পাতা:প্রবাসী (পঞ্চম ভাগ).djvu/২৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


- - - o - - - - 28 প্রবাসী । ৫ম ভাগ । | ১ম সংথ্যা । ] খোলফায় রাশেদিন । G G - - ---- - -- ব্যক্ত করিয়াছেন, কৃষকের ছেলেরাও আহাতে চিন্তাশীল, কাৰ্য্যদক্ষ ও স্বনিপুণ হইতে পারে, প্রাথমিক শিক্ষায় সেইরূপ চোটলাট বাহাদুর এই বিষয়টির গুরুত্ব বুঝি এতৎসম্বন্ধে প্রাদেশিক কথা যদিও অন্তরূপ শুনায় তাহাবা كريين هبوب বাঙ্গলাদেশে সরকাণী আদালতের ভাষা এক, চারি - مے মন্তব্য প্রকাশের জন্য আরও এক মাস সময়বৃদ্ধি করিয়া মূলতঃ একরূপ ; উচ্চারণ বৈষম্যে এরূপ বিসদৃশ শুনার । রকমের নহে। সরকাল বাহাদুর ত্যাক্টনেল আহ্ববাদ ব্যবস্থা রাখতে হইবে। বাঙ্গল ভাষা এখন বহুসংগ্রন্থে পূর্ণ। এই পরম ঐশ্বৰ্য্য, যাহা ভাঁহাঙ্গের বাড়ীর ছারে উপস্থিত হইয়াছে, তাহ হইতে তাহাদিগকে বঞ্চিত করিলে তাঁহাদের চিন্তাশীলতার মূলে কুঠারাঘাত কল্প হইবে, ইংরাজ আগমনের পূৰ্ব্বে তাহার। জ্ঞানের যে অবারিত পথে স্বাভাবিকভাযে আসিয়া উপস্থিত ছিল, কৃত্রিমভাবে ভাষা-ভেদ কল্পিয় তাহদ্বিগের সেই পথ অবরুদ্ধ করা কষ্টবে। তদ্ভিয়, বাঙ্গল ভাষায় যে সকল ক্লাবসম্বন্ধীয় পুস্তক পরাদি লিখিত ইষ্টয়াছে ও হইবে, তৎসমুদয় হইতে কৃষকগণকে বঞ্চিত করা হইবে। আরও একটা কথা এষ্ট যে, কুযি নানাবিধ অপপ্প বিজ্ঞালের সহিত সংপুক্ত। সেই সকল বিজ্ঞানের বহি সাহিত্যিক বাঙ্গলীয় লেখা। কৃষকের কেন তাহ পড়িতে পাইবে না ? এক জেলাবাসী অপর জেলাবাসীয় নিকট পত্রান্ধি লিপিতে অসুবিধা বোধ করিবেন । কুচবেঙ্গী লিথিবেন “সেল ঠায় তা কইল বাবা তুই সদাই আমার কাচোৎ আচিল, আর আমার যে গুলী ধা আছে তা কুল্পে তোর।” ময়মনসিংহবাস লিথিবেন--“আউয়াল পোষাক আন্ত তারে পিনা আতে একটা অী গুষ্টট দে।” নোয়াখালীবাসী লিখিবেন “ই রয়ম কুস্থ কুড়াও কেয় হেইতারে দিত না। তারহর হেইস্তর বৃন্থ হেভে ছড়ি আম্বনে আম্নে কষ্টতে লাগিল।” চট্টগ্রামবাসী—“ছোন্ড পেীয়া হক্কলাইন অত্তর করি দূরে এক মেয়ত গেল, হেণ্ডে মণ্ডামি করি তার ধন হক্‌লাইন উড়াইল ।” এই সমস্ত নমুনা আমরা গ্রীরারসনের নবপ্রকাশিত ভাষাতত্ত্ব সম্বন্ধীয় পুস্তক হইতে উদ্ধৃত করিয়া দেখাইলাম। যেরূপ মৃগী দেবীমূৰ্ত্তি ভাঙ্গিয় ফেলিলে কতকগুলি খড় ঘড়ি ও কাদা যাছিল হইয় পড়ে, বঙ্গভাষার শ্রীমূৰ্ত্তি ভাঙ্গিয়া গ্রীরারসন সেইরূপ সকল উপকরণ যাহির করিয়াছেন। হায় ! দেবীমূর্ধি যে স্থানে অভিষিক্ত ছিলেন—সেই স্থানে কি এই সকল খড় দড়ি স্থাপিত হইবে ? গ্নিয়ারসনের পুস্তকে এইরূপবিস্তয় নমুনা আছে। সেইগুলি পাঠ করিলে মনে হয়, সত্য সত্য বাঙ্গলা ভাষা র্যাঙ্গর বলেন ও লিখেন, তাহারা কি গৃহে এক স্বতন্ত্র ভাব ব্যবহার করেন । তাঙ্গনহে। ভাল করি গগ্য করলে দৃষ্ট ষ্টৰে এই সকল যেমন "সকল” শব্দটি কোন কোন স্থানে “হুঙ্কল" রূপে প্রচলিত। শুধু উচ্চারণ বৈষম্যে ভাষাকে স্বতন্ত্ৰ মনে কলা ভচিত নহে, পুথিবীর সর্বত্রই