পাতা:প্রবাসী (ঊনত্রিংশ ভাগ, দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৭৭১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গোলাম-ডেরেলি দ্বন্দ্বযুদ্ধ দ্বিতীয়বারেও ডেরেলি গোলাম কর্তৃক বহুবার ङ्गभडिउ श्नe arडाक बारबई उठैब १ाड़ान । তিনি তখন বিলক্ষণই হৃদয়ঙ্গম করিয়াছেন যে, যথাযথ রীতিতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা চলিলে তাহার পরাজয় অপরিহার্য্য। সেইজন্যই তিনি “মাটি কামড়াইয়া পড়িয় থাকা”ই বুদ্ধিমানের কাজ ভাবিলেন ; র্তাহাকে দাড় করাইবার শতচেষ্টা সত্ত্বেও তিনি কোন মতেই উঠিলেন না। এই প্রহসন অনূ্যন দেড় ঘণ্টা পর্য্যন্ত চলিল। গোলাম এই নিয়মের ব্যতিক্রমের বিরুদ্ধে বিস্তর প্রতিবাদ জানাইলেন। ডেরেলি কিন্তু “ঘথাপূৰ্ব্বং তথাপরম্।” পরিশেষে গোলাম কয়েকটি পদাঘাতের দ্বারা ডেরেলিকে আপ্যায়িত করিয়া এই প্রহসনের উপসংহার করেন এবং বিজয়ী বলিয়া বিঘোষিত হন । cētrafiệ ( Hackenschmidt)-ost forstofsi ডাঃ ফন ক্রাইয়েভস্কি এবং শরীরসাধনবিদ্যাবিশেষজ্ঞ ফরাসী অধ্যাপক দেবনে উপস্থিত থাকিয়া পুঙ্খানুপুঙ্খরুপে এই দ্বন্দ্বযুদ্ধ প্রত্যক্ষ করিয়াছিলেন। র্তাহারা গোলামের অসাধারণ শক্তির পরিচয়ে বিস্মিত হন এবং এই সিদ্ধান্তে উপনীত হন যে, পাচ মিনিট পৰ্য্যন্তও গোলামের সম্মুখে ভরসা করিয়া দাড়াইতে পারে এমন মল্প সারা পৃথিবী অন্বেষণ করিলেও মিলিবার সম্ভাবনা নাই । ১৯•• সালের জুন মাসে মস্কোর রঙ্গভূমিতে পেশাদারভাবে হেকেনশ্মিট-এর উপস্থিতি সেই প্রথম। তখন তিনি এমবিল পেত্রফ কস্তা ল্যে বুশে, পেরুস্ প্রভৃতিকে পরাজিত করিয়া লব্ধপ্রতিষ্ঠ হইয়াছেন। তখন তাহার বয়ঃক্রম বাইশ বংসয়, অটুট স্বাস্থ্য, অদম্য উৎসাহ । আর তখন গোলামের বয়ঃক্রম চল্লিশ বৎসর ! স্বতরাং ১৯০০ সালের ২৯শে মে হইতে •ই আগষ্ট পৰ্য্যন্ত, এই দীর্ঘকালের মধ্যে, ইচ্ছা থাকিলে বা সাহসে কুলাইলে হেকেনন্মিট নিশ্চয়ই গোলামের আহবানে বল-পরীক্ষা করিয়া নিজের কৃতিত্ব দেখাইতে পারিতেন। গোলামডেরেলি দ্বন্দ্বযুদ্ধ দর্শক তাহার শিক্ষক ডাঃ ক্রাইয়েভস্কির বুঝিতে বাকী ছিল না যে, তাহার ছাত্রাপেক্ষ গোলাম কত বড় মল্প ও কত বেশী শক্তিমান পুরুষ। তন্ত্ৰাচ এ-কথা স্বীকার করিতে হইবে, হেকেনশ্বিট, একজন প্রখমশ্রেণীর মন্ত্র, কিন্তু গোলাম ছিলেন অতুলনীয়। গোলাম Smooth type, তাহার দেহের পরিমাণেই ॐांझांद्र अगाथांब्र१ जांक्लङिब्र अछूयांन अझ्छ झहे८द । अर्था ¢->ई", औदा २०ई1 बक्र (शांछादिक) *१ई”, दांश् ( আকুঞ্চিত ) ১৯ষ্ণু , পুরোবাহু ১৩ঙু", উরু ৩১", নিম্ন পাদদেশ ১৮৫% ওজন ২৮৬৭ পাউণ্ড । মল্পসম্রাট কিক্কর প্যারিসে অতি অল্পবয়স্ক কালুর সহিতও সেখানকার প্রবীণ মল্লের প্রতিযোগিতায় সাহসী হন নাই। একবার কলিকাতায় টমক্যানন সে চেষ্টা করিয়া অতি সহজেই পরান্ত হন। তখনই ইউরোপ বা আমেরিকায় কালুর সমকক্ষ কেহই ছিল না। অতঃপর অভাবনীয়ভাবে কালুর দৈহিক উন্নতি ঘটে। বলে, বিজ্ঞানসম্মত উপায়ে, মল্লক্রীড়া-পরিচালনার কৌশলে তিনি তাহার বিশ্ববিশ্রত ভ্রাতা গোলামের সমকক্ষ হইয়া উঠিয়াছিলেন । গোলামের মৃত্যুর পরে কাল্পই সর্বশ্রেষ্ঠ বলিয়া পরিগণিত হইতে থাকেন। কিন্তু এক অপ্রত্যাশিত ঘটনায় ইহার বিপৰ্য্যয় ঘটিল। সেই স্মরণীয় ঘটনা— পঞ্জাবের ভীমবল অতিকায় কিক্করের আবির্ভাব। ভারোত্তলন জগৎ যেমন আর্থার স্তাকৃশন-এর দ্বারা নুতনভাবে প্রভাবিত হইয়াছিল, তেমনই এই মহাবীর মল্লশ্রেষ্ঠ কিক্করের আবির্ভাবে মল্পজগতে একটা ওলট-পালট ঘটয়া গেল। অবশ্ব অপরিণতাবস্থায়, অসম্পূর্ণ শিক্ষাবশতঃ কিঙ্কর বাল্যে গোলাম কর্তৃক পরাজিত হইয়াছিলেন বটে, কিন্তু যখন তাহার শিক্ষা সম্পূর্ণ হয়, তাহার শরীর ও শক্তির চরম পরিণতি ঘটে, তখন তাহার সম্মুখীন হওয়া অতিবড় মল্পদিগের পক্ষেও ভীতিজনক ছিল। কালুর যখন নিখুত অবস্থা তখনই কালুকে বার বার জয় করা কিঙ্করের পক্ষে মুহূর্তের ব্যাপারমাত্র হইয়াছিল। কিঙ্করকে কোনও বিশেষশ্রেণীভুক্ত করা চলে না ; किकदब्रब ८थमैौ क्किब्र निरखहे ; उांशब छूनना ब्रश्छि। স্বাভাবিক অবস্থায় তাহার বক্ষপরিধি প্রায় ৮০% আর