পাতা:প্রবাসী (সপ্তদশ ভাগ, প্রথম খণ্ড).pdf/১৩৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্ৰবাসী-আষাঢ়, ১৩২৪ [ ১৭শ ভাগ, ১ম খণ্ড বন করিয়া যুদ্ধে যােগ দিতে ইতস্ততঃ করিতেছিলেন— বৰ্ষকে সঙ্ক না করিলে খুজবে বিলম্ব ঘটব (১) শিয়ার জাৱে জব হইলে কি গণতন্থের মঙ্গল হুইবে ? জন্য যত প্রকারে সম্ভব ভারতবধের খাট-খবর সভা ইহার উত্তর তিনি দিতে পারেন নাই । কিন্তু জারেজ’ পতন জগতের লোকদিগকে দেওয়া উচিত ও শিয়ায় সাধারণতন্থের প্রতিষ্ঠা হওয়ায় এই আপত্তি আর কিন্তু সভ্যজগতে অষ্টান্য দেশের কণা দূরে থাক, লি না । (২) কিন্তু আম্বলণ্ডেয় প্ৰতি ইংণ্ডের বাবধাব ইংলণ্ডই আমাদের খবর অতি অন্ন লোকে জানে। আমাদের আর একটি বাধ তৎসম্বন্ধে তিনি মি: লয়েজ, জৰ্জকে কথা লিবার জন্য কয়েকজন নামজাদা ভারতবাসী চিঠি লিখিবেন এইক্লপ শুনা দ্বিধাছিল বিলাত যাইবেন বলিয়া কাগজে সম্প্ৰতি হাঁদের নাম স্থাপ বিবিয়াছেন। মাকিনদের মত ৪ তাহাদেৱ শোনায়কে বই হয় তঁহাদের মধ্যে কাহার শাহার গতি ছিল, জানি না । কিন্তু কেহই গেলেন ,না ; কাৰণ, সার উইলিয়ম 2 \\ w. York correspºnden এন সেখানে কাজ করা No citatioা iu:, the people of সুবিধা নাই ! অ্যাণাদে বোধ হয় একজন মানুষের try f l that nowis the psycho obier in } পরামৰ্শ এত বেণী করা শিরোপাৰ্য্য কর: ভাল নয় tl ter t ºf possible তিনি তা লোক হইলে ও ভ্ৰম প্ৰমাদের অতীত নহেন correspºndent alled, আমাদের বিবেচনা , যুদ্ধের পর ভারতবর্ষে কি পরিবর্তন htfulness Gr yffinally droge him to declaring * fºr দবা, তাহা বিলাতে নাইবা সময় অ্যাপিয়াছে ও চলিয়া of deimºcrary he very যাইতেছে was sked yºu link নিজের উপর-নিৰ্ভর ctory of Turdom will rests of descracy he was redule এৰূপ হে নে মনে না করেন যে ইংরেজরা নিজে btacle to n wºr a দেশের লোকদের অনুরোধ উপরোধে আমা the Preside সামাদিগকে স্বশাসন-ক্ষমতা না the char of oppresing' as a দিলা আর চলিতেছে না এই প অবস্থা না দাঁড়াইলে, ভারতবৰ্ষকে আহ্মশাসন-ক্ষমতা দিবার জন্য কেহ অর্থাৎ ইংলণ্ড ড়িলে, ইংলও আমা ইংলণ্ডকে অনুরোধ করিতেছে না অয়লাণ্ড দিগধে হোমবুল বা স্বরাহ দিবে না, ইহা নিশ্চিত অপেক্ষা অামাদের রাষ্ট্ৰীয় অধিকার ত খুব কম । ইহার একটা সক্ষপ অবস্থা দাঁড় করাইবা প্ৰথম উপায়, আমাদেয় কারণ, ভারতবর্থের বর্তমান রাজনৈতিক অবস্থা সম্বন্ধে তা নিজেদের এই বিশ্বান দৃঢ় ও