পাতা:প্রবাসী (সপ্তদশ ভাগ, প্রথম খণ্ড).pdf/২১৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৩৫৪ প্ৰবাসী ভাব, ১৩২৪ তা দেৰ হইতে পারেন না, কারণ মানব ও ো লি চিগাইয়া মায়াজের পক্ষে মিনিলা কলাণিবিজয় মাৱা প্ৰতিষ্ঠা করা সম্বৰ হে এইক্স চৰ মহাশয় ও ঢাকার ইতিহাস-লেখক অনুমান করেন যে এই সোম-বর থাহেদেব হয়ত মিথিলার একজন সামগ্ৰ নপাল ছিলেন । কৰ্ম্মদেৱে পিতা চী-দাপ খায়োদে যে ষ্টীয় একাদশ ১৭শ ভাগ, ১ম খণ্ড চাকা বা পুৰুকেৱে ইতিহাস নহৈ, ইহা সমগ্ৰ ইতিহাস । ৰাগ কৰি ইহা বাঙ্গালীর গৃহে গৃহে কিবা ৱিা যত ও যুক্ত ছিল এবং কাশী হইতে মিৰিলা জস অতি সহজ, এই সকল কথা লেব হয় পোৱা মালা এবং ঢাকার ইতিহাসে চরিতার গতিপথে দ্বিত হয় নাই। গাঙ্গোদেব বোধ হয় গেীর কে পরাজি বিধা সেরা অধিকার মা করিয়াই গোঁড়শ শালি হণ কৰিছিলেন চারের পরিচ্ছেদ তিগণ ইংলণ্ডে কণাম কৃষি অধিক ইলেণ্ডাজ উপাধি ব্যবহার করিতেন । ঢাকার ইতিহাসে সময় অধ্যায়ে কাটেরিনার ভাগাপরিবর্তনের মাসতিনেক পরে শরতের দরজালের যে বিবরণ সম্বলিত হইবা তাহা এই-সকল সাদা শেষে ো রো-প্ৰাসাদের চিমনীতে চিমনীতে আবার বে। উঠতে লাগিল । দুই বৎসর পরে কৰ্ত্তা ও গৃহিণী ফিরিয়া কলেজের জব্যাপক ক্ৰাধাগোবিদ সাও প্ৰলিপিত অঞ্চল । আসিবেন ; িকদের মহলে তাই মহা হুলস্থল। মিঃ ওয়ালেনকে গাড়ীর ভিতর চাইতে একটি কালোচোখী ছোট নাৰ করিয়াছিলেন। কার ইতিহাস রচয়িতা লাঙ্গালার সাহিত্যিৰ স্তাৱ কয় উপেক্ষা করিয়া সনাক মহাশয়ে ক্ষমত পতিতা, কবি মেয়েকে নামাইতে দেখিয়া বাড়ীয় ভাড়াপী বেলামীগিছি ত পরিচয় দিয়াছেন বেঙ্গ অবাক বে লাগিরি মায়ে সেদিন সন্ধায় আমর সঙ্কলিত হইয়াছে ই অপারে হরিণ। বাস কাল থে দিয়া উঠিা, মিসে শাপ অচে আপনার স্থান ও সন্ধান্তৰাধি যুক্ত নগেন্দ্ৰনাথ বা ঐ পরিত্যাগ কৰিw, ৭ অভিঙ্গাল গঙ্গে রপুর কত রং লাইয়া, হাজার সানি ঐতিহাসিক মনোমোহন চক্ৰৰী মহাশয়ের । ৱিা বব মুক্ত যতীন্দ্ৰদোহন বা বে সা ৎিসার দৃষ্টান্ত রকম মন্তলা করিয়া সে দলের কার-সকলকে ক্যাটরিনা দৰ্শন কৰিয়াছেন তাহ। বাঙ্গ দেশে ছিল ইতিহাস দিতে বসিয়াছে অগ্ৰায়ণ মাসের শীতে সাৰাংশের ইতিহাস লিপিৰ হইয়াছে সপ্তম অধ্যায়ে লিপিবদ্ধ মনোরম মােগানা মাছাসভা বসাইতে বোধহয় সকলেরই পালায়াংশের ইতিহাসের বা দশ খ্যাও লিখিত এবং শু। পু, এই অধ্যায়ে বার সংবা মাৱ দামোণে কতিয়া এ লোভ হয় । চিমনীর আগুনের কাছে একখানা টেবিল: তাহাকেই থিসিয়া বসিয়াছে। সত্যধিষ্ঠা, অসাধারণ থাকা ও সামাণ্ড