পাতা:পলাতকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/২৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পলাতক এই ব’লে সেই মেয়েটাকে আড়ালেতে নিয়ে গেলেম ডেকে ; আচ্ছা করেই দিলেম তারে হেঁকে-— কেমন তোমার নোকরি থাকে দেখব অামি ! প্যাসেঞ্জারকে ঠকিয়ে বেড়াও ! ঘোচাব নষ্টামি ? কেঁদে যখন পড়ল পায়ে ধ’রে দ্য টাকা তার হাতে দিয়ে দিলেম বিদায় করে । জীবন-দেউল তাধার করে নিবল হঠাৎ আলো । ফিরে এলেম দু মাস যেই ফুরালো । বিলাসপুরে এবার যখন এলেম নামি, একলা অামি । শেষ নিমেষে নিয়ে আমার পায়ের ধূলি বিঘ্ন আমায় বলেছিল, এ জীবনের যা-কিছু আর ভুলি শ্যে দুটি মাস অনন্তকাল মাথায় রবে মন বৈকুণ্ঠেতে নারায়ণীর সি থের পরে নিত্যসি দুর-সম | এই দুটি মাস স্বধায় দিলে ভরে, বিদায় নিলেম সেই কথাটি স্মরণ করে ।” ওগো অন্তর্যামী, বিমুরে আজ জানাতে চাই আমি ૨૭