পাতা:প্রবাসী (পঞ্চম ভাগ).djvu/৩১২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্রবtলী &3. o -- - - ভা দেখাইতেছে যে তাহার --- - ---- ੋ তাহাকে সঙ্গী করিয়া - .২ aোর কার্য্যাদির তত্ত্বাবধান পাগলবৎ হইল । সমত দেবমন্দিলে নানা পৃষ্ঠা দিতে করিয়া থাকেন । বত *. ভক্ত দাবি কবি- r --- ইবার স্বত্ব |ালক পুত্র .nরণ, ধরাজার মন্দির, চিত্রগধ মন্দিরে অহরহ আছে। তাছার স্বঙ্গল " "** ঘি গল, - it.” anস্থান ও পূজা চলিতে লগিল । দেবতাদিগকে সন্তুষ্ট করিবার গুপ্ত কত শূকর, মোক । ছাগল বলি দিল ఆ শেধ নাই। তাহতেইঙ্গার আহার নিদ্ৰা বৰ Aারীর ক্রমে দুৰ্ব্বল হইতে গলে বিপদ একাকী প্রায়ই আসে না, এই সময় চীন-ব্ৰহ্ম-সাগষ্টে টানদিগের རྩ་ཤ দুইজন ইংরেজ কৰ্ম্মচারী ইত হুয়াছিলেন। সেই উপলক্ষে নতপুরণ ও প্রতিশোধৰ চ' পেকিন ইষ্টতে ছকুম আসিল a টেলিয়ের কৰ্ম্মচারী মিঃ ইয়াং কৰ্ম্মচ্যুত হইয়াছেন। কৰ্ম্মভূত হইয়া তিনি বেশ দিন জীবিত ছিলেন পাপের জাতন্ধে শুভার প্রেতাত্মার ভয়ে তাহার শীঘ্রই মৃত্যু হইল । বিশ্বাসঘাতকতার ফল ইর্তি হাতে ফলিল । - চীন বাঙ্গকৰ্ম্মচাগিণের বিশ্বাসঘাতকতা সম্বন্ধে ত্ৰিটিষ ক্যুল একদিন গর করলেন যে একদা ইউনানদুল গবর্ণর জেনেরাল তথাকলি ময়ন ব্রিগেড জেনেরালকে জাহার করিবার জন্ত নিমন্ত্রণ করিয়ছিল । aడా রক্ষার্থ তথায় উপস্থিত ইলে বর্ণর জেনারেল এক টেলিগ্রাম দেখাইলেন যে পিকিন इब्राउ छठूका श्रलियाप्छ ° প্তাহার শিরশ্ছেদ করিতে হইবে। নিসঙ্গিত ব্যক্তি নিমন্ত্রণ থাইতে গিয়াছেন, হুকুম শুনিয়া অবাৰু ! বলা বছিল তাকে কৰি দিয়া ডাকিয় তৎক্ষণ" শিরচ্ছেদ করা হইয়াছিল। cases fF * বিশ্বাসঘাতকতা করিতেন। ও নিমকহালাল ভূতা লাউজোঁকে আমি [ ৫ম ভাগ । | - . --~~ - জীও এখন সুভাশুন্য । t তেছে। এদিকে ৫টি মুভার মাতা অদ্যপি টেঙ্গিয়ে থাকিয় ক্রমাগত দরবার করিতেছেন । শেষোক্ত পতন ব৷ জলি মুভার এক ছেগে আছে, তাহাকে স্বভাৰ झिदांब्र sg প্রার্থনা করিতেছেন । টুর্নকলাচারিগণ ছোট স্বভার ছেলেকে সুভাত্ন দিলে করাই কি নাণ্ডিয়ালের মতার দস্তৃিত্ব লইতে বা জামিল ইষ্টতে স্বাকার করিয়াছেন । এদিকে বড় কুভাণী চীনসম্রাটপ্রদত্ত রাজকীয় ు. অপরকে দিবে না। এই গোলযোগের ७थनg **:मा छद्र नाहे । পরিশাল ফল কি হইবে বলিতে পারিলাম না । - প্রণামলাল সরকার। - হাতের তাত ও কলের তাত । এই বৎসর কাশীতে শিল্পকলা-আলোচনা-সমিতির (3 সৰ্ব্বপ্রথম অধিবেশন হইয়াছিল তাঙ্গতে హిগুচা o: দের নিকট হইতে যে সকল সবদ্ধ সংগৃহীত হক্টরছিল, সবাদী" পাঠকবর্গেল অবগতির জন্ত আমিরা ক্রমে ক্রমে ভকধ্যে কয়েকটির সরি য* তুলিয়া দিব। ভাগতহিতৈষী কটন সাহেব বলেন ;–ভারতের