পাতা:প্রবাসী (ঊনত্রিংশ ভাগ, দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/২৫১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ミ >b" AAAAAA AAAAA S S AAS AAAAAS AAAAAS AAAAAS S S AAAAA AAAA AAAA AAAAMMAAA AAAA AAAA AAAA AAAA AAAA AAAAA .- = یہ سے -.۔اے ہمہ یہ ہند-یے سب = বাড়বাগ্নি ! এমনি ক’রে শত বৎসর অশাস্ত হয়ে, পাগল হ’য়ে ঘুরতে ঘুরতে, শেষকালে -থাকৃ সে অবাস্তর কথা ! তোমাদের বর্ণনা শুনে সন্দেহ হ’লো। মনে হ’লো হয়ত বা গোবিন্দ। তাই কৰ্ত্তার অনিচ্ছায় গিয়ে শুলুম ওই ঘরে । দেখি, সত্যই আমার গোবিন্দন্বন্দর এসেছেন। বুক জুড়িয়ে গেল ; এত অভিভূত হ’য়ে পড়লুম যে জ্ঞান-চৈতন্য সব রোধ হ’য়ে গেল । গোবিন্দ আর আমাকে ছেড়ে থাকৃতে পারছে না ; আমিও যে আর পারিনে। যত শীঘ্র যেতে পারি। বোস্তবাগীশ মশাইএর দুই চোখ বেয়ে চোখের জল ঝরে পড়তে লাগলো। বেদাস্তবাগীশ মশাই প্রকৃতিস্থ হ’য়ে বললেন, তোমরা দেখেছ, গোবিন্দসুন্দরের মাথাটি নেড়া। নিজের কল্পিত দুষ্কৃতির মনস্তাপে সে প্রায়শ্চিত্ত করেছিল ; কিন্তু তাতেও যখন তার মনের আগুন নিভল মা, তখন সে উদ্বন্ধনে দেহ ত্যাগ করলে। লক্ষ্য করনি হয়তো গলায় তার এথনো রজ্জ্ব ঝুলচে, ওটা যজ্ঞোপবীত वरण छूल श्छ, किरू उ नग्न । আর একটি কথা বললেই, আমার শেষ কথা বলা হয়। তোমরা আমার সৎকারের জন্য শব বহন, কি শবের অনুগমন করো না । পাছে গৃহস্থের অকল্যাণ হয় ব’লে আমি কৰ্ত্তাকে অনুনয় ক’রে কাশীতে এসেছি। পাছে তোমাদের কোন অকল্যাণ হয় বলে আমার এই শেষ অনুরোধ। এ বাড়ী যে খালি তা আমি জানতুম। এদের ফিরতে আরো অনেক দেরি } 명 . বাবা বললেন, এই কথাগুলি বলে তিনি পাশ ফিরে শুয়ে ঘুমিয়ে পড়িলেন। তারপর আর তার জ্ঞান হয়নি। তিনদিন অচৈতন্ত অবস্থায় থেকে, ধীরে ধীরে তার দেহ থেকে প্রাণবায়ু ব’ার হয়ে গেল যখন, তখন সবে স্থধ্য অস্ত झुप्टक्लम ! আমরা লোকজন ডাকিয়ে তাকে মণিকণিকার ঘাটে প্রবাসী—অগ্রহায়ণ, ১৩৩৬ S SAMMAAA AAAA AAAA AAAA SAAAAA AAAAMA MAAAS AAASASAAA AAMM S [ २si एठांशं, २झ ५७ S AAAAAS AAAMM AA AMAM MM AAAA AAAAA a.---ബ് കാ পাঠিয়ে দিলুম। একবার মনে হ’লে দেখে আসি ; কিন্তু না গিয়ে ভারি বুদ্ধির কাজই করা হয়েছিল। চারিদিক থেকে প্রশ্ন ক’লে, কেন ? কেন ? কেন ? উত্তরে বাবা বললেন, গোবিন্দসুন্দর শব বহন করেছিল। বেদাস্তবাগীশ মশাইএর মুখাগ্নিও সেই করেছিল । আমরা সঙ্গে থাকূলে তার হয়তো শেষ কৰ্ত্তব্য কেবল বাধাই দেওয়া হ’তে আর তার ফলও হয়তো ভাল হ’তো না। রাত তখন প্রায় বারোটা ; মডুই পোড়া বামুনরা ফিরে এলে । আমরা তাদের ভূরিভোজনের ব্যবস্থা ক’রে রেখেছিলুম। তারা খেয়ে-দেয়ে পরিতৃপ্ত হ’লে, চারজনের আট টাকা দক্ষিণ দেওয়াতে বললে, দেখচেন না, আমরা তিনজন । কেন ? তোমর তো চার জনই ছিলে ? না বাবু, এই গলিট পেরুতেই একজন ছোকরা বন্ধে আমার বাবার শব আমাকে বইতে দাও। ওদের সঙ্গে ঝগড়া, তাই যাইনি ওখেনে । সে সঙ্গে গেল, মুখে আগুণ দিলে । সব কাজ শেষ হ’লে সে কোথায় চলে গেল । আমরা বললুম, টাকাটা নিয়ে যাও দেখা হ’লে দিয়ে দিও তাকে । তা কি হয় বাৰু? কেউ বাপের সৎকার ফন্ধেটাৰু! cनश्च ? -, . আমরা বল্লম, না, না, যে লোকটিকে সরিয়ে দিয়ে ও এসেছিল--তার তো আশা ছিল । সে হয়তো ক্ষুণ্ণ হ’য়ে চ’লে গেছে । আচ্ছা দিন, দিয়ে দেব তাকে। কিন্তু এ তার উচিত éथों*] मध । ব’লে তারা চ’লে গেল । কোন রকমে পরের দুপুর পর্য্যস্ত কাটিয়ে আমরা গাড়ী পেতেই ছুটু বাবা! আর কি থাকা যায় সেখানে ? একটা দীর্ঘনিশ্বাস ফেলে বাবা বললেন, কিন্তু নামটি চমৎকার— cणांविमान्नमब्र !