পাতা:প্রবাসী (পঞ্চম ভাগ).djvu/৪২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


–- ... " - -- er - ------ ಆr - | ભ કાળા .. ২য় সংখ্যা । ] কলনীি ' _* ぎ -- BBBBS BBB BBB BBBB BBBB S BBBB BBBB BkB BSBB BBBAAAA SAS S S S S Sttt DDDD DDD Dtt GGuttD D BBB BBB BBS BB BB BBBB BBS SDDDDD GGH Dtt DD tt DD BBBB BBB BB B BBBS BB BBB BB BBBS - পলাইত তোরে ছাড়ি ; কোপ সেষ্ট নিড়ত আশ । বারিবিন্দ পালে তোপ নাহি জাল অধিকাল হাল্প · · • BBBBB BB BBBB BBBB BBBBB BBBB BBBS BB BBBB BB BB BS BB BDS Gttt tt DD -ன் দিনাস্তুের শ্রাপ্তি পাশরিয়া সহবে লালসায়-নিক্স গুপে দিয়া জলাঞ্চলি,- DDB BBBB BBBBBB BBBS BBBBB BBBBBBB BB BBBBSB BBB B BBB BBS কলেজের কি লেনাকে সৱে টানিয়া? লাখ লস আপরে তলত চলি - BBB BBBB DD BBBB BBBB BBBB BBBS BBSBBS B BD S gB DDS BB BBBBBS কোপায় কোপায় সেই মধুময় প্রিয়-পরিবার ?-- কি ভীষণ প্রবঞ্চন ! কি ভূৰ্ণছ এ তোর জীবন :--- শাস্তি দিতেন । পথি মযো জীর্ণ বস্তুখণ্ড অথবা খর্জুর ফল পতিত দেখিলে তিনি তাহা তুলিয়া পাশ্ববৰ্ত্তী গৃহে প্রদান করিতেন । ওমর শুদ্ধাচারী ছিলেন কোন প্রকার তরলতী বা আবিলত তাহীকে স্পর্শ করিতে পালিত না । মোহাম্মদ বলিতেন, "শয়তান ওমরকে দেখিয়া ভয় করে।" - [ ক্রমশ: | স্ত্রীরামপ্রাণ গুপ্ত । কলঙ্কিনী। ( , ) এত রূপ । হারমণি, এই কিবে শেষ পরিণাম ? সবারে পুড়ায়ে তাহে মিটিল কি তেীয় মনস্কাম । খুলিয় রূপের ফাদ-অসহায়, ভ্রান্ত পথিকেরে ফেলিয়। সে কাদে নারি, সুখ তার লইতেছ কেড়ে । ইৰে কি বাসন তব-বল অয়ি প্রতিম মায়ার, ਿਵ পূর্ণভাবে ? ইহাতে কি হৃদয়ে তোমার গভীর দুঃপের ছায়া—বুক-যোড় অনুতাপ-ব্যথা জাগিয়া উঠিছে নারে ; পরাণে কি কোন কাতরত আসিছে না ? - - তবে, কেন আঁখি-কোণে নারি, কমলে শিশির সম কাপিতেছে ঢল-ঢল বারি ? কেন তবে মুখে সেই সারল্যের মাধুরী বিমল খুজিয়া পাই না আজ ; কোথা সেই স্থির, অচঞ্চল, শান্ত, সৌম্য, জ্যোতিৰ্ম্ময়, অমলিন, স্নিগ্ধ কাস্তি তব’ ? হারে অবুঝ, নিজে সাধ করে হারাইলি সব ! করিসূনে প্রতারণা , সত্য কথা শুধই তোমায়,— কিসে সুখী তুই নারি ? শাস্তি-প্রতি তোর সে কোথায় । চারিদিকে রূপ-বহ্লি চেলেছিল চিতার সমান -- মাঝে রয়েছিস্ বসে তাপ-দগ্ধ বিশুদ্ধ পরাণ ! - পলে পলে পুড়িতেছে আপনার রূপের মাঝার। একে একে রূপরাশি পুড়ে পুড়ে হইতেছে ছাই ; তারি মাঝে আছে বসে মায়াবিনী। শান্তি তা'র নষ্ট । ( & ) পথের ও পঙ্কপুর্ণ ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র আবৰ্ত্ত মান্মারে খুজিস প্রণয় তুষ্ট - রে অভাগি, সে অমৃত-ধীরে আমন করিয়া কভু খুজিতে হয় না পথে পথে,তাহা উচ্ছ্বসিত হয়ে ঝরে পড়ে অনাবিল শেতে। তাঙ্গ সেই প্রেমনিধি, মধুময় দেবতা-চরণে জন্ম লভি" কল-স্বলে নেমে আসে মানব-জীবনে । নেমে আসে গাহি’ গান সুমধুর, অপুর্ণ সংগীত – কাণে পশে কল-ধ্বনি, সবে শোনে ইষ্টয়ে স্তম্ভিত । নেমে আসে প্রেম-উৎস সঙ্গে আনে স্নিগ্ধ সজীবতা, ভাসাইয়া ধুঙ্গে ফেলে জীবনের সব মলিনতা । সেই প্রেম ফুটে ওঠে ; প্রেম লঙ্গে পণ্য-দ্রব্য, সখি, কিনিতে হয় না তারে বিশ্ব-হাটে সযত্নে নিরগি । তুমি তারে ছায়ায়েছ, হারায়েছ তা’র অধিকার । হায়বে ললনা, তোর দুঃখে প্রাণ কঁদিছে আমার । এমন মধুর তুই–যেনরে ফুটন্ত যুঁই ফুল ; এমন নয়ন দুটি–যেন ছ’টি ভ্রমর ব্যাকুল ! এমন সুন্দরী তুই ! হু ভগিনি, এই তোর দশা!— আজি তুই বিশ্ব-স্ত্রণা, আজি তুই ভূজঙ্গী, বিবশ ! অহো কি করিলি তুই –স্থায়, হায়, কি হইবে তোর। এমনি কি যন্ত্রণায় চিরদিনা রবি বিডেরি ? (*) কোথা সেই গৃহ তব-পরিপূর্ণ-আত্মীয়-স্বজন ? কোথা সেই বালাকাল ? কোথা সেই পেলাঘর, বোন ? কোথা আজ তোর সেই নিদ্রাগত পুতুল মেহের । কোণ সেষ্ট “পুধি মেনি", ছিল যাহা বড় আদরের ? _ட_ட আজি সে সবারে ছাড়ি কি শুগের জীবন তোমার । মনে পড়ে সেই দিন ?—মেদিন তোমালে আশ্রঞ্জলে পিত৷ তল তন্তখনি সঁপিয়া অঙ্গের করতলে ধূপগঞ্জ-আমোদিত, মূগর, সে ধুসর সন্ধ্যায় শুভ-আণীক্ষা বাণী বৰ্মিলেন তোমার মাথায় ১ কল্যাণী জননী যবে ধরিয়া তোমারে বঙ্গোমাঝে | "অশ্রুরদ্ধ কণ্ঠস্বরে কছিলেন--"বাছা. লগ কালে যয় হয়ে এসংসারে ভূলিসনে যাতায় আদেশ, অজ্ঞাত ভবিষ্য-গর্ভে আজি বৎসে, করিলি প্রবেশ । - সংসারের সঞ্চকৰ্ম্মে, পদে পদে, ছায়ার যতন - পতি-ইচ্ছাদৗল হ'য়ে তাবি পারে সপিও জীবন। - স্বামী বিন স্বৰ্গ নাছি পতিমা রমণীর ধান । এবিশ্বে স্বামীরে ছাড়া সতীর নাহিরে অন্ত জ্ঞান। স্বামীর থেব লাগি, হৃদয় পাতিয়া বিও বালা, পতিরে করিলে সুখী নারী-জন্মে ঘোচে সব কালা। সংসালে পতিই শুদ্ধ বহে যেন তব ভাবনায় :সরণে পাইবি স্থান তাহ হ’লে শ্ৰীহরির পায় । । শখ হাতে দিয়ে সণ এ সিন্দুর সিথিতে রাখিস । সঙ্গলে বাচিয়া থাক , আমি মাতা করি এ আশধ " শুনি এ বিদায়-বাণী কমিলিরে সরল উচ্ছ্বাসে। মা’র বাকো করি ভর পেলি বল মবীন বিশ্বাসে । বিচিত্র সংসার কার্যে কিছু দিন রহিলি মগন, স্বামীর সোঙ্গাগে, হণে কিছুকাল যাপিলি জীবন। সহসা কুহকে ভুলি নিমেযেতে ঘটালি প্রমাদ – পলকে ভ্রান্ত্রিসহ ভেসে গেল মাতৃ-আশীৰ্ব্বাদ । স্বামীগৃহ ছেড়ে এলি। গৃহিণীয় রত্ন-সিংহাসন - পদাঘাতে চূৰ্ণ করি চলে এলি প্রমাদে আপন । ভুলে গেলি ভবিষ্যৎ--রূপ-গঞ্চে, অন্ধ মত্ততায়. o সহস্ত্রের মাঝে এলি ক্ষিপ্ত হয়ে দলি সয্যাদায় । -صیا۔ আজি তুই পবিত্যক্ত। আজি তোর নাই—শাস্তি লাষ্ট ! এৰিখ-ব্রহ্মাণ্ডে তোর নাহি আর ধাড়াবার ঠাই । . সহস্তে বি গ্ৰুপ্ত ছ'য়ে পলে পলে ভিড় বল"। শোক-দুঃখ-অতুতাপ সৃদয়-মাকালে গুপ্ত করি -- সঙ্গের বিনাশিন্তে ছলনায় আছ প্ৰাণ ধরি। - - মিগ ভাগ ভালবাসা । তৃপ্তিইন আত্ম-প্রতাপশা ! এই শুধু লক্ষণ তব ! হায়—হায়, কি তোর যাতনা - অসহায়, আনামতী, বুস্তচু্যত রে মল্লিকা ফুল, এ দশা হেবিয়া ভোর দুঃপে আঙ্গি etয়ছি আকুল - চেয়ে বেথ একবায়—ঐ সব সোণাল সংসার - গসিছে নিৰ্ম্মল প্রেমে, পুষ্প-অধ্য বিশ্ব-দেবতার : - পাত্রে পাত্রে সুসজ্জিত, সুগন্ধি কুসুমধাশি সম । - কি মাধুর্য বিকশিত প্রতি গুহে শুদ্ধ, নিরুপম । এই গলি তোমাদেরি শুচিম্পর্শে উঠেছে দুটা - কল্যাণ-প্রদীপানি তোমরাই রেপেছ হুলিয়। । তোমাদেরি প্রেমে তাসে বিশ্ব-বাসী আনন্দ-লহরে । তোমাদেরি প্রেমে নারি, শুস্থলী বিহাঙ্গে ঘরে ঘরে। সেই সে শাস্তিব মৰ্ম্ম—বিশ্বের মঙ্গল-কেন্দ্র-স্থল— - রমণী লদি না রঙ্গে,~~যদি তার হয় রে চঞ্চল, তাহা হ’লে মুহুর্কেকে এ ব্ৰহ্মাও চূর্ণ হয়ে যায়জড়-জীব লুপ্ত হয় প্রলয়ের অন্ধ তমসায় { কলস্কিনি, রে ভগিনি, ওরে মোর হারাণে রত্ন, কি সম্পদ পায়ে ঠেলি রসাতলে হ’লি নিমগন । কি মোহে তুলিয়া ছায়, বিশ্বছাড়ি’ হইলি প্রবাসী . —ফিরিবার নাহি পথ তোর, হায়লে পিশাচি, সৰ্ব্বনাশি । তোরে আর কি কহিব ? আমি কবি, গাহি দুঃখগান । আর কথা মাহি সরে-বেদনায় বঁাদিতেছে প্ৰাণ । আসরে রাক্ষসি, আর একসাথে বসি’ নিরালায় আর সোর কাদি শুধু বসে,"–আপিঙ্গলে ভার্সি দু’জনায় । অতুতাপে, বিপাতার বরে তোর নিশা পোহাষ্টয়া যাক । করুণা করুন তিনি তোরে। ডাক্রে অভাগি, তারে ভাবু , শ্রনেবকুমার রায় চৌধুরী। - -