পাতা:প্রবাসী (সপ্তদশ ভাগ, প্রথম খণ্ড).pdf/৩১১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গান প্ৰবাসী-ভাদ্র, ১৩২৪ দেশাদেশ নন্দিত করি মন্দ্ৰিত তব ভের আসিল যত বীরবৃন্দ আসেন তব গেরি দিন আগৰ্ভ ঐ, ভারত তবু কই ? সে কি বুলি লুপ্ত আলি সব-জন-পশ্চাতে লউক বিশ্বকৰ্ম্মভার মিলি সবার সাথে প্রেরণ কর, ভৈরব, তব দুৰ্জ্জয় আহ ন হে জাগ্ৰত ভগবান হে, জাগ্ৰত ভগবান । বিবিপদ দুঃখ হন তুচ্ছ করিা যারা মৃত্যুগহন পার হইল টুটিল মোহকারী দিন আগত ঐ, ভারত তবু কই ? ল নিবীৰ্য্যবাহু কৰ্ম্মকীৰ্ত্তিহীন ব্যৰ্থশক্তি নিরানন্দ জীবনধনদীনে প্ৰাণ দাও, প্ৰাণ দাও, পা ও দাও প্ৰাণ হে জাগ্ৰত ভগবান হে, জ্বাস্তাত ভগবান ন-যুগ-সুখ উঠিল, চুটিল তিমির রাত্ৰি, অৰ দিয়-অমঙ্গন ভরি মিলিল সকল যাত্ৰী দিন আগত ঐ, ভারত তবু কই ? গত গৌরব, হৃত আসন, নতমস্তক লাগে মানি তার মোচন কর, নীসমাজ-মাকে স্থান দাও, স্থান দাও, দাও দাও স্থান হে জাত ভগবান হে, জাগ্ৰত ৬-বান জনগণপথ অব জয়রপচক্ৰমুখ অলি স্পাদিত করি দিদিগন্ত উঠিল শব্দ বাজি দিন আগত ঐ, ভারত তবু কই ? দৈন্তীৰ্ণ কক্ষ তার, মলিন শীৰ্ণ অাশা ত্ৰাসঙ্গন্ধ চিত্ত তার, নাহি নাহি ভাষা কোটামেীনকণ্ঠপুৰ্ণ বাণী কর দান হে জাগ্ৰত ভগবান হে, জাগ্ৰত ভগবান [ ১৭শ ভাগ, ১ম খ সারা তব শক্তি লভিল নিজ অন্তরাঝে বল ভয় অর্জিল ছু সাৰ্থক হল কাজে দিন আগত ঐ, ভারত তবু কই ? আত্ম বিশ্বাস তার নাশ কঠিন ঘাতে পুতি অবসাদা হান অশনিপাতে ছায়াভচকিত মূঢ়, কাহ পরিত্ৰাণ হে শ্ৰীবীন্দ্ৰনাথ ঠাকুর সাংখ্য দৰ্শনের প্রথম পৈটা হইতে যাত্রারম্ভ সাংখার পকণি . -সোপানের প্রথম পৈট হইতে পরপরবী ৈ পদনিক্ষেপ করিতে-হাইবার পূৰ্ব্বে পটা-গুণ৷ ক-শ্রেণীতে বিভক্ত, আর, এক-এক শ্ৰেণী পৈটার সাহ আবু-আর শেলীর পৈচার সম্বন্ধুসুত্ৰই বা কিৰণ ; পূব এবং প্রকৃতির মধেই বা সম্বন্ধ এই কয়েকটি বিষয় পৰ্ণাবেক্ষণ করিয়া দেখা আবশ্বক-রোধে তাহাতেই এক্ষণে প্ৰবৃত্ত হওয়া যাইতেছে সাংপোর পরিভাষায়— ধা = বিকৃতি ; কারণ = প্ৰকৃতি মূল কারণ = মুগা প্ৰকৃতি = প্ৰধান এনেতে ছাড়াই তেছে যে, প্ৰধান কাহারো কাদা না, অার, সেইজন্য প্ৰধান ও প্ৰকৃতি মাত্ৰ — কারণ মাত্ৰ পর বুদ্ধি দিকে, যেমন, প্ৰকৃতির বাস, অ্যার-একদিকে, তেৰি অহঙ্গারের ধাৱা না ; অহঙ্কার একদিকে, যেমন, বুদ্ধির কাৰ্য, আর. একদিকে, তেছি, মন:প্ৰধান একাদশ ইন্দ্ৰি এবং পঞ্চতন্মারের কারণ ; পঞ্চতন্মাত্ৰ একদিকে, যেমন, অহঙ্কারের কাব্য, আর-একদিকে, তেদি, পঞ্চ কারণ । ইহাতে এই ৰূপ সঁাচাইতেছে যে সোপানের মাঝের এই যে-তিনটি ধাপ ১ ) বুদ্ধি ২) অহঙ্কার, ৩) সংখ্যা ] সাংখ্যদৰ্শনের প্রথম পৈটা হইতে যাত্রারম্ভ কারণও বটে— ধ্যও বটে, প্ৰকৃতিও বটে—বিকৃতিও নিজ-নিজ বলে কিছুই করিতে পারে মাতে , বিশ্বব্ৰহ্মাণ্ডে আর সেইজন্য, সাংখ্যের পরিভাষায় মস্তকস্থানীয় আদি সুৰ্য্যের ব্ৰক্ষয় অবধি ফরিয়া দ্ধি অহঙ্কার এবং তন্মাত্ৰ ৯ প্ৰকৃতি-বিকৃতি আকাশের প্রত্যেক রোম-কুপ পৰ্য্যন্ত পু পু প প্ৰধান একাদশ ইন্দ্ৰিয় কিন্তু কাহারো কারণ অনুপ্ৰবিষ্ট সেই যে, অব্যক্ত মূল কারণ কিনা মