পাতা:প্রবাসী (সপ্তদশ ভাগ, প্রথম খণ্ড).pdf/১৪৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্ৰবাসী—আষাঢ়, ১৩২৪ [ ১৭শ ভাগ, ১১ খণ্ড তুলনা করিবারও সুবিধা হইবে। ১৯১৫-১৬ সালে ভারতের ( ) যে গ্ৰামে ৩০০ বা তাহার বেশী লোক আছে সমুদয় অধিবাসীর শতকরা ৩১ জন শিক্ষা পাইতেছিল তথায় নিজ নিজ কাজে শিক্ষাপ্ৰাপ্ত অন্ততঃ একজন কামার ১৯১৪ সালে আমেরিকার সম্মিলিত রাষ্ট্ৰে (U.S. A) ও একদল ছুতার থাকা চাই । সমগ্ৰ অধিবাসীর শতকরা ২১০ জন শিক্ষা পাইতেছিল । প্ৰত্যেক চাষী গৃহস্থের ব্যয় সংকুলনে জয় অতএব আমাদেৱ দেশে শিক্ষার বিস্তাৱ সাতগুণ বাড়িলে চাষ ছাড়া ভাৱ কিছু আনুষঙ্গিক উপাৰ্জনের উপায় থাকা আদৱা শিক্ষা আমেরিকার সমান হইব আমরা এবি অবশ্যক। মোটামুটি বলিতে গেলে, এক এক গ্ৰাময়, গবৰ্ণমেণ্ট খুব বেশী চেষ্টা না করিলে সে সুদিন আদিতে প্ৰতি ২৫০ জন পি. চাহ ছাড়া, কোন একটি করিয়া শিল্প ৰিস্তয় বিলম্ব হইবে ১৯১৪-১৫ সালে ভারতের আদি বা কারবার প্রচলিত থাকা চাই । যেমন কোথাও উত্ত যাণীদের শতকরা ৫৭০৬ জন শিক্ষা পাইতেছিল, ১৯১৫-১৬ চাগান, কোথাও বাসন পড়া, কোথাও চামড়া কধ করা, সালে ৩১ গাইতেছিল। অৰ্থাৎ একবৎসরে শতকরা ইতাদি বাডিয়াছে। আমেরিকা ও ভারতবরে শতকরা তফাৎ ১ অঙ্গদার প্রতিকার-স্বৰূপ, প্ৰত্যেক রাতকে বৎসরে ৭০৪ বাড়িলে ১৮৭৩ বাড়িতে অন্ততঃ দুবৎসরের থাইখরচের শস্য সঞ্চিত বাণিতে প্ৰ t৭ বৎসর ৬ মাস লাগিবে সুতরাং শিক্ষাবিষয়ে তাতে করা কৰ্ত্তব্য ধন উৎপাদন বাতীত অনা উদ্দেশে গুণ পােৱ গান্ধীর চাল ছাড়িয়া িদয়া বেলে ডাকাড়ীর চা’ করিতে খুব নিষেধ করা উচিত অ্যাবস্তক হইয়াছে হরের সমুদয় অধিবাসীর অন্তত: শতকরা ১৫ জন গ্ৰামের উন্নতি । শিক্ষাধীন থাকা উচিত তাহার মধ্যে মোটামুটি প্ৰতি মহীশূরের প্রধান মন্ত্ৰী সাল নোগ গুণ্ড বিশ্বেরায় দুইশতে অণ্ডতা এক জন উচ্চ বিদ্যালয়ে, প্রতি পাঁচশতে একটি বস্তৃতায় বলিয়াছেন, গ্ৰাম মানবসমাজের ক্ষুদ্রতম অন্ততঃ একশ্বন কলেজে, এবং প্ৰতি হাজায়ে অন্ততঃ লোকসমষ্টি । উন্নতির চেষ্টা গ্ৰামেই আৱদ্ধ হওয়া উচিত একজন উচ্চতর বৃত্তিশিক্ষালয়ে যাহাতে শিক্ষা পায়, তাহা কে-সবামের লৈাকদের আসাম বোধ আছে তথা প্ৰতি দৃষ্টি রাখা উচিত নানকল্পে নিলিখিত কলাভের চেষ্টা করা উচিত , এখন যেখানে যত শঙ্ক উৎপন্ন হইতেছে, তাহার ক্ষে ১) গ্ৰীমের সমগ্ৰ লোকসংখ্যার অন্ততঃ দশমাংশের গুণ উৎপাদন করিতে চেষ্টা করিতে হইবে । ইহা অসাধা শিক্ষা পাওয়া উচিত ; অৰ্থাৎ গ্ৰামে ২০০০ লোক