পাতা:পণ্ডিত শিবনাথ শাস্ত্রীর জীবনচরিত.pdf/৩৭৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


* চতুবিংশ অধ্যায়। V)9 কাগজে লেখা হয়, “ধৰ্ম্মজীবনে শিবনাথ নাম, সজীবন মন্ত্রের মত শক্তিধর নাম ; পণ্ডিত শিবনাথ সাধারণ ব্ৰাহ্মসমাজের একজন স্রষ্টা, পতাকা ধারক, বাহক, মনীষী ও মেধাবী। প্ৰতিভাশালী শিবনাথ দেশের ও জাতির জন্য তঁাহার কতটা পণ করিয়াছিলেন, স্বেচ্ছায় সাধ করিয়া তিনি দারিদ্র্যকে আলিঙ্গন করিয়া দেশসেবায় প্ৰমত্ত হইয়াছিলেন । এখনকার ছেলেরা তাহা বুঝিবে না, পণ্ডিত শিবনাথ শাস্ত্রী ব্ৰাহ্মসমাজের জন্য জীবন পণ করিয়া কতটা ত্যাগাস্বীকার করিয়াছিলেন।” ষে ঘুগধন্মের আদর্শ তিনি নিজ জীবনে সাধন করিয়াছিলেন তার সকলগুলি লক্ষণই তিনি জীবনে সাধন করিয়াছিলেন । তঁর জীবনে ছিল উন্নতনীতি ও ভাবুকতা, সাধুভক্তি ও স্বাধীনতা, সামাজিকতা ও আত্মদৃষ্টি, প্ৰাচীনের প্রতি শ্রদ্ধা, নবীনের প্রতি বিশ্বাস, ভবিষ্যতের জন্য আশা, সকল অবস্থায় মহত্ত্বের প্রতি SDBBDSS sDDD DDBDD DBBD DBBBBLBBDBSSYS “একটী চিন্তাতে সহস্র প্রলোভনের মধ্যে আমাকে অপূর্ব বল আনিয়া দেয়, সে চিন্তাটা এই, ইন্দ্ৰিয়পরায়ণ ভোগ সুখাসক্ত স্বার্থপর জীবন ধারণ করিবার জন্য জন্মি নাই। ইহা অপেক্ষা এক উন্নত জীবন আছে যাহা ধারণ করিতে পারা পরম সৌভাগ্য এবং যাহা ধারণ করাই প্ৰকৃত ঈশ্বরের সেবা । সে জীবনে আত্মসংযম, বৈরাগ্য, পবিত্ৰতা, পরসেবা প্ৰধান লক্ষণ । DBBDBD DBB BDDB DBBD DD DBDBD DDD S BD DDDBBB চিন্তা আমাকে কোন রাজ্যে যেন তুলিয়া লইয়া যায়। কল্য হইতে এই জীবনের চিন্তা আমার মনে জপিতেছে, ও আমার চিত্তকে আনন্দে ভাসাইতেছে। আমার স্বাৰ্থত্যাগের আকাঙ্ক্ষা