হ --- 巧 কলা পুনরুজ্জীবিত করতে হইলে অনেক ধাপবিঘ্ন উপস্থি | কিন্তু সেই সকল মাধ্যবিত্ব অনতিক্রম্য নং কল্প ও যন্ত্রাদি ব্যবহার | হইবে সত্য, বাঁহাতে শুমের লাঘব হয় তেমন স্বাত gছু ইবে; কিন্তু যেরূপ কারণ" বহুলোকের সমবেত দেখিয়াছি । এই ব্যক্তি 蠶蠶 : gবং অর্থের প্রয়োজন, তর্জণ কারখানার 雪 ! বেলারুপে কার্যা করিত ' శా - f . ਾਂ এপ্রিয় সময় এখনও আগে নাই, যদিও তদ্রুপ সময় ঘাতকতায় জন্ত স্বণ কল্পিত । . क्रेिन হুছতে অল্পে আসিবে । ( ভারতের } থনীরা তাহদের ধন ક્તિ পাইয়। ইহার তাম্পর্দা ೩); বোঝাই করিয়া জানেন। এই অভিযোগ ཝ་༧་༢ খুব সত্য, . লাগিল। সে টান o `ಿ] ક્રિષ્ટ লাগিল। অবস্থার কলকারখানার প্রতিষ্ঠার বেশীo. ਾਂ আফিং বর্ণায় .༧ གས་ན་་་་ সংবাদ দেওয়ায় স্থত হইয়া তাণ্ড ফালতি হইবে ল । ..". o পাইঃ পরে শত্রু লাগিয়া ধ - g্য হইয়াছে গুনিয়াছি। কলকারখানায় মহাজনদের অধীনে লইয়া নিচে । রেঙ্গুনে তাহলে " . ... w ৰাটিতে অভ্যস্ত হয় নাই, তাহারা অল্প মূলধন সকলেই এই সংবাদে 2 ১০ম সংখ্যা 1 - - নিজে কাজ করিতেই ম্যাদি ব্যবহার করিতে উৎসাহিত করাষ্ট এখন প্রধান সমস্যা। এখন যে চরকা, মাকু ও তাত তাঙ্গার ব্যবহার" করিতেছে, সেই সকলেরই উন্নতিবিধান আমরা করিতে চাই। এমন কি কোন ও উপায় উদ্ভাবন করা যায় না যাহাতে হাতের-উতে এখন রোজ যে পদ্মিনাথ কাপড় তৈয়াল হয় তাহ দ্বিগুণ হইতে পারে? ভীদার-সভা কিংবা অপরাপর বদান লোকেরা যদি পাবিতোধিকের লোভ দেখান, তবে অনেকেই এরূপ একটি যন্ত্র আবিষ্কার করতে অগ্রসর হইবে। এইঞ্জষ্ঠ বিলাতে ধাওয়ার আবশ্বকত মাই। ভারতেই যন্ত্রোপ্তাবনের এতদূর শক্তি আছে যাঙ্গর সাহায্যে অল্প বারে এরূপ একটি বস্তু আবিষ্কৃত হইতে পারে এবং এমন ধনী বদান্ত লোকও যথেষ্ট আছেন বাহার এই আবিষ্কৃত যন্ত্রটি গরীব উঠিাদের পক্ষে সহজ লভ্য করির দিতে পারেন। কলিকাতা তার্ট স্কুলেঞ্জ অধ্যক্ষ হাভেল সাহেব বলেন – মূলধন হইলেই কলের তাঠের কারখানা প্রতিষ্ঠিত হইতে পারে ইহা যদি সতী হইত্ব, তবে এতদিনে অনেক কলস্কারখানা ভারভে প্রতিষ্ঠিত হত। পঞ্চাশ বৎসর ভারতীয় কলের তাতের ( Power oom ) সহিত প্রতিযোগিতা করিয়াও যে হাতের তােতওঁল (Hand loom) তিষ্টিয়া আছে ইলাই যথেষ্ট প্রমাণ o, ভারতীয় শিল্পকলার অবস্থা যুরোপের তুলা নহে। ইং নিৰ্ব্বিবাদে বলা আটট পারে যে, আধুনিক কলের ষ্ঠাতের করথম গুল শারীরক, নৈতিক ও মানসিক অধোগতি আনয়ন করে । আ িবরাবরই বলিয়া আসিতেছি ভারতের চেষ্টা সেই দিকে প্রধানত হওয়া উচিত নহে। বাংলায় অতীব সংখ্যা এথ প্রায় ৪,•••••। এখন দেশী কাপড়ের যেরূপ কার্টুতি আরম্ভ হইয়াছে তাহাতে এই সংখ্যা আরও বাড়ির বাইবে । ধরণ যে সকল তাত অষ্টান্ত হবসায় অবলম্বন করিগছিল তারাও এখন কাপড় বুনতে আন্ধান্ত করিয়াছে। কলের তাওর কারখানায় অল্পসংখ্যক কারিগরেরই যেতন বাড়ে, কিন্তু সেই সঙ্গে সঙ্গে তাহদের শারীরিক, নৈতিক ও মানসিক অবনতি হয়। পক্ষান্তর ছাড়ের তাতের উন্নতিবিধান করিতোবাতে কত অধিক লোক হাতের তাত ও কলের ভাত । -- -- -------- ৬২১ - অভ্যস্ত। তাহাদিগকে খুব সহজ লাভবান হয়। প্রতি তাতের উন্নতিসাধনে গড়ে দশ টাকা খরচ পরিলে বাংলার ৪,০০,০০০ ভাতে মোট খরচ পড়িবে চল্লিশ লক্ষ টাকা, কিন্তু দ্বিগুণ কাজ পাওয়া যাইবে । এই চল্লিশ লক্ষ টাকা খরচ করিলে দুইটি কিংবা তিনটির বেশ ভাল কাপড়ের কল খাড় করা যাইতে পারে না এবং তাঙ্গতে যে কাপড় তৈয়ার হুইবে তাহার পরিমাণ চারিলক্ষ হাতের ঠাতে প্রস্তুত কাপড়ের পরিমাণের কুড়িভাগের একভাগ৪ হইবে কি না দন্দেহ। অপকৃষ্ট সেকেলে হাতের তাত ব্যবহার করিয়াই যদি তাতারা কলের তীতের সহিত যুঝিয়া তিষ্ঠিা আছে, তধে তাহারা আধুনিক উন্নত হাতের তাত ব্যবহার করিয়া ধরি দ্বিগুণ, ত্রিগুণ, চতুগুণ পৰ্য্যন্ত কাপড় তৈয়া করিতে পারে। তবে লাভেল কথাটা একবার তাবিয়া দেখিবার বিষয় । হাটাঃি, কাটুলি প্রভৃতি - সাহেবের শাড়া ও ধুতি বুনিবার দিশেৰ বিশেষ তাত প্রস্তুত । করিয়াছেন ; সম্প্রতি তাহার এই সকল জাতের দামও । অত্যস্ত কমাইয়া দিয়াছেন। আমার অনুরোধে ম্যাঞ্চেষ্টারের রাফেল ব্রাদাল ভারতের তাতাদের জন্ত লঘু ও সহজে চালাইবার মত একটি তাত প্রস্তুত করিতে অনেক দিন হইতে চেষ্টা করিতেছিলেন। তাহারাও এখন এ বিষয়ে কৃতকাৰ্য্য হুইয়াছেন ; আমি জানিতে পারিয়াছি, আগামী ১৯০৬ সনের প্রারম্ভেই এই তাতের বিক্রর আবগু হইবে । ভারতেও উল্লভ হাতের ঠাত তৈয়ার কারবার যে চেষ্ট্র চলিতেছে, তাহাতে শীঘ্র শল্প ফললাভ হইতেছে । যাহারা ভারতেয় বয়নশিল্পের উন্নতি কামনা করেন তাহারা ত্ৰিহিধ উপায়ে টাকা খাটটিতে পারেন—(১) উন্নত হাতের তাত প্রস্তুত করিতে, (২) মনোমত স্থানে ছোট ছোট হাতের তীতের কারখানা স্থাপন করিতে, (৩) স্থতা কাটিবার কল প্রতিষ্ঠা করিতে । হাতের স্ট্রাতের যেমন উন্নতি ইতোমধেষ্ট হইয়াtছ, চরকার তেমন উন্নতি শাস্ত্র হওয়ার আশা নাই। তাই স্থত কাঢ়িবার কল প্রতিষ্ঠায় বিশেষ লাভের আশা করা যায়। কারণ কাপড় যতই যেশ তৈয়ার হইতে থাকিবে স্থতার কাতিও তেমনষ্ট বাড়িবে, অথচ বৰ্ত্তমান চরকায় তত স্থতা উৎপন্ন হইতে পারে না। চরকার উন্নতিবিধানে মনোনিবেশ আবহুক । স্থত কাটিবার কারখানাগুলির কার্য্যপ্রণালী এইরূপ হইলে ভাল হয় :-কারখানা


=محســـــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــســــــــــــــــــــــــــــــــــــــ