পাতা:পাখীর কথা - সত্যচরণ লাহা.pdf/২৫৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

নাটকে পাখীর পরিচয়

 কালিদাসের তিনখানি নাটকে আমরা মোটামুটি যে সকল পাখীর উল্লেখ দেখিতে পাই, নাম হিসাবে সেগুলিকে তালিকাভুক্ত করা যাইতে পারে। আলোচনার সুবিধার জন্য তালিকাটি বৈজ্ঞানিক হিসাবে না দিয়া আপাততঃ নাম হিসাবে নিম্নে প্রদান করিতেছি।

 ১। রাজহংস (মানসোৎসুকচিত্ত), রাজহংসী (মৃণালসূত্রাবলম্বিনী) ২। হংস (পত্রচ্ছায়াসু মুকুলিতনয়ন ইত্যাদি), হংসমিথুন (সৈকতলীন ইত্যাদি), হংসযুবা (সহচরী-সঙ্গত) ৩। চক্রবাক (প্রিয়াসহায়, গোরোচনাকুঙ্কুমবর্ণ), রথাঙ্গনামা (অহং প্রিয়াসহচরীব মে ইত্যাদি), চক্রবাকবধূ, চক্রবাকী (প্রিয়বিরহে বিষাদদীর্ঘতরা রজনী আশায় অতিবাহিত করিতেছে ইত্যাদি) ৪। সারস ৫। কারণ্ডব (তপ্তং বারি বিহায় তীরনলিনীং সেবতে) ৬। ময়ূর ৭। শুক ৮। পারাবত, কপোত (বন্ধনভ্রষ্ট গৃহপালিত ইত্যাদি) ৯। চাতক ১০। গৃধ্র ১১। শ্যেন ১২। কুররী ১৩। পরভৃত, পুংস্কোকিল, কোকিলা।

রাজহংস

 যে রাজহংস রাজহংসী লইয়া আমরা তালিকাটি আরম্ভ করিয়াছি তাহাদের কথা লইয়া আলোচনার সূত্রপাত করা যাক্। মানসোৎসুকচিত্ত রাজহংস ও মৃণালসূত্রাবলম্বিনী রাজহংসী—ইহার তাৎপর্য্য কি? এই রাজহংস-জাতীয় পাখী পাশ্চাত্য পণ্ডিতদিগের নিকটে flamingo (Phœnicopterus) নামে পরিচিত, এ কথা আমি পূর্ব্বে মেঘদূত-প্রসঙ্গে বুঝাইবার চেষ্টা করিয়াছি। সাধারণ পাঠকবর্গেরও এই পাখীটিকে চিনিবার সহজ উপায় এই যে, অমরকোষোক্ত “রাজহংসাস্তুতে চঞ্চুচরণৈর্লোহিতৈঃ সিতা” এই শারীরিক লক্ষণ