পাতা:প্রবাসী (পঞ্চম ভাগ).djvu/২৪৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8Hෂ প্রবাসী । MSMMM S M S M S S S বৈকালে এতম উদ্দৌল্লার সমাধি দেখিতে গেলাম। ইহা যমুনার পর পারে। জাহাঙ্গীল বাদশাহের শ্বশুরের সমাধি । ইহা অতি চমৎকার। নানানরঙের পাথরে অপুৰ্ব্ব কারুখচিত শুন্দর সৌধ। কবর দুটি সোণ বরণের পাথরে ঢাকা। এক এক বার ইহাকে তাজ অপেক্ষা ঐসৌষ্ঠবাম্বিত বলিয়া মনে হইতেছিল। আমার রুচি স্পষ্ট কলিয়া লিখিতে সঙ্কোচ যোধ করিতেছি। কিন্তু বাস্তবিকই আমার তাজ অপেক্ষ এই সমাধি শ্রেষ্ঠ বোধ হইতেছিল। এখীন হইতে রামবাগ ও আফজলখার সমাধি চিনি কা রোজা দেখিতে গেলাম। ইহা চৈনস্থপতির কীৰ্ত্তি বলিয়া ইহার এই নাম হইয়াছে। পরদিন ভোরে উঠিয়া ফতেপুর সিকরি বাত্রা করিলাম। আমার সঙ্গী হইলেন ডাক্তার বাবুর জ্যেষ্ঠ পুত্র। বাবরের যুদ্ধদিজয় স্মরণীয় করিবার জন্ত আকববনিৰ্ম্মিত প্রিয় গ্রীষ্মাবাস। এখন ধ্বংসপথে অগ্রসর। এখানকার প্রধান ধর্শনীয়—সস্তরাশক মসজিদ, রাজমিস্ত্রীবা অতিরিক্ত পরিশ্রমে প্রাসাদসন্নিকটে এই মসজিদ নিৰ্ম্মাণ করে। সাধু সেলিম চিশতির সমাধি মন্দির। ইহারই নামে আকবরের পরের নামকরণ হয়। এই মন্দিরটি শ্বেতপ্রস্তরে নিৰ্ম্মিত। বেশ স্বন্দর। রাজবংশীয়দিগের সমাধিস্থান ; মসজিদ ; দপ্তরখানা ; আবুল ফজল ও ফৈজির আবাসগৃহ ; বীরবলের প্রাসাদ ; বালিকা বিদ্যালয় ; মাদরাসা : হকিমের মহল্লা ও হাসপাতাল ; টাকশাল ; তাম্বুল করঞ্চবাহিনীতুর্কী সুলতানার গৃহ, বাউলি বা প্রকাও কূপ, প্রভৃতি ও বাদশাহী মহল। বাদশাহী মহলের মধ্যে প্রাধান উল্লেখযোগ্য যোধাবাঈর মহল ; মেরিয়াম বেগমের মহল ; বাদশাহের ”খোয়াবগা:" ( স্বপ্ন মন্দির বা শয়ন মন্দির ) ; পাঁচ মহল যা পাচতলা থোলী দালান ; এক থাম্বা বা একস্তস্তাশ্রিত ধরযারগুহ ; পচিশীছক অর্থাৎ উঠানে প্রকাও পাশার ছক পাথরে আঁকা, বাদশাহ সজীব গুটি বসাইয়া খেলা করতেন ; আঁখিমিচোঁনী বা চোর চোর খেলার লুকাচুরীর ঘর। এখানকার বাড়ীগুলি প্রায়ই লাল মেটে বালি পাথরে রচিত ; দেখিতে খুব সুন্দর না হইলেও বিস্ময়কর মন্দেহ নাই। আকবর বা অন্যান্স বাদশাহের নিৰ্ম্মিত প্রাসাদাবলী সবই এইরূপ লাল মেটে