পাতা:পলাতকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/৮৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পলাতকা কথায় কেবল কথারই ফল ফলে, পুথির সঙ্গে মিলিয়ে পুথি কেবলমাত্র পুথিই বেড়ে চলে । আজ আমার এই ষাট বছরের বয়স-কালে পুথির স্বষ্টি জগৎটার এই বন্দীশালে হঁাপিয়ে উঠলে প্রাণ পালিয়ে যাবার একটি আছে স্থান— সেই মহেশের পাশে পাড়ায় যারে পাগল ব’লে হাসে । পাছে পাছে ছেলেগুলো সঙ্গে যে তার লেগেই আছে । তাদের কলরবে নানান উপদ্রবে এক মুহূর্ত পায় না শান্তি, তবু তাহার নাই কিছুতেই ক্লান্তি । বেগার-খাটা কাজ তারই ঘাড়ে চাপিয়ে দিতে কেউ মানে না লাজ । সকাল বেলায় ধরে ভজন গল৷ ছেড়ে ; যতই সে গায় বেস্তুর ততই চলে বেড়ে । তাই নিয়ে কেউ ঠাট্টা করলে এসে মহেশ বলে হেসে,— *আমার এ গান শোনাই র্যারে brミ