পতি দোয় পরিচয় আগুনের মৃত্যু আলোকে তাহাদেৱ পিছনে বেশ একই আলো ও ছাবার বিচি না তৈরি হইয়াছে । ঘরে এক লিপিবদ্ধ হইয়াছে এবং সাভার, ধামরাই এবং তাণ্ডালে স্বাধীন ঘানিগণের সংক্ষিপ্ত পরি থানা কি কাঠের গথ টেবিল আর অনেকগুলি অালমারী এয়ার শাসনত সম্বন্ধে ও দুয়োদশ অধ্যাচে সমতা সম্বণে অলেন। তাহার ভিতর হৱেক-রকম আচার ও মোরব্বা ইয়াছেন । প্ৰমাণাভাবে এই দুইটি বিষয়ের কালোচনা । কলি এবং বহু নুন প্ৰমাণ ৰিষা যতীত এই দুইটি বিষয়েত চৱৰ মীমাং একখানা ছবি ও পথ পা কেমন কপ্ৰিয়া উপর হইতে বা বহু পeিন করিয়া এই দুটি বিষয় সম্বতে নীচে চলি আসিছে । বাগনের মালী মি; বেটন প্ৰাই বোমীগিরি শ সন্ধায় আতিখোৱা ‘ভাবী হইয়া আসিত । ছোট কীয়া জেলার বিক্ৰমপুর যে কোকালে বাদ দেশে অবস্থিত ছিল না মাঝখানে তাহার যে ছোট গোড়ো রেট ছিল, সেখানা উক্ষা যে চত, ধৰ্ম্ম ও সেন বংশী বাগণে তামশাসনৰহে খ ত বিক্ৰমপুর হইতে পাৱে মা তাহা প্ৰমাণিত এই শূন্ত চেয়ারখানায় বন্ধি একা একলা সস্কাগুলি কাট মুসন্ধান সমিতি তুমি হইয়াই মৃত্যাগ করিয়াছে, অতএব কো এই প্রৌঢ় কুমারটর বেশী ভাল লাগিত না তাহা বিহপুৰ আলোমিনে দৈত্যের সাহায্যে এক বাহিতে নদী ষোয় উঠাইবা আপনার প্রয়োজনও অন্তত হইছে, থ এ চাইতে এই সঙ্গনতা আনন্দ গল্পগুজব খাওয়াদাজ নিয়োজন সেই নিৰ্জ্জন কুঁড়েখানায় এক পাকাকে স্মৃতির সৌরভ স্মৃতির সেীরভ জাক জার বুনো হাসের চীৎকার ছাড়া আর কোনো শব্দই শাৰ্ণগিরি ধরণটা আজি বেজায়টারের মতন শব্দগুলি কবিদের পক্ষে ভাল বটে, তবে উদারতাটা সীমা ছাড়াইয়া যায় নাই। সে বলি এই বুলি সাধারণ মাসের পক্ষে বিশেষ আনন্দদায়ক নয় । শোন, অবিশ্যি আমি ওদের ওকালী ৰুছি না। শু মিঃ বেটুদের চেহারাটা নেহাৎ সাধারণ মানুষের মতন যে কি তা” আমি কারুর চাইতে কিছু কম জানি না। গুঞ্জ বিশেষভাবে চোগে পড়িারই মতন লোকটি ধৰ্ম্মকশ্বের ধােৱ ধারে না, সে কথা ত’ একশ বায় বলছি সবল, বয়স প্ৰায় শি। প্ৰকৃতি-দেবী বোধ হয় খাবার বা খায় দেখলে লোকের বমি ঠেলে আসে। তা তাহাকে রং কৰিবা সময় বড় বাস্ত ছিলেন। তাই রঙের সে হাজারই হোক না কেন,—তার উপর আবার সে ছোপ ঠিক-মতন দিতে বুলিয়া গিয়া গলার উপর দিক থেকে শোনা ধোয়া মোছার ভাব ও তা সারাটা পথ আমারই উপ মুখের সবটাই এক-রকম লাল রঙে রাইয়া নিয়াছিলেন ; ছিল... তবু বাপু আমার তা মনে হর কত্তাগিরি যা করেছেন থেকে তাতাকে দেখিবার সময় ঠোট জোড়াটা নাক ত’ ভাল বই মন্দ করেননি । আহা বেচারা নেহাৎ শি থেকে চিবুকের