থাকিলে অন্ততঃ ২০টি বালকবালিকার ইস্কুলে যাওয়া চাই। কোন মহীশূরের দেওয়ান মহাশয় আরও অনেক কথা বলিয়া প্রামে বিদ্যালয় না থাকিলো নিকটবৰ্ত্তী গ্রামের পাঠশালা ছেন । তাহার সমস্ত অনুরোধ ও উপদেশ অক্ষরে অক্ষা তাহাদিগকে পাঠান উচিত পালন করিতে হইবে, এপ মনে করিবার কোন কা (২) গ্ৰামের প্রাপ্তবয়স্ক লোকদিগকে পড়িতে , লিখিতে ও হিসাব রাখিতে শিখাইবার সম্ভ বিদ্যালয় বা বেশী করিতে পালিলেই সুখের বিধা হয় তপ কোন বন্দোবস্ত থাকা উচিত। দেশের অবস্থা ও অভাব সব বিষয়ে মহীশূহের মত ) গ্ৰামে কৃষি ও শিয়াজাত দ্ৰব্য ৰংসৱে কত নহে। কিন্তু বাংলাদেশের উন্নতির মানে যে প্রধান উৎপন্ন হইতেছে, তাহার একটা মোটামুটি হিসাৰ প্ৰস্তুত গ্ৰামগুণ উন্নতি তাহাতে সন্দেহ নাই আৰ্থিক অঞ্চ করিয়া দেখা কৰা বে ধনোৎপাদন বিধহে প্ৰানটির যথেষ্ট স্বাস্থ্য, শিক্ষা, প্ৰতি বিষয়ে উন্নতি পরম্পরের সহিত এই সামৰ্থ্য আছে কি না। যে গ্ৰামে বৎসরে মাগাপিছু অনুন জড়িত, এবং প্ৰত্যেকটি অপরগুলির উপর এক্সপনি টাকার দ্রব্য উৎপন্ন বা প্ৰস্তুত হয় না, তাহার আবি করে, যে, কোটিতে আগে কোনটিতে পরে নথিতে বা সাংসারিক অবস্থা নিরাপদ নহৈ বলিয়া বুলিতে হইবে । হইবে, লিবাের তো নাই । বাহার বেদিকে ঝোক ৩য় সংখ্যা] বিবিধ প্ৰসঙ্গ—জীদার ও জমীর খাজনা শক্তি ও সুবিধা বেশী আছে, তিনি তাহাতেই লাগিয়া দরকার নাই। তার একটা কথা লইয়া আমরা বাংলাদেশের পক্ষ হইতে কিছু শিক্ষালাভ করিতে চাই । তিনি বলেন, বাঙালীর কৃতিত্ব ও আমেরিকার বাংলাদেশ ভূমিকর দেয় মোটামুটি ২ কোটি টাকা, বিদ্যোৎসাহিতা । মাদ্ৰাজ ৬ কোটি, আগ্ৰা-অযোধা ও কোটি, ইত্যাদি । তাহার অঙ্কগুলি মোটামুটি শুদ্ধ বলিয়া ধরিয়া লওৱা যাইতে বিজ্ঞানাচাৰ্য্য প্ৰফুল্লচন্দ্ৰ বা মহাশয়ের অন্যতম প্ৰিয় পারে । বঙ্গে যদি নির খাজনার চিরস্থায়ী বন্ধোৰন্ত না ছাত্ৰ সিকলাল দত্ত রাসায়নিক গবেষণা করিয়া কণিকাতা "" থাকিত, তাহা হইলে এই প্ৰদেশ হইতে মোটামুটি আরও বিশ্ববিদ্যালয়ের ডি.এসসি উপাধি পাইয়াছেন তিনি চাৰিকোটি টাকা গৰণমেণ্ট পাইতে পারিতেন, এইপৰা অনেক রাসায়নিক গবেষণা করিয়াছেন হইয়াছে। গবৰ্ণমেণ্ট জীদারদের সহিত চুক্তি ভদ্ধ করিয়া তাহার হেলেজেনেশন ( halternation বিষয়ক নুতন খাজনা বাড়াইলা আরও চারিকোটি টাকা আদার করুন, আবিজিয়ার হার কৃতিত্বের পরিচয় পাইয়া এবম্বিধ ইহা আমরা বলিতেছি না। বাস্তবিক বাংলা দেশ হইতে কাৰ্য্যে তঁাহার সাহায্য কবিবার ও তাহাকে উৎসাহ প্ৰতি বৰ্গ মাইল হিসাবে অন্যান্য প্ৰদেশ অপেক্ষা সরকার দিবার জন্য আমেরিকার সন্মিলিত রাষ্ট্ৰ ( U. S. A. ) বে পূৰ্ব কম খানা পান, তাহা নয় থচ বাদ, প্ৰতি প্ৰায় ত্ৰিশ হাজার টাকার বৃত্তি দিয়াছেন বৰ্গনাইলে ইহার পরিমাণ, আগ্ৰা-অযোধ্যায় ৪৯৪ টাকা, মাৰ্কিন রাষ্টের এই গুণগ্ৰাহিতা ও বি দ্যাৎসাহিত্য বড় আনন্দের বিয় ইহাতে মাৰ্কিনদের গেীরণ বৃদ্ধি বোম্বাইয়ে ৩৪৩, মাণ্ডাৱে ৩১৫, বঙ্গে ২৮৬, পাৰে ৩৫ মধ্যপ্রদেশে ১৪৪৭, বিহার ওড়িষায় ইয়াছে। শ্ৰীযুক্ত রসিকলাল দত্ত যে ব্রিটিশ সামাগ্যে বাস করেন, অাগে তাহার নিকট হইতে উৎসাহ পাইলো সামে ১১২ । ইহাও বিবেচা যে বাংলায় রায়তদে অবস্থা অন্য কোন কোন প্ৰদেশ আপেগু ভাল আমরা চিরস্থান্ধী বন্দোবস্তু উঠাই দিতে বলিতেছি না উসমানিয়া বিশ্ববিদ্যালয় প্রিাসা এই, যে, জীদাররা বে টাকাটি বহুবৎসর রিয়া হাইদরাবাদের নিলাম তাহার রাজ্যে উমনিয়া বিশ্ব পিতেছেন, তাহাতে বাঙ্গালী জাতির কি উপকার বিদ্যালয় নামে একটি নুতন বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন কতিতে হইয়াছে ? “আমরা নিতেছি ন, বাংলাদেশে কোনা আদেশ দিয়াছেন । এই বিশ্ববিদ্যালয়ে উৰ্ব্ব ভাষার প্রাচা ক্ৰমীদার অগ্রহণ করেন নাই, বা কেহ কোন সৎকাজ ৩. পাশ্চাত্য প্ৰাচীন ও আধুনিক নানা বিদা শিক্ষা করেন নাই ; তাহা বণিলে মিথা-কথা বলা হইবে । কিন্তু দেয়া হইবে । কিন্তু ইংরেজী ভাষাও সকল ছাত্ৰকেই মোটের উপর ইহা বলা যাইতে পারে, বে, যে ব্লাৱতয়ে হইবে দৈহিক, মানসিক ও আধাত্বিক পরিশ্ৰমে তাহারা ধনী ও বিলাসী, তাহাদে স্বাস্থা, শিক্ষা শিক্ষার প্রাচীন ও আধুনিক সহপায়সকল অবলম্বিত ও আর্থিক উন্নতির জর দীদার-শ্ৰেণী উল্লেখযোগ ৰে। ছাত্ৰদের নৈতিক উন্নতির প্রতি বিশেষ দৃষ্টি রাখা করেন নাই । অল্পদিকে জীদারো নিজে ৰান্তৰিক বে। এখানে নানাবিদার গবেষণাও হইবে উপকৃত হন নাই ; তাহারা অনেকে অমানুষ হইবা জীদার ও জমীর বাজনা বগা, ত্ৰি, অভাচারী দীদার অনেক মাসমেল মাদ্ৰাঙ্গের এক খানি এংলো ইঞিান আছে । যাহাবা কিছু তাল, তাহারাও অধিকাংশ বিলাসে দৈনিক ইহাৱ কলিকাতা একজন সংবাদদাতা ও অাগহে সমস্ত জীবনটা কাটাইয়া দেয় । মাছবের মত কোন প্রদেশ হইতে যুদ্ধ গুণ কত পাইয়াছেন, তাহাব পরিশ্রম করেন, শক্তির সাবহার করেন, এবং বাঙ্গতদের খালোচনা কবিতে গিগা মাত্রাঙ্গে পক্ষে ওকালতী করিয়া সমাজের মঙ্গল করেন, এৰূপ দৰ্মীদার খুব কম । সুতরাং কথা বলিয়াছেন সে-সৰ কথায় আমাদের জমীদারদের অৰ্থে প্ৰধানতঃ অপৰায়ই হয় বলিতে হইবে ।