পাতা:প্রবাসী (ঊনত্রিংশ ভাগ, দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৫৬৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৪র্থ সংখ্যা ] রবীন্দ্রনাথের ছোট গল্প ৫২১ BBD BB DD BD BB BD DD BD C BBBB BBBD DDBBDDD BBBB DDB BBDD জগ্ৰধান। জীবনের কেন্দ্ৰন্থ গভীর ভাব ও প্রভাবের দৃষ্টান্ত দেখাইতে চেষ্টা করিব। মরুভূতিগুলিকে ছাড়িয়া, তাহার লঘুতর বিকাশগুলি, তাঙ্গর সীমান্ত প্রদেশের গৌণ বৈচিত্রাগুলিকে লইয়াই তাহার কারবার। চটুল সরসত, জীবনের বিস্ময়কর, আশ্চর্ষ্য সংঘটনসমূহ তাহার হাস্তরসপ্রধান ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র অসঙ্গতিগুলিই সাধারণতঃ ইউরোপীয় ছোট গল্পের বিষয় । আমাদের দেশে, বিশেষতঃ রবীন্দ্রনাথের ছোট গল্পগুলিতে ইহার বিপরীত ব্যাপার। র্তাহার দুই একটি গল্পে হাশুরসের প্রাচুর্ঘ্য ও লঘুতর স্পর্শ থাকিলেও, অধিকাংশের মধ্যেই জীবনের গভীর কথা, স্বল্প পরিবর্তন ও রহস্যময় স্বত্রগুলিবই আলোচনা হইয়াছে। আমাদের এই বাহতঃ তুচ্ছ ও অকিঞ্চিৎকর জীবনের তলদেশে যে একটি অশ্রুসজল, ভাবঘন গোপন প্রবাহ আছে, রবীন্দ্রনাথ আশ্চৰ্য্য স্বচ্ছ অঙ্গভূতি ও তীক্ষ্ণ অম্ভঙ্গুষ্টির সাহায্যে সেগুলিকে আবিষ্কার করিয়া পাঠকের বিস্মিত মুগ্ধ দৃষ্টির সম্মুখে মেলিয়া ধরিয়াছেন । যেপানে বাহাদৃষ্টিতে মরুভূমির বিশাল ধূসর বালুকাবিস্তার মাত্র দেখা যায়, তিনি সেখানেও সেই সৰ্ব্বদেশসাধারণ ভাবমন্দাকিনীধারা প্রবাহিত করিয়াছেন । আমাদের ঘে আশা-আকাঙ্ক্ষাগুলি বহিজীবনে বাধা পাইয়া, বাহবিকাশের দিকে প্রতিহত হুইয়া অস্তরের মধ্যে মুকুলিত হয় ও সেখানে গোপন মধুচক্র রচনা করে, রবীন্দ্রনাথ নিজ ছোট গল্পগুলির মধ্যে তাহাদিগকে সম্পূর্ণরূপে বিকশিত হইবার অবসর দিয়াছেন । বাস্তব জগতের রিক্ততার মধ্যে যে বিশাল ভাবসম্পদ কবিচক্ষুর প্রতীক্ষায় আত্মগোপন করিয়া আছে তিনি সেই ছদ্ম আবরণ ভেদ করিয়া তাহাদের স্বরূপ অভিব্যক্ত করিয়াছেন । র্তাহার গল্পগুলি আমাদের কর্ণে এই আশার বাণী ধ্বনিত করে, যে, আমাদের বিষয়দৈন্ত ও বৈচিত্র্যহীনতার জন্য আমাদের কুষ্ঠিত হইবার কোন কারণ নাই, আমাদের রস-সম্পদের কোন অভাব নাই, অভাব কেবল স্বপ্নদৃষ্টির ও কবিত্বপূর্ণ অনুভূতির। আমাদের সামাজিক জীবনের বন্ধ গলির মধ্যে রবীন্দ্রনাথ ষে উপায়ে রোমান্সের মুক্ত বায়ু বহাইয়াছেন, তাহা যেমনি সহজ তেমনি আশ্চৰ্য্যরূপ ফলপ্রদ । তাহার গল্পগুলি বিশ্লেষণ করিলে দেখা যায় যে, প্রধানতঃ নিম্নলিখিত কয়েকটি উপায়েই তিনি আমাদের প্রাত্যহিক সাধারণ জীবনের উপর রোমান্সের অসাধারণভা ও দীপ্তি व्षांनिष्ठ निबॉ८छ्न-(*) c७थभ ; (*) गांभांखिक खौबटन সম্পৰ্কবৈচিত্র্য ; (৩) প্রকৃতির সহিত মানবমনের নিগূঢ় चडब्रघ ८६ांनं ; (६) अडि-थांङ्करङब्र श्रृंनॅ । चायब्रां ७हे চারিটি উপায়ের বৈধতা ও কাৰ্য্যকারিতা সংক্ষেপে -مو) (১) প্রেম ; একজন ইংরাজ সমালোচক বলিয়াছেন, Love is the solar passion of the race—czine মানবজাতির প্রবলতম প্রবুত্তি । এই প্রেমই অতি সাধারণ জীবনে একটা বিপুল শক্তিবেগ, প্রবল ধ্বংসকারী উন্মত্ততা ও দুশেছদ্য জটিলতাজাল সঞ্চার করিয়া ইহাকে রোমান্সের পর্যায়ভুক্ত করিয়া তোলে, তুচ্ছতম জীবনের উপরে একটা বৃহৎ ব্যাপি ও বিস্তার জানিয়া দেয়। প্রেমের উন্মাদন জীবনকে তাহার সঙ্কীর্ণ গওঁী হইতে টানিয়া আনিয়া বাহিরের বিশ্বজগতের সহিত একটি নিগুঢ় সম্পর্ক-বন্ধনে আবদ্ধ করে ; হৃদয়ের সমস্ত ব্যাকুল আবেগকে, স্থপ্ত কল্পনাবৃত্তিগুলিকে মুক্তি দিয়া, ও মানবমনে অতর্কিত, অলক্ষিত পরিবর্তন সংসাধন করিয়া এক অনিৰ্ব্বচনীয় রমণীয়তার স্বষ্টি করে। কবির প্রেমের এই ছুৰ্ব্বার শক্রিকে অভিনন্দিত করিয়া তাহার স্তবগান করিয়াছেন, ঔপন্যাসিকেরাও ইহার গৃঢ় প্রভাব ও প্রক্রিয় মনস্তত্ববিশ্লেষণের দিক “ হইতে লক্ষ্য করিয়াছেন। রবীন্দ্রনাথ একাধারে কবি ও ঔপন্যাসিক উভয়ের দৃষ্টি লইয়া প্রেমের যে বিচিত্র ও রহস্যমন্ত্র বিকাশ লীলায়িত করিয়া তুলিয়াছেন, তাহা সাহিত্যজগতে নিতান্ত দুৰ্ল্লভ। আবার, বার্থ, প্রতিহত প্রেম জীবনকে যে একটি বৃহৎ দুঃখে অভিষিক্ত করে ও মর্শ্বম্পশী করুণ স্বরে প্লাবিত করিয়া দেয়, তাহাকেও তিনি আশ্চর্ধা গভীর সহানুভূতির छांद्र! यङियाडि भिग्रां८छ्न । যে-সমস্ত গল্পে প্রেমের এই বিচিত্র লীলা অভিব্যক্ত হইয়াছে তাহার মধ্যে প্রধান প্রধান কতকগুলি বিশেষ উল্লেখ করা যাইতে পারে—‘একরাত্রি’, ‘মহামায়া”, ‘সমাপ্তি, দৃষ্টিদান, মাল্যদান’, ‘মধ্যবৰ্ত্তিনী, শান্তি', “প্রায়শ্চিত্ত,’ ‘মানভঞ্জন’, ‘দুরাশা", "অধ্যাপক” ও “শেষের রাত্রি” । ইহাদের মধ্যে কতকগুলি প্রধানতঃ কবিত্বময়, গীতিকাব্যের উচ্ছ্বসিত স্বরে বাধা । ঔপন্যালিকের যে প্রধান কৰ্ত্তব্য মনস্তত্ববিশ্লেষণ, তাহ ষ্টহাদের মধ্যে সেরূপ পরিস্ফুট নহে। 'একরান্ত্রি" গল্পে চরিত্রাঙ্কনের চেষ্টা নিতান্ত সামান্ত, ইহা কেবল প্রলয়-দুৰ্য্যোগ-রান্ত্রির অন্ধকারে নীরব শ্বির প্রেমের ধ্রুবতারাটি ফুটাইয়া তুলিয়াছে। *মানভঞ্জন গল্পটিতেও প্রধান আকর্ষণ—গিরিবালার प्लेक्नुनिङ cनोकर्ष स उाशव्र चङ्घर्ष-८ोक्न क्लक्ष्ण ब्रङলহরীর উপর রঙ্গমঞ্চের ঘাছময় প্রভাব বর্ণনাতে—উহার গল্পাংশে বিশেষ কিছু উল্লেখযোগ্য নাই। "রাশা" গল্পটিতে সামান্ত একটু মনস্তত্বের স্পর্শ ও যথেষ্ট ঘটনা