মধ্যে যে-কোন জাগোতেই কারনা কবিয়া থেনো ডান-হাত ধা-হাতও চেনে না ; দেশে এনে : কাছে আনিলে দেখা যায় ঠোটের গানটা ভালই করেছেন ভদ্ৰলোকের মতো কথা-বাৰ্তা শিখবে একটু নুতন ধরণের তাতার ভাষার সঙ্গে বোধ হয় ঠোঁটের বে আব-হাওদায় মানুস হবে গনে কিছু সম্পৰ্ক আছে ; সেট প্রাদেশিক ভাব নয়, বে-সব মুরি বাহার, গায়ে একখানা একেবারে ব্যক্তিগত সাধারণের সঙ্গে তাহাস আর কাপ ও নেই, ভেতরে ঢুকলেও পাপ হয় : স্যা ত্ৰিকা কটা অমিল ছিল ; সেটা চোখে চোপ দুটো সাবাগণই আবার ওই গিৰ্জা দেখেই পাগল ?” টুিনিষ্ট করে মাথাটা সামনের দিকেই বুলিয়া থাকে, ১াণীকে ক্ষ্যাগাইতে মি: ওয়ারেন খুব ভালবাসিত চলিবার সময় আবার ঘাড়টি বেশ দোলে প্রায়ই দেখা সে বলিয়া উঠিল, “ওহে, শোন, শোন, তোমাদের এখানে বাবে পেটুক লোক গুলোই প্ৰায় ৰোগা হয় আর মিতাচারী ত’ আরো বিদেশী আসছে বাড়ীতে কি সব বাৰা লোকেরা হয় লাণ খা । তাই মিঃ বেটসের মাতলানির সঙ্গে চন্তে সার কিষ্টকার ইটালীর কারিগর আনছেন । কোনো সম্পৰ্ক সি থাকিলেও মুখখানা ছিল লাল টকটকে বেলানীগিমি চীংকার করিয়া বলি, “বদলাবার জ্বলে শাপগমির গল্প শেষ হইলে মিঃ বেট্‌স বলিয়া উঠিল কিসের বদল ?” স্বর কিষ্টফার কি ঠাকরণ যে কোনোদিন এমন মি: ওয়ারেন বলিল, “ কন ? বা দেখছি তাতে তা মনে কাজ করবেন তা’ অগ্নি স্বপ্নেও ভাবিনি ; একটা কোন হচ্ছে ষ্টিকার বাড়ীখানাকে ভেতর বার বিদেশের মেয়েকে কিনা দেশে এনে তোলা ! বেঁচে বৰ্তে আথাগোড়া তন করে ফেলবেন । । বাড়ীর জন্তে তাড়াতাক্ষা ত পাৰ কি না জানি না, তবে এর ফল বে ভাল হৰে নক্সা আর ছবি আসছে। গথিক ধরণে পাথর দিয়ে সব সে আমি লিগে ‘তে পানি । এই বলি শোন, প্ৰথম আমি তৈরি হবে ওই গিনে-টর্জের মতোই একটা কিছু হৰে ধানে কাণ কতাম, সে এক সেকেলে মঠ, তার মস্ত বড় বলে মনে হচ্ছে আর বাড়ীর ছাদ যা হবে এদেশে কেউ বাগান, নাশপাতি কুল কত কিছুই আছে অমন বাগান অমন চোখে ও দ্যাথেনি। ওই-সব চিন্তাতেই ত’ কৰ্ত্তানি বোধ হয় কেউ কখনো প্যাগেনি । সে বাড়ীতে একটা কাট্‌ছে । রাণী খানসা ছিল, লোকটা যাতে হাত দিত তাই চুরি বেলামীগিছি বলি, “অ কপাল, তাই নাকি! তবেই করত, রেশমী মোজা, শাট, সোনার আংটা কিছু আর তা গেছি ; বাড়ী ঘর দোয় সব চুন-বালিতে একাকায় হবে ধৰিয়াখেনি। শেষে একদিন গিরি গয়নার বা নিয়ে রাজ্যের মিী ডোর মিলে ব দের পেছনে লেগে ও বিদেশী লোকগুলো বাপু সব একাচের। অতি করে তুলৰে। ওয়ে রক্তেই পাপ মেশান । মি: বেট্‌স বলি, সে বিষয়ে নিশ্চিত থাকে, বেলামী