পাতা:প্রবাসী (ঊনত্রিংশ ভাগ, দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৭৮৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ԳՋՆ ২৪শে আগষ্ট বুধবার – আজ সকাল সাড়ে আটটায় সেমারাং বন্দরের সাম্নে জাহাজ ভিড়ল। এখানে শহরের ধারে জল গভীর নয়, ডাঙা পৰ্য্যন্ত জাহাজের পৌছুনো কঠিন, তাই অনেকটা দূরে নজর করলে। সেমারাং একটা বড়ো বাণিজ্য-কেন্দ্র, দেড় লাখের উপর এর অধিবাসী, কিন্তু সেমারাং-এ ঘবদ্বীপীয়েদের জন্ত প্রতিষ্ঠিত দুই একটী ইস্কুল ছাড়া কিছু বিশেষ স্রষ্টব্য জিনিস নেই। আমরা নামলুম না। কতকগুলি ডচ সজ্জনের সঙ্গে ব’সে বসে দুপুর বেলাটা নানা আলোচনায় কাটিয়ে দিলুম। কবিও মাঝে মাঝে তাতে যোগ দিলেন। ডাঙার ধারে থেকেই জাহাজের একটু বেশ স্থলুনি আরম্ভ হ’ল, সমুদ্র বেশ একটু চঞ্চল, যদিও হাওয়া এমন বিশেষ কিছু নেই। একটি ডচ, ইস্কুল ইন্সপেক্টার ছিলেন, বেটে-খাটো মান্থঘাট, কথাবাৰ্ত্তায় ষবদ্বীপীয়দের প্রতি এর আকৃত্রিম সহানুভূতি জার সৌহার্দ্যের পরিচয় পাওয়া গেল। Official Tourist Bureau-o শ্ৰীযুক্ত P.J. Van Baarda FIRबार्न। यहांलग्न क्ल'प्णप्झन ७हे चाँशप्छ, हेनि गौक বলিদ্বীপে যাচ্ছেন, এর কাছখেকে নানা খুটিনাটি খবর পেলুম। বলিৰীপে যে সমস্ত ঘটা হবে, তার চলচ্চিত্র নেবার ব্যবস্থা হয়েছে, কতকগুলি আমেরিকান কিলম ওয়ালাও বলিদ্বীপে জুটুছে। বলিদ্বীপের উপর খানদুই ভালো বই ছিল, এর কাছ থেকে নিয়ে সেগুলি একটু দেখা গেল। ডচ চিত্রকর W. O.J. Nieuwenkamp-এর আঁকা ছবিতে ভর বলিদ্বীপের অধিবাসী আর তাদের জীবনের উপর একখানি চমৎকার বড়ো বই wits-Zwerftochten op Bali-crisift, stw পরিচয় হ’ল। নিউএন্‌কাম্পের চোখ আছে, যা দেখবার তা তার চোখকে এড়াতে পারে নি ; আর র্তার হাতও আছে, তার চিত্রাঙ্কন-রীতি সম্পূর্ণরূপে র্তার নিজস্ব, এই রীতির একটি বেশ বৈশিষ্ট্য আছে। ইনি ভারতবর্ষেও এসেছিলেন, মাছরা কাশী জাগরা দেখে মুগ্ধ হয়ে গিয়েছিলেন, জাঁর উচ্ছ্বসিত ভাষায় ভারতের बांखचिं८ब्रञ्च बमनी क'८ब्र निदब्रहइन ॐांब्र चॅांक ছবিতে। প্রবাসী—ফাঙ্কন, ১৩৩৬ [ ২৯শ ভাগ, ২য় খওঁ ২৫শে আগষ্ট বৃহস্পতিবার।— কালকের দিনটি যেমন চুপ-চাপ শাস্তির সঙ্গে জাহাজে কেটেছে, আজ তার উলটো, প্রায় সমস্ত দিন, ধরে খুব ঘোরাঘুরি করা, অনেক কিছু দেখা, অনেক লোকের সঙ্গে মেশা। সকাল সাড়ে সাতটায় স্বরাবায়ায় Tanjong Perak তান্‌জোং-পেরাক্-এর জেটিতে আমাদের জাহাজ পৌছুলে। স্বরাবাস্থা পূৰ্ব্ব-ধবীপের সব চেয়ে বড়ো শহর, যবদ্বীপের ব্যবসায়ের প্রধানতম কেন্দ্র, ঘবদ্বীপের চিনি রপ্তানী হয় এই বন্দর থেকে ; এর অধিবাসীর সংখ্যা প্রায় দু লাখ। নানা দেশ থেকে ব্যবসা উপলক্ষে এখানে নানা জাতের লোক এসেছে । চীনা আছে, আরমানী আর বোগদাদী ধিন্থী আছে, আরব কিছু আছে, আর ভারতীয়দের মধ্যে আছে গুজরাটী খোজা, পাঞ্জাবী মুসলমান আর হিন্দু, আর সিন্ধী। তামিল চেটি বা অন্ত শ্রেণীর লোক নেই। গুজরাটী আর পাঞ্জাবীরা চিনির ব্যবসা করে—ষবদ্বীপ থেকে চিনি ভারতে চালান দেয় ; আর সিন্ধীদের রেশমের কাপড় আর curio বা মণিহারী জিনিস আর গালিচার দোকান আছে অনেকগুলি। রবীন্দ্রনাথকে অভ্যর্থনা করবার জন্য জেটতে যথারীতি ভীড় হ’য়েছিল। ভারতীয় অনেকে এসেছিলেন। ভারতীয়দের মধ্যে মদনলাল ঝাম্ব, নামে একটি যুবক ছিলেন, ইনি এক পাঞ্জাবী চিনির মহাজনের আড়তের ম্যানেজার। ডের-ইসমাইল-খা-তে এর বাড়ী, জাতিতে খন্ত্রী অরোড়, অতি স্বপুরুষ, বুদ্ধিশ্ৰীমণ্ডিত চেহারা, লেখা পড়া জান, কলেজে ইংরিজি-হিন্দী-সংস্কৃতপড়া যুবক, উচ্চ শিক্ষা আর নানা সদগুণে আর যোগ্যতায় এখানকার ভারতীয়দের সহজ নেতা ব’লে একে মনে হ’ল । জাহাজের সিড়ি লাগানো হ’তেই এরা উপরে ७rणन, घन वन -‘वष्कमांउब्रम्' भवनि थांब्र ‘छड़ेब्र ब्ररीौमाङ्गूनां dर्केंब्रि जैौ बङ्ग', ‘भश्t१धा श्रींौ षौ ौ वक्ष' ধ্বনির সঙ্গে সঙ্গে কৰিকে মাল্য-দান হ’ল, সকলকে ফুলের তোড়া বিতরণ হ’ল, আর পুষ্প বর্ষণ হ'ল। এদের সঙ্গে শিষ্ট্রালাপ করা হ’ল। আজকে বিকালেই জাহাজ বলিদ্বীপের জন্ত যাত্রা করবে। আমরা বলিদ্বীপ দেখে যখন ফিরে জাস্বো তখন এই স্বরাৰায়াতে তিন-চার দিন থাকৃবে।