতে কি অপরাবিষ্ঠার প্রভেদ ঘুচাইয়া দিবে, সকল বিদ্যাকেই পরাবিদ্যার চক্ষে দেখিবে । বৰ্ত্তমানকেই যে কেবল আগ্রহের সহিত ধরিবে তাহা নহে-আশার বাসস্থান ভবিষ্যতেআশাকে অবলম্বন করিয়া ভবিষ্যতের দিকে অগ্রসর হইবে । উচ্চ আদশের অভিমুখে অগ্রসর হইবার জন্য অবিশ্রান্ত সংগ্রাম করাই জীবন । বিশ্বাসীর মনের যে এই আশা ইহা যুগ ধৰ্ম্মের মধ্যে প্ৰধান শক্তি রূপে বাস করিবে ।” শিবনাথ যে ভাবে যুগধৰ্ম্মকে বুঝিয়াছিলেন ঠিক তঁর মুখের কথায় এইখানে তাহা সন্নিবিষ্ট করিলাম। এই যে যুগ ধৰ্ম্মের উন্নত আদর্শ তাহা হইতে তিনি একচুলও ভ্ৰষ্ট হন নাই। ধৰ্ম্মমত এবং ধৰ্ম্মজীবনে প্ৰভেদ অনেক । ধৰ্ম্মের। কাৰ্য্য গ্ৰহণ করা-স্তানের কাৰ্য্য জীবনে প্ৰতিপালন করা, অনুরাগ প্রেম ও শক্তির কৰ্ম্ম । আদর্শ ধৰ্ম্মজীবন লাভের জন্য ধৰ্ম্মসাধনায় তার হৃদয়শীলতা R