পাতা:পণ্ডিত শিবনাথ শাস্ত্রীর জীবনচরিত.pdf/৪০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


' ' ', २8 ई. में विरमाथ-औरबो। দিগের মধ্যে প্রধান। পণ্ডিত হরানন্দ ভট্টাচাৰ্য স্পৰ্দ্ধাভরে । বলিয়াছিনে।-“যদি আর কেউ স্কুলে মেয়ে না দেয়, স্বায়ু । আমার মেয়ে লইয়া স্কুল চলিবো।” যেখানে প্ৰতিবাদ, যেখানে বাধা, ". "; হরানন্দ শৰ্ম্ম সেইখানেই বিজয়ী বীরের মত ॉफुारे,छन । । শিবনাথের পিতা বিদ্বান ও সত্যানুরাগী ব্যক্তি ছিলেন। কাব্য- “ কথায় ও সংস্কৃতগ্রন্থের সমালোচনায় তাহার বিশেষ উৎসাহ ছিল। । তিনি অতিশয় সদালাপী ও সুরসিক ছিলেন।—তাঁর রসিকতার আর | অন্ত ছিল না। সকল প্রকার জনহিতকর কাৰ্য্যে তার অদম্য : উৎসাহ ছিল। পল্লীগ্রামে যখনই অগ্নিকাণ্ড উপস্থিত হইত, . হরানন্দ শৰ্ম্ম সৰ্ব্বাগ্রে সেই জ্বলন্ত চালের উপর উঠতেন, এবং সকলকে । জল আনিয়া দিবার জন্য উৎসাহিত করিতেন। কত সময় দেখা গিয়াছে, কোন দুঃখিনী বিধবাকে কন্যাদায় হইতে । উদ্ধার করিবার জন্য সকলের নিকট সাহায্য প্রার্থনা করিয়া । তাহার দায় উদ্ধার করিয়াছেন। শিবনাথের পিতার হৃদয়ে । লেশমাত্র ক্ষুদ্রতা স্থান পাইত না-ক্ষুদ্রতা তিনি তিলমাত্র সহ করিতে | পারিতেন না। শিবনাথ তাহার পিতার উদারতা, সহৃদয়ত, . বাকৃপটুতা, রসিকতা, সত্যপ্রিয়তা, পরোপকারস্পাহা পূর্ণমাত্রায় ।

হরানন্দ ভট্টাচাৰ্য্যের সাধুতার কয়েকটা দৃষ্টান্ত দিতেছি। একবার | মজিলপুর অঞ্চলে দুৰ্ভিক্ষ হয়। সে সময় গরীব লােকের কষ্ট্রের একশেষ । দেখিয়া গবৰ্ণমেণ্ট রিলিফ ফাণ্ড খেলেন, ইরানন্দ শৰ্ম্মার । সত্যপরায়ণতা ও কাৰ্য্যপরায়ণতার খ্যাতি এতদূর ছিল যে কর্তৃপক্ষগণ । নিয়ম কৰিয়াছিলেন পণ্ডিত হরানন্দের নিকট হইতে সার্টিফিকেট । আনিলেই তাহাকে সাহায্য করা হইবে। ইহার কারণ এই ছিল যে : ;

I , ኅ, ն 歌 - ... '"