স্বাভাবিক হওয়া, যে, মুক্ত মানুষই মানুষ মানুষদের বোরে ও কুকুরের শরীরে যা এবং খাওয়া দাওয়া ও চিকিৎসার ব্যবস্থা যেমন সুন্দর , সামাদের মনের ভাব সম্বন্ধে ঠিক্‌ জ্ঞান যদি ইংরে আমাদের মত অনেক মানুষের সাক্ষাননাদির বন্দোবস্তু মিত্ৰদেশ সকলে এবং ব্রিটিশ উপনিবেশ-সকলের দক্ষিত তথাপি আমরা ব বে ঘোড়া বা কুকু তাহা হইলে আমরা আইরিশদের সমান সহা ইতে ই ন মানুষ পাকিতেই চাই পাইতাম, এমন কথা বলিতে পারি ন কার, অামার বাবস্থ, বড়মানুষদের গোড়ার মত উৎকৃষ্ট, কবিয়া দিলেও ইউরোপীয় নই, বৃষ্টিয়ান নই, এবং আমাদের গায়ের আমরা তাহাতে কৃষ্ট থাকিতে পারি না। আমরা নিজের চামড়াটা কটা নয় । কিন্তু কেহ না কেহ হয়ত ভারতবাসী বন্দোবস্তু নিজে করিতে চাই ; কারণ নিজের কাজ নিজে দিগকে প্লাজনৈতিক অধিকার দ্বিার জন্য অনুরোধ কতি করিতে পারাই মনুষ্যত্ব । ইংরেজরা ও তাহাদেৱ মিত্ৰে, বিশেষতঃ দি লোকের এই ধাৰণাটা জনিত যে ভারত যে লিতেছে, সে, গণতন্ত্ৰই একমাত্ৰ শাসন প্ৰণালী, এই he issue ) cratic he u ৷ b ৩য় সংখ্যা বিবিধ প্ৰসঙ্গ—সহানুভূতি মাদের দেশের সকল লোকের জমিলে হােম না, অন্তরের মধ্যে তাহাদিগকে ঠিক মনুষ্য বলিরা উপলব্ধিই বা স্বরাজ্য পাইতে দেৱী হইবে না। দ্বিতীয় উপায় করিতে পারে না। পাশ্চাত্য সেশসকলে, বিশেধতা হাতে আত্মমৰ্যাদা হানি হয়, এহ্মপ কোন কাজ করিতে আমেরিকায়, যখন দাসত্ব-প্ৰথা প্ৰবল ছিল, তখন নিগ্ৰেীৱা এয়া কোন অবস্থায় পড়িতে বা থাকিতে প্রাণী না . যে মানুষ ইহা অনেক পাস্ত্ৰী পৰ্য্যন্ত মানিত না। আমাদের eা। তৃতীয় উপায়, কৰ্তব্যপরায়ণতা, গাছপাত, ও দেশের “অদৃশ্য” জাতিরাও কাৰ্য্যতঃ মানুষ বলিয়া স্বীকৃত পাৱ সহিত মানবসমাজের মঙ্গলের ও নিজের নিজের হয় নাই ; এখন িকয়ং পরিমাণে হইতেছে চতুৰ্থ উপায়, রাজ্যের একান্ত আধাকা মানুষ এমন অবুঝ যে অনেক সময় চড় না থাইলে সকল শ্ৰেণীর লোকের মধ্যে প্রচার কা । অন্তের মধ্যত্ব স্বীকার করিতে চায় না । জাপান উপরে ইলেণ্ডের উপর চাপ পড়ার উল্লেখ করিয়াছি শিয়াকে প্ৰচণ্ড আঘাত করিয়া তবে মানুষের শ্রেণীতে কাল-প্রকারের দৈহিক বা অগ্নিক বল প্রয়োগ দ্বার অর্থাৎ সভ্য-জগতে স্থান পাইয়াছে । তথাপি অনেক এই চাপ দেওয়া আমাদের অভিপ্ৰেত তাংতে সভা” দেশের লোক এখনও জাপানীদিগকে শ্বেতকায় সিদ্ধিলাভ হইবে না। মানবাবে চাগের কথা বলিতেছিমত অবাধে , “ আপনাদের দেশে বাণিজ্যাদি করিতে দেয় তাহা মানসিক ও নৈতিক বলের উপর নিৰ্ভর করে