পাতা:পত্রাবলী (১৯১২-১৯৩২) - সুভাষচন্দ্র বসু.pdf/২৯৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

প্রথম স্থান অধিকার করিতে পারিতাম না। ইহা বলিলেও বোধহয় অন্যায় হইবে না যে যদিও Major Flowerdew জাতিতে ইংরাজ তবু ইংরাজী ভাষা ও সাহিত্যের জ্ঞান তাঁহার অপেক্ষা আমার অনেক বেশী।

 ইহা দুঃখের সঙ্গেই স্বীকার করিতে হইতেছে যে, আমার সামাজিক মর্য্যাদা বা দেশসেবকরূপে আমার ভূমিকা যাহাই হউক না কেন প্রাচীরবেষ্টিত এই জেলের সীমানার মধ্যে আমাকে সুপারিন্টেণ্ডেন্ট হইতে সুরু করিয়া নিম্নতম কর্ম্মচারী পর্য্যন্ত জেলের প্রত্যেক কর্ম্মচারীর অনুগ্রহের উপরই অধিক মাত্রায় নির্ভর করিতে হয়। যদিও গভর্ণমেন্টের নির্দ্দেশানুসারে আমাকে সর্ব্বপ্রকার প্রয়োজনীয় দ্রব্য (সংবাদপত্র সহ) সরবরাহ জেল কর্ম্মচারিগণের অবশ্য কর্ত্তব্য এবং যদিও আমি জানি যে, গভর্ণমেন্ট যে সব কাজের জন্য তাহাদের মাহিনা দিয়া থাকেন তাহার মধ্যে আমার সুখ-সুবিধা বিধানও অন্যতম তথাপি আমি এরূপ অবিবেচক নহি যে তাহাদের হুকুম করিব। কলিকাতা কর্পোরেশনের চীফ এক্সিকিউটিভ অফিসাররূপে নিম্নতম কর্ম্মচারীদের সহিত আমাকে যেরূপ ব্যবহার করিতে হইয়াছে সেই অভিজ্ঞতা হইতেই একথা বলিতে পারি। আপনি হয়তো অবগত আছেন যে, সেখানে আমার নিম্নতম কর্ম্মচারীদের মধ্যে অনেক উচ্চশিক্ষিত ও আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন ইউরোপীয় ছিলেন; তাঁহাদের কেহ কেহ Major Flowerdew-র দ্বিগুণ মাহিনা পাইয়া থাকেন। সুতরাং ইহা আমার জানা প্রয়োজন যে, কিরূপে ও কি ভাষায় নিম্নতম কর্ম্মচারীদের নিকট নির্দ্দেশ পাঠাইতে হয় এবং আমার ঐ অভিজ্ঞতার পরিপ্রেক্ষিতে আমি দ্বিধাহীনভাবে বলিতে পারি কোনও বিবেকবান ব্যক্তিই একথা স্বীকার করিবেন না যে, চীফ জেলার মিঃ সলোমনকে উপরোক্ত পত্র পাঠাইয়া আমি কোনও “হুকুম করিয়াছি”।

 পত্র শেষ করিবার পূর্ব্বে ব্যক্তিগত কৈফিয়ৎ হিসাবে আমি আরও কয়েকটি কথা আপনাকে জানাইতে চাই। আইনানুসারে

২৭৩