প্রদেশগত কথিত ভাষার ভেদ আছে--কিন্তু দেশের লিখিত ভাষা এক থাকা চাষ্ট । সেই একত্বই জাতীয় উন্নতির একমাত্র উপায়,--বিচ্ছিন্ন ও একতা দুষ্ট হইলে মনুষের স্থায় ভাষাও দুৰ্ব্বল হইয়৷ } পড়িবে। বাস্তবক এই ভাষা-ভেদ শুধু কৃষক সমাজের—অপকার । সাধন করিরীক্ষান্ত হইবেন । রিপোটে নিম্ন প্রাথমিক বিষ্ঠালয়ের সংখ্যা যেরূপ দৃষ্ট হইল তাহতে নিশ্চিত মনে হয়, শার পাচ সাত বৎসরে তাহদের সংথ্যা দেড় লক্ষের উপরে উঠবে। এই বহুসংখ্যক দ্বিস্থালয়ে বাঙ্গালামাতেরষ্ট শিশুরা পড়িয় থাকে। শুধুসহরগুলি ও ভদ্রবহুল পল্লীবাদ দিলেই ভদ্রসমাজ পরিবেন না। কারণ, কৃষকবহুল পল্লীগুলির মধ্যে যত ভদ্রলোক বাম করিয়া থাকেন, তাহারের সমষ্টি করিলে তুলনায় সম্বর ও “ভদ্র-পল্লীর" ভদ্রলোকের সংখ্যা অতি নগণ্য। বার আনার অধিক ভদ্রলোকের সস্তানগণ এই কুবকবহুল পল্লীর । নব ব্যবস্থানুসারে পরিচালিত প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলিতে যত প্রকার বর্ণাশুদ্ধি, খাইমু, ‘যামু, “করুম, করবাম প্রভৃতি বিচিত্রক্রিয়াপণ,“আমাগোর,” “আমরাব,” “মোহর,” প্রভৃতি বিচিত্র বিভক্তি, এবং মৃতপ্রকার ভাষার অবস্থানা—যাহা । ভদ্র-সাহিত্যের অঙ্গীভূত নহে, সকলই মুখস্থ করিয়া, হাতে -- লিথির একবারে বিগড়াইয়া যাইবে । যে সকল পশ্চিমবঙ্গের লোক কাৰ্য্যবশতঃ পূৰ্ব্ববঙ্গের পল্লীতে বাস করিবেন, তাহাৰ দেশে ফিরিয়া নিজের পরিবারের সঙ্গে মিশিতে । পরিবেন না । বাঙ্গলার লিখিত ভাষা এখন সমস্ত প্রাদেশিক স্বাথিয়াছে। সেই ধাঙ্গিত সুন্দর আদর্শের বলে বঙ্গদেশ" বাণীব পয়ম্পরের নিকট মলোভাব বাক্ত করিতে পারিতে এই প্রস্তাবিত সংস্কারেল অনিষ্টকর প্রভাবের হাত এড়াইতে । কথিত ভাষাকে শাসিত ও মার্জিত করিয়া । ছেন, সেই লিখিত ভাষাকে ভাঙ্গিয় চুরিয়া কিম্ভূতকিমাকারে পরিণত করিলে,-আমাদের পরম্পকের সঙ্গে মিলনের রাজপথ চিরতরে অবরুদ্ধ হইয়া যাইবে । একই ভাষায় করেন, সলকারী বিজ্ঞাপন, ঘোষণাপত্রাদি একষ্ট ভাষায় প্রচার করেন । এই এক ভাষাতেই প্রজ্ঞাদিগকে দরগান্ত করিতে হয় । এই ভাষা ছাড়িয়া চাষীরা এক এক কিম্ভূতকিমাকার ভাষা শিখিবে, সরকাবের সহিত প্রজার দোগ বিচ্ছিন্ন হইবে, ইহা কি সাধনায় জমাদারী সেরেস্তার ভাষা, মহাজনদের ভাষাও, মূলে সৰ্ব্বত্র এক। প্রজ বাহাতে নিজের স্বtথরক্ষা করিতে পারে, প্রতারিত বা উৎপীড়ন্ত ন হয়, তজ্জন্তু এক ভাষাষ্ট শিখা দরকার। অপচ কুবকের হিতৈষী গবর্ণমেণ্ট তাঙ্গাকে এ ভাষা শিখিতে দিবেন না। ত’ ছাড়া, চাবা বলিয়া ত কোন একটা স্বতন্ত্র জাতি নাই। ব্রাহ্মণ ও ব্রাহ্মণেতর সকল বর্ণের মধ্যেই কবিজীবী আছে । গিনি উকীল বা হাকিম, তাহার প্রতি চাষী, পল্লীগ্রামে বাস করেন । তাহদের মধ্যে ভাষাতেদ জন্মান কি উচিত ? আমাদের দেশে ধনশালিতা অনুসায়ে জাতিভেম্ব বা শ্রেণীভেদ নাই, সরকার কি ইহা জানেন না ? পল্লীগ্রামবাসী “ভদ্র” বা "তর” শ্রেণীর চার্ষার ছেলে, হুজ হইতে পারে। তাহাকে কুপমধুক