পাথরের। জয়পুরের শ্বেত প্রস্তর নিৰ্ম্মিত প্রাসাদাবলীর [ ৫ম ভাগ । - - ------ অধিকাংশই শাজাহান যাদশাহের কীৰ্ত্তি। সকল গুহে বিচিত্র স্বর্ণবর্ণে পুষ্পপত্র ফলের মধ্যে পাস আরবী লেখা এখন বিবণ হইয়া গিগছে। লর্ড কার্জন নমুনা স্বরূপ একটু একটু সহস্ৰ সহস্র মুদ্র বয়ে নুতন করিয়া দিয়াছেন । প্রভুর এই একটা কুকীৰ্ত্তি । এইখানে পানাহার করিয়া হগ্রি ফিরিতে প্রায় সন্ধা৷ হইয় গেল । আমি আসিয়াই গুজরাতী ভদ্রলোককে সঙ্গে লইয়া চন্দ্রালোকে তাজ দেখিতে গেলাম। এখানকার দারুণশীতে অনাবৃত স্থানে এক দৃষ্টি বসিয়া বসিয়া ঘণ্টার পর ঘণ্টা কাটিয়া গেল, তৃপ্তি হয় না । বাড়ী ফিরিতে ইচ্ছা করেন । রাত্রি অনেক হইলে মনকে জোর করিয়া যিচ্ছিন্ন করিয়া বাড়ী ফিরিলাম। এতক্ষণে তাজের পূর্ণ মহিমা হৃদয়ঙ্গম করিলাম। ধন্ত তুমি তাঞ্জ ধন্ত । ধন্য বাদশাহ শাজাহান ! আর আজ ধন্ত আমি। লর্ড কার্জনের বিংশশতাব্দীর তাজ ভিক্টোরিয়াস্থতিসৌধ কেমন হইবে তাহাই দেখিবার জন্য উৎকণ্ঠিত হইয়া আছি । প্রাতের গাড়ীতে কানপুর যাত্রা করিলাম। সন্ধ্যার সময় কানপুর পৌছিলামণ প্রথমে আগরীর ডাক্তার বাগচীর ভ্রাতুষ্পুত্র অনস্ত বাবুর বাসায় আশ্রয়প্রার্থ হইয়া গেলাম। তিনি বাড়ী ছিলেন না। তখন ঠাক্তিসড়কে মলরোডে মহেন্দ্র বাবু ডাক্তারের ঘাড়া আতিথ্য স্বীকার করিলাম। ডাক্তার বাবু তখন যাহিরে গিয়াছিলেন। কৰ্ম্মচারিগণ ও ভূতাগণ যত্বপূৰ্ব্বক আমাকে গ্রহণ করিয়া জন্ম খাওয়াইলেন। খানিক পরে ডাক্তার বাবু আসিয়া যথেষ্ট সমাদরে আপ্যায়িত করিলেন। খুব ঘরে পরিপাট আহারে তৃপ্ত হইয়াছিলাম। প্রাতঃকালে উঠিয়া গাড়াভগড়া করিয়া Massacre Ghat, Mutiny Church, 5* 3 ol দেখিলাম। Atutiny Memorial well coso. দেশীয়দিগকে ম্যাজিষ্ট্রেট বা জজের নিকট হইতে অনুমতি লইতে হয়। অল্প সময়ের মধ্যে আমি তাছা পারি নাই। কানপুরের প্রসিদ্ধ কলও দেখিতে পাই নাই। সহয়টি বেশ পাকা ও প্রশস্ত এবং পরিচ্ছন্ন বলিয়া আমার বেশ ভাল লাগিয়াছিল । পরদিন প্রাতেল গাড়ীতে লঙ্কে যাত্রা করিলাম । বৈকালে লঞ্জে পৌছিলাম। টিপি টিপি বৃষ্টিতে পথ কর্দমময় --- - লর্ড মিণ্টে । Kuntatina Press, Calci: tta