তgন্য, জাপানীরা আপনাদের দেশের সভ্যতার বৃত্তান্ত নিনিজে কাহারও অনিষ্ট করিবেন না, কাহাকেও বিদেশী িদগকে জানাইয়া, জাপানে কি কি দ্রষ্টব্য, জ্ঞাতব্য মাত করিবেন না, কিন্তু নিজের বা দেশের পক্ষে বাহঃ সন্তোক্তব্য, শিক্ষণীয় আছে, তাহা প্রচার করিয়া, বিদেশীয় নিষ্টক বা অপমানজনক ইয়া িনশ্চিয় তাহ ৪ মানিয়া জাপান গেলে তাদের করিয়া, নানা আগ্রামের বম্বোবস্ত কিবেন না, সৰ্ব্বপ্ৰকার ব্যক্তিগত ক্ষতি ও কৃশ এবং বিদায় উন্নতি লাভ করি অপর শক্তিশালী জাতি বা বাধাসত্বেও তােহােৱ প্ৰতিকারের চেষ্টা করিবেন, সকলকে বুঝাইতে চেষ্টা করিতেছে, যে, তাহারা তাহাঙ্গে এবং সেই চেষ্টা করিতে পিয়া প্ৰয়োজন হইলে নিক্ষে সমকক্ষ সনশ্ৰেণী, এবং মানুষের মত ব্যবহার পাইবার সৰ্ব্বগ্নকার দুঃখ সং করিবেন এক্ষপ নাথধই এই প্ৰকাৰ যোগ্য ; মানসিক ও নৈতিক বল প্রয়োগ করিতে পারেন নিগ্ৰহ ও অনুগ্ৰহে সমৰ্থ শক্তিশালী জাপানকে যখন সকল দেশের সকল মাছদের সকল অবস্থাতেই এত চেষ্টা করিতে হইতেছে, তখন রাষ্ট্ৰীশক্তিহীন ভারত দুৰ্গামোচনে প্ৰকৃষ্ট উপায় কি, গামা বিশেষ আলোচনা বলে চেষ্টা কিরুপ একাগ্ৰ ও প্ৰবল হওয়া উচিত, তা রিয়া বলিতে পারি না অনুদান করা কঠিন নহে। রাষ্টীর শক্তি লাভের চেষ্টা ভাৰতবৰ্ষর বানান অবস্থায় শ্ৰেী উপায় বলিয়া যাহা বুধিয়াছি, তাহাই বলিলাম । আমাদিগকে অবশ্যই করিতে হইবে ; আমরা স্বদেশে বীৰ থাকিব, অথচ বিদেশে আমাদিগকে জাতির স্বাধীন সহানুভূতি লোকদের সমান সুবিধা ও অধিকার দেওয়া হইবে, ইহা এমন মানুষও পৃথিবীতে অমিয়াছেন, বাহার ইতর- রাশা মাত্ৰ । কিন্তু রাষ্ট্ৰীয় শক্তি লাভের চেষ্টাই যথেষ্ট নহে । প্ৰাণীদেরও দুঃখে দুঃখ বোধ করিয়া তাহা দূর করিবার আমাদের পূর্বপুৰুসেৱা জগতের জন্য কি চেষ্টা করিয়াছেন ; কিন্তু সাধারণত কান মানুষ, এতে তাহা প্ৰচা করাও যথেষ্ট নয় ;—াহাদের কীৰ্ত্তিসীয় বালু না হইলেও, অদ্য মানুধের কষ্টে বেদনা বোধ কবিয়া অনুসন্ধানও প্ৰধানতঃ পাশ্চাত্য পণ্ডিতেরা করিয়াছেন । তাহ দূর করিতে চেষ্টা করিলে আমরা তাহার প্রশংসা জগৎকে বুঝাইতে হুইবে যে জীবিত ভারতবাসী; মানুষের কবি। মাছদের এই সমবেদনা অনেক সময় কেবল স্বশ্রেণীর দিগকে বাদ দিলে মানবসমাজের ক্ষতি আছে । জাতির স্বদেশের মধ্যে আবদ্ধ থাকে সভ্যতা বলতে যাহা কিছু কয়, তাহাতে আমল্লা পৃথিবীকে মধিকাংশ লোক “অস থাকদের দুঃখ বুঝিতে পারে সপ্তমান সময়ে সমৃদ্ধ কবিতছি কি না দেখিতে দেখাইচে দেশের স } ।