পাতা:প্রবাসী (ঊনত্রিংশ ভাগ, দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৭৬৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৫ম সংখ্যা ] মহামায়া পেপ্টিং শেখাতে একজন আসবে। কত ৰে শিখৰ তার ত ঠিকানা নেই, টাকা ত বাবা জলের মত ঢালছেন।” ইন্দু বলিল, “বাৰু, তোরই ত সব পাওনা, তা এখনই খরচ হোক, কি পরেই খরচ হোক্ক । জয়ন্তীটার বিয়ে কি হ’ল কে জানে, আর ত কোন খবর পেলাম না । হয়ত মেজদা টাকা দিতে না চাওয়ায় রাগ করে ওরা আর চিঠিপত্র লিখছে না।” মায়া বলিল, “বাবা যে আবার পণ দেবার কথা শুনলেই মহ চটে ধান, দেশে ত সবাই পণ দেয় ।” ইন্দু বলিল, “বোঁও ত পণ দিয়েই তোর বিয়ের জোগাড় করছিল। বাপ রে মেম্বুদ। শুনলে যা চটুত।” মায়া চুপ করিয়া রহিল। মায়ের কথা মালোচনা করিতে এখনও তাহার গলার কাছে কান্ন ঠেলিয়া উঠিত। ७षन जषश्च *वश्* स्त्राग्नििव।। १नि नििश cशृशङ्केि लङ्घैश्वद्द् ब्रिक्ौ আসিয়াছে, কাজেই তখনকার মত সে আলোচনা থামিয়া গেল । সাজপোষাক সম্বন্ধে মায়া ক্রমেই আজকাল সচেতন হইয়া উঠিতেছিল। যেখানেই যাইত অন্ত সকলের পোষাকপরিচ্ছদ খুব খুটাইয়া দেখিত । কোন রংএর সঙ্গে কোন রং মানায়, কি রকম মুখে কি ধরণের চুল বাধা, কি ফ্যাশানের স্কুল মানায়, এসব বিষয়ে বাণীর সঙ্গে সাক্ষাৎ হইলেই আলোচনা করিতে বসিয়া যাইত। নিরঞ্জন খরচ করিতে সৰ্ব্বদাই মুক্তহস্ত, বিশেষ করিয়া কন্যার সম্বন্ধে, স্বতরাং যখন যাহা কিছু কিনিভে বা অর্ডার দিতে মায়ার কোনোই বাধা ছিল না। পোষাকের অালমারী ক্রমেই ভরিয়া উঠিতেছিল। জয়ন্তীর বিবাহের সম্বন্ধ ভাঙিয়া গেল, কারণ মনোরঞ্জন কিছুতেই পণের টাকা সংগ্ৰহ করিতে श्रांब्रिह्णन ना । छूहे छहे८ञ्च झेश जहेब्बा थांनिकर्छ। মনোমালিন্তও ঘটিয়া গেল। নিরঞ্জন ইচ্ছা করিলেই SS MYYYMMMASe SAMAeeeMeeAeMAAAA ५ विवांश् श्रेष्ठ गाब्रिउ, उिनि ७५ ७कफै। बाह्छ cबन করিয়া টাকা দিলেন না। এই হইল মনোরঞ্জন এবং তাহার স্ত্রীর ধারণা। স্বতরাং রেজুনে বেড়াইতে আসার প্রস্তাবটা এক রকম চাপাই পড়িয়া গেল । মায়ার পড়াশুনা চলিতে লাগিল । এই ভয়াবহ জিনিষটার মধ্যেও যে রস আছে, তাহা সে ক্রমে বুঝিতে শিখিল । তাহার গোড়ামীও অনেক দিক দিয়া কমিয়া আসিতেছে দেখিয় নিরঞ্জন খুসি হইলেন। ছোয়াছুরি লইয়। আজকাল সে মোটেই গোলমাল করে না। মিল এলিসকে নিজে চা করিয়া দেয়, এবং সে চা পান করিলে পর পেয়াল নিজের হাতে অনেক সময় তুলিয়৷ লইয়া যায়। প্রথম প্রথম পড়া শেষ হইবার পরই সে ঘরে ছুটিয়া গিয়া কাপড় ছাড়িয়া ফেলিত এবং ইন্দুর কাছে शंधी अल काझिम्ना जझेब्र! भाथांश्च गंi८म्न छ्छ्रेिझेऊ ॥ ७थन আর সে সব উৎপাত নাই । কিন্তু খাওয়া-দfওয়া বিষয়ে এখনও সে আগেরই মত রক্ষণশীল । পিসির রান্না ছাড়া কোনো কিছু মুখেও দেয় না। এত জায়গায় ঘোরে, কিন্তু এক টুকুর কেকুও কখনও ছোয় না। নিরঞ্জনের খ্ৰীষ্টান বা মুসলমান চাকর বাকর এখন পর্যাপ্তও মায়ার কোনো কাজ করিবার অনুমতি পায়ু নাই । ‘বয়’ একদিন ঘর ঝাট দিতে আসিয়াছিল, মায়া তাহাকে তাড়াতাড়ি বিদায় করিয়া ब्णि । ইন্দু একদিন বলিল, “আর কেন অত পিটপিটনি বাছা ? মেজদ৷ ত তোকে বিলেত পাঠাবে ঠিক করে রেখেছে, সেখানে গিয়ে এসব চালাবে কি করে ?” মায়া বলিল, “দেখো বিলেতে গিয়েও চালাব। বাবার মনে কষ্ট যেমন দিতে পারি না, মায়ের আত্মাকেও कृःथ निद्रङ •ांब्रद ना । उॉब्र अरछ निद्दछब्र बङ कहे एक হৰে ।” ক্রমশঃ,