পাতা:প্রবাসী (ঊনত্রিংশ ভাগ, দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/১৪৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


১ম সংখ্যা ] - - --م- == s-....-.- - ۔ ۔ ----- محرم حصہ صح۔حیحیحی۔ - -یہی۔ رے বিবার পথে একটা বড় সহায় লাভ হইবে। কারণ পোষাককে অবলম্বন করিয়া জীবনের পারিপাশ্বিক একটা দিক সম্বন্ধে সুস্পষ্ট ধারণা হুটবে । মুসলমান-পূৰ্ব্ব যুগের বাঙ্গালায় স্ত্রী-পুরুষের পোষাক কি রকম ছিল, সে সম্বন্ধে সে যুগের একমাত্র ললিত শিল্পের নিদর্শন যে ভাস্কর্ধ্য ও দুই একখানি তালপাতায় লেখা বৌদ্ধ-পুথির ঠাকুর-দেবতার ছবি পাওয়া গিয়াছে, তাহা হইতে যথারীতি আলোচনা করিয়া কিছু তথ্য বাহির করিতে পারা যায়। সম্প্রতি ঢাকা মিউজিয়ম হইতে ঐযুক্ত নলিনীকান্ত ভট্টশালী মহাশয় পূৰ্ব্ববঙ্গের ভাস্কর্ধা সম্বন্ধে যে বিরাট মৌলিক গবেষণার পুস্তক প্রকাশ করিয়াছেন, সেই পুস্তকের মধ্যে নিহিত প্রাচীন ভাস্কর্য্যের চিত্রাবলীর দ্বারায় এবং লেখকের গভীর ও ব্যাপক পাণ্ডিত্যের দ্বারায় প্রাচীন তথা আধুনিক উভয় যুগের বঙ্গদেশের গৌরব বুদ্ধি হষ্টবে। এই পুস্তকে এই সকল প্রাচীন প্রস্তর ও তাম্রমূৰ্ত্তি এবং চিত্র অবলম্বন করিয়া প্রাচীন হিন্দু আমলের বাঙালীর পোষাক সম্বন্ধে ভট্টশালী মহাশয় কিছু তথ্য আবিষ্কার করিতে চেষ্টা করিয়াছেন। মুসলমান যুগের জন্ত আলোচনা করা যায়, মাত্র খান কতক পুথির পাটায় আঁকা ঠাকুর-দেবতার ছবি ; তাহাও আবার ঠাকুর-দেবতার ছবি বলিয়া এবং প্রাচীন হিন্দুযুগের রীতি অনুসরণ করে বলিয়, যে কালে সেই ছবি আঁকা হইয়াছিল সৰ্ব্বত্র সেই কালের বাঙ্গাল দেশের অংশ-বিশেষের পরিচ্ছদের নিদর্শন-রূপে গ্রহণ করা যায় না—এ বিষয়ে যথেষ্ট বিচার ও সাবধানতা অবলম্বন করা আবশুক। তার পর আসে ইংরেজী আমল। অষ্টাদশ শতকের শেষ হইতেই আমাদের যুগ পৰ্য্যন্ত বহু ইংরেজ চিত্রকর, এদেশের অনেক ব্যাপার—এদেশের যাত্রা-উৎসব, সামাজিক ও ধর্শ্বসম্বন্ধীয় আচার-অনুষ্ঠান, জন-সাধারণের পোষাক-পরিচ্ছদ, এদেশের শ্রেষ্ঠ ব্যক্তিদের প্রতিকৃতি প্রভৃতি জিজ্ঞাস্ক-ভাৰে “বৈজ্ঞানিক কৌতুহল”-বশবর্তী इहेब्बा ऍांकिब्र गिब्रां८छ्न, uाद६ cगई जरूज इदि ¢कांथांe রঙ্গীন করিয়া কোথাও বা খালি কালে রঙ্গে ছাপাও হইয়াছে। এতদ্ভিয়, তাহারা বহু বর্ণনাও দিয়া পরিচ্ছদের ইতিহাস আলোচনা b>S গিয়াছেন। এই সকল চিত্র সম্পূর্ণ বস্তু-পৰ্বতন্ত্রতার সহিত এজ ষত্ব করিয়া আঁকা, যে, ফোটোগ্রাফের কাজ করে । এই সকল ছবির সঙ্গে সঙ্গে বাঙ্গালী পটুয়াদের আঁকা ছবি উনবিংশ শতকের প্রথম, মধ্য ও শেষ ভাগের পোষাক-পরিচ্ছদ সম্বন্ধে ও অনেক নিখুত ও সত্য খবর দেয় । বাঙ্গালীর সমাজের এক স্থায়ী ও চাক্ষুষ পরিচয় এই সকল ছবি হইতে পাওয়া যাইবে—এ সকল ছবি বাঙ্গালীর সামাজিক জীবন অবলম্বন করিয়৷ বিগত শতকে ধে সাহিত্য রচিত হইয়াছে – কবিওয়ালাদের সময় ইষ্টতে বঙ্কিমযুগের শেষ পৰ্য্যস্ত,—তাহার একটি চিত্রময় টীক-স্বরূপে বিদ্যমান থাকিবে, আমাদের সেই সকল ছবি নানাস্থান হইতে —ইংরেজী ও অন্য ইউরোপীয় বঙ্গ হইতে এবং বাঙ্গালা বই, পঢ়য়ার আঁকা সামাজিক ব্যঙ্গচিত্র প্রভৃতি—সংগ্ৰহ করিয়া লইলে, বিগত শতাব্দীর বাঙ্গালার পারিবারিক ও সামাজিক জীবনের একটি চিত্রশালা হইয়া দাড়াইবে । এই মাসের প্রবাসী’তে একপানি ইংরেজী বই হইতে প্রায় একশত বৎসর পূৰ্ব্বেকার বাঙ্গালী কেরাণীর, বাঙ্গালী স্ত্রীলোকের ও একজন বাঙ্গালী বরকন্দাজের ছবি দেওয়া *** | *stät olfo A (Fanny Parkes) Atco ow ইংরেজ মহিলা ১৮২১ সালে স্বামীর সহিত ভারতবষে আসেন । এদেশে কয়েক বৎসর তিনি ছিলেন । তিনি ছবি আঁকিতেন, তাহার হাতের স্বাক ও অঙ্ক ছবি দিয়া নিজ ভ্রমণ-বুভাস্ক তিনি প্রকাশ করেন *istol (Wanderings of a Pilgrim in Search of the Picturesquc) I Ef& fsä•íffa & বই হইতে উদ্ধৃত । ছবির পোষাক সম্বন্ধে মন্তব্য করিবার বিশেষ কিছু নাই । বাঙ্গালী মেয়ে ও পুরুষের পোষাক আজকাল বেশ কিছু কিছু বদলাইতেছে। ফ্যানী পার্কসের আঁকা ছবির স্ত্রীমূর্ধিটার গহনাগুলি এখন অনেকাংশে অপ্রচল হইয়া আসিতেছে। পুরুষমুটির পাগড়ী বাঙ্গালীর পোষাক হইতে এখন অস্তহিত হইয়াছে ; পায়ের নাগরা জুতা, ভারতীয় শিল্পকলার আলোচনার প্রভাবে, আগরা হইতে সৌধীন আকারে আনীত হইয়া বহুদিনের অব্যবহারের পরে কিছুকাল Stro e