কৰিলার ব্যবস্থা কেন করা হইতেছে ? হেমাটন নামক ইংরাজ গ্রন্থকার লিখিয়াছেন যে ইংরাজের যে প্রকালের মিথ্যা কথা বঙ্গে, তাহলে বিশেষত্ব এই যে, তাহাব সহিত সত্য এসনতাবে মিশান থাকে, যে উভয়কে বিশ্লিষ্ট করা শক্ত। আমাদের মনে হয় ইংরাজের দেশশাসননীতিও এইরূপ। আসল উদ্দেশ্ব যাই হৌক, ইংরাজ রাজপুরুষেরা তাহার সঙ্গে প্রজার হিতেচ্ছাট মিশষ্টয়া দেন : এমন সকল যুক্তি দেখান যে ইহা সম্পূর্ণরূপে সাহস করির বলা যায় না যে, সরকারের অমুক ব্যবস্থায় প্রজার (কানই সুবিধা হইবে না। কিন্তু অনিষ্ট যে খুব বেশী, ইষ্ট অপেক্ষ অনেক বেশ, হইবে, ইহা সাহস করির বলা যায়। • অবহু বিধুমাত্রও ইষ্ট যে হইবে, তাহার কোন স্থিরতা নাই। স্বাময় দেখিয়া প্রত হইলাম, হিন্দু মুসলমান, খ্ৰীষ্টান প্রভৃতি সকল সমাজ হইতে কমিটির প্রস্তাবের প্রতিবাদ গিয়াছে,--সকলে একবাক্যে এই ভাষাভেদের বিরুস্কে মন্তব্য লিখিল গভর্ণমেণ্টের নিকট পঠাইয়াছেন। আমাদেয় দিয়াছেন, আগামী ১৫ই এপ্রিল পর্যন্থ এ সম্বন্ধে মতামত গুহীত হইবে । ইংরেজ প্ৰভালে বঙ্গসাহিত্যের অসামান্ত পুষ্টি সাধিত গুষ্টয়াছে। আশা করা যায় গভর্ণমেণ্ট স্বচেষ্টার প্রবর্তিত বঙ্গভাবার এই উদ্ধবাহিনী গতিমুখ ফিরাইয়া ইহাব বহু আপাময় ভাবী উন্নতির পথ অবরুদ্ধ করিয়া ফেলিবেন না । । খোলফায় রাশেদিন। • - আবুবকর । ৬৩২ (খৃঃ) মহাপুরুষ মোহাম্মদ নশ্বরদেও পরিত্যাগ করিলে যদিন নগরীর গৃহে গৃহে বিষাদের ঘনচ্ছায় পরিব্যাপ্ত হইয় পড়ে। তাঙ্গার পরলোকগমন সংবাদ পরিশ্রত হষ্টয়া মদিনীবাসীর শোকসম্ভগুহৃদয়ে স্বসঙ্গীদের সম্মুণে সমাগত হয়, এবং কাতরকণ্ঠে বলিতে আরম্ভ করে, “সামরা পরগশ্বরকে ইহলোক হইতে অপস্মত হইতে দিতে পারি না, তিনি আমাদিগকে কৰ্ত্তব্যপথ প্রদর্শন করিয়াছেন, পরকালের সংবাদ আমাদ্বিগকে পঞ্জিাত করিয়াছেন, আমরা এরূপ হৃদকে পরিভাগ করিতে পাধিব না।" বীরত্বদ ওমর বলিতে লাগিলেন, "মৃত্যু ষ্ট্যহাকে স্পর্শ করিতে পারে নাই। তিনি মহাপুরুষ মুসার স্থায় ঈশ্বরের সঙ্গে কথোপকথন করিতে গমন করিয়াছেন, আমাদের নিকট অচিরেই প্রত্যাগমন করিবেন।” আবুবকর দ্রুতশপে মোহাম্মদের শয়নকক্ষে প্রবেণ করিয়া নিম্পলাবক্ষে ও শীতল গণ্ডে হস্ত অর্পণ করি লেন ; তাহার কিছু বুঝতে বাকী বহিল না। তপন তিনি ক্ষুব্ধ জনমণ্ডলীর নিকট প্রত্যাবৃত্ত হইয়া কম্পিতম্বরে যলিতে লাগিলেন, “তোমরা কি কোবানের উক্তি বিস্তুত হইয়াছ ?

  • (*) Ameer Ali's life of Mahancil, (a) Jarret's Trans' lation of the listory of the Caliss, (e) Muir's Caliphnie (s; Irving's successors of \lahomet. (4) Arnold's the Treaching , f islam. (e) Keshab Chandra Sen's works, vol 1. -- from the Calcutta Review. (v) ockley's History (*) Ameer Ali's History of the Sameeni3-1 oilman's he Saracens চারিক্তন ধৰ্ম্মনেতা, ১২ মোসলara atgrąz sfsȚs issy Ellio“. History vol I.

- of the samecus.