পাতা:প্রবাসী (ঊনত্রিংশ ভাগ, দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৪১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


R• প্রবাসী—কার্তিক, ১৩৩৬ [ २s* छांशं, २ग्न थ७ -*ांप्लब्र शां८भ क्षणभांन-बाएँौ बाद उॉड़े भट्न कबूलांभ একবার দেখা করে যাই । -चांगनांद्र बबयान छ cबनश्रु cनांक । হাতে এই চিঠিখান দেখাচেন ? —তাত দেখচি। —আপনার কাছে ছুকোবার কথা এতে কিছু নেই। জামাকে জিগগেস করেচে এ গ্রামে ডাকাতের আড্ডা আছে কি না আর ভাকাতের কোনো সর্দার আছে কি না। বড় আপিলে তাদের ত কাজকৰ্ম্ম নেই, রোজ রোজ একট-ন-একটা ফ্যাচাং বের করে। —আমরা ত এত পুরুষ ধরে এখানে বাস করচি, ভাকাতের উপত্রব ত কখনো শুনিনি। —কোন কালে কি হ’ত এখন সে কথায় কাজ কি ? ন " তামহ ডাকাত ছিল বলে কি পৌত্রকে ফাসী দিতে ২. এমনতর লোক থাকৃতে পারে যারা আগে ডাকাতী কা2, কিন্তু এখন সে পেশা ছেড়ে দিয়েচে । তাদের ुग्नथेँ । कि श्रब ? - রোগাবাৰু, আপনার মত বিচক্ষণ লোক পুলিশে থ; কুলে পুলিশের এত বদনাম হত না । - আমাদের বুদ্ধিতে কি হবে ? উপরওয়ালাদের কুম - ল কেঁচোকেই সাপ বলে’ খুঁড়ে বের করতে হবে। সইজন্স ত অনেক নির্দোষী লোক্ত ধরা পড়ে। ভর চিঠিখান উন্টাইয়া পাটাইয়া, চোখ টিপিয়া বলিলেন,—ভোলাবাবুর পুকুরের মাছ বড় উনি ত আপনার একজন বড় যজমান। —আমাদের ঘর ওঁদের কুলপুরোহিত। আর আপনি ৰে মাছের কথা বললেন তার চেয়েও দামী জিনিষ জালে verô I . —কার জাল ? —লে কথা জাম্বার দরকার কি ? বাবুকে খুলী রাখলে আপনার অনেক দিকে লাভ। —সে কথা বেশ বুঝি। তবে আপনাদের বাবুর নামে যে-সব কথা শোনা যায় সে বিষয়ে জামি কি লিখব? –এই আপনি বললেন আগেকার কথা খুচিয়ে বের ख्यांघांब्र یي ي :"پو.: = : *?:; করে কোনো ফল নেই। ভোলাবাবুর বাপ পিতামহ কি করত তা জেনে কি হবে ? —তাদের কথা ত নয়, ভোলাবাবুর নিজের কথা । —আগেকার কথায় কাজ নেই, কিন্তু এখন যদি তার নামে কেউ কিছু বলে ত মিথ্যা কথা। আমি ব্রাহ্মণ, আমার কথা বিশ্বাস করুন । দারোগ আস্তে আস্তে বলিলেন,—এ চিঠির উত্তর দেবার আগে ভোলাবাবুর সঙ্গে আমার একবার দেখা झग्न नो ? —কেন হবে না ? আপনি আজ রাত্রে আসবেন। রাধানাথ গিয়া বরদাকান্তকে দারোগার কথা জানাইল । সে রাত্রে দারোগ যখন বাড়ী ফিরিলেন তখন মাঝে মাঝে পকেটের উপর হাত পড়িতেছিল। পকেট বেশ ভরা। - দারোগ চিঠির উত্তরে লিখিলেন, তাহার এলাকায় অনেক কাল ডাকাতী হয় নাই এবং ভোলাবাবুর নামে যদি কোনো কথা উঠিয়া থাকে ত সৰ্ব্বৈব মিথ্যা । জমিদারী রক্ষা করিবার জন্ত লাঠিয়াল রাখিলেই কাহাকেও ডাকাতের সর্দার বলা যায় না। তাহার পর রাধানাথ-ঠাকুর কলিকাতায় গেল । সেখানে পুলিশের বড় জাপিসে তাহার পরিচিত লোক ছিল । তাহাকে জিজ্ঞাসা করিয়া জানিতে পারিল যে, বরদা ঘোষের বিরুদ্ধে কোনো পাকা খবর পুলিশে আসে নাই এবং হালে কোনো ডাকাতীর সংবাদ না জাগিলে কাহাকেও ধরা হইতেছে না। ভোলাবাবুর নামে কোনো রিপোর্ট আসে নাই। রাধানাথ আশ্বস্ত হইয়া গ্রামে ফিরিল। পথের মধ্যে এজনাথের সঙ্গে দেখা হইল। ব্ৰজনাথ কলিকাতায় বাড়ী দেখিবার জন্ত আসিয়াছিল ও সেই স্বযোগে কয়েকজন বড় দোকানারের সঙ্গে দেখা করিয়াছিল। তাহাকে দেখিয়া রাধানাথ বলিয়া উঠিল— এই ষে জামাইবাৰু! হিজলী থেকে কবে ফিরলে ট্র —এই দিন-কতক হ’ল ফিরেচি। এখানে একটা বাড়ী দেখতে এসেছিলাম। —কেন, দেশ ছেড়ে কি এখানে বাস করবে না কি ?