পাতা:পত্রপুট-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/১৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
পত্রপুট
 

শ্রাবণ ভাদ্রের ভূরিভােজের অবসানে
তাদের ভাবখানা অতি মন্থর;
কী জানি, মুখ-ডােবানাে রসালাে ঘাসেই তাদের তৃপ্তি
না, পিঠে কাঁচা রৌদ্র লাগানাে আলস্যে।


হাওয়া-বদলের দায় আমার নয়;
তার জন্যে আছেন স্বয়ং দিক্‌পালেরা
রেলোয়ে স্টেশনের বাইরে,
তাঁরাই বিশ্বের ছুটিবিভাগে রসসৃষ্টির কারিগর।
অস্ত আকাশে লাগল তাঁদের নতুন তুলির টান
অপূর্ব আলােকের বর্ণচ্ছটায়।
প্রজাপতির দল নামালেন
রৌদ্রে ঝল্‌মল্‌ ফুলভরা টগরের ডালে,
পাতায়-পাতায় যেন বাহবাধ্বনি উঠেছে
ওদের হাল্‌কা ডানার এলােমেলাে তালের রঙিন নৃত্যে।
আমার আঙিনার ধারে ধারে এতদিন চলেছিল
এক সার জুঁই বেলের ফোটা-ঝরার ছন্দ,
সংকেত এল, তা’রা সরে পড়ল নেপথ্যে;
শিউলি এল ব্যতিব্যস্ত হয়ে;
এখনাে বিদায় মিল্‌ল না মালতীর।
কাশের বনে লুটিয়ে পড়েছে শুক্লাসপ্তমীর জ্যোৎস্না,—
পূজার পার্বণে চাঁদের নূতন উত্তরী
বর্ষাজলে ধােপ-দেওয়া॥