পাতা:পণ্ডিত শিবনাথ শাস্ত্রীর জীবনচরিত.pdf/৪২৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পরিশিষ্ট । २१ প্ৰদৰ্শন করিয়াছিলেন। তঁাতার “মেজ-বউ’, ‘যুগান্তর', ও ‘নয়নতারা” বাঙ্গালার উপন্যাস সাহিত্যভাণ্ডারে "সম্পদ রূপে পরিগণিত । ইহা ছাড়া, তিনি ‘আত্ম চরিত’ এবং “রামতনু লাহিড়ী ও তৎকালীন বঙ্গসমাজ” নামক দুইখানি মূল্যবান জীবনী গ্ৰন্থও লিখিয়া গিয়াছেন । তিনি যেমন উৎকৃষ্ট লেখক ছিলেন, তেমনই উৎকৃষ্ট বক্তাও ছিলেন। --হিন্দুস্থান “নায়ক” লিখিলেন :- আমরা হিন্দু ব্ৰাহ্মণ, “নায়ক” গোড়া ব্ৰাহ্মণের মুখপত্র । প্ৰথম কিশোরকাল হইতে আজ পৰ্য্যন্ত, জীবনের অৰ্দ্ধেকটা আমরা যেরূপ প্ৰতিবেশ প্রভাবের অধীন থাকিয়া মানুষ হইয়াছি, তাতাতে \O, আমাদিগকে আগা-গোড়া পণ্ডিত শিবনাথ শাস্ত্রী মহাশয়ের ধৰ্ম্মগত এবং সমাজগত মতের প্রতিবাদ করিতেই হইয়াছে। তথাপি আমরা সোজা সরল ভাষায় ব্যক্ত করিব যে, পণ্ডিত শিবনাথ শাস্ত্রী মহাশয়ের পরলোক গমনে বাঙ্গালার শিক্ষিত সমাজের একটা দিকৃপালের পাত হইল ।

  • 蕾 站 端 崇 旅 米 兼

পণ্ডিত শিবনাথ সম্বন্ধে কথা কহিতে হইলে বাঙ্গালার শিক্ষিত সমাজের গত অদ্ধ শতাব্দীর ইতিবৃত্তেব্য একাংশের আলোচনা করিতে হয়। আমাদের তেমন স্থান নাই ;-সাধ হইলেও তাহা মিটাইতে পারিলাম না । শেষ কথা বলিব-পণ্ডিত শিবনাথের মৃত্যুতে সাধারণ ব্ৰাহ্মসমাজ যাহা হারাইলেন, তাহা আর পাইবেন না ; ব্ৰাহ্মসমাজের ফটিকস্তম্ভ ভাঙ্গিয়া পড়িল, ব্ৰাহ্মসমাজের প্রাণ এবং প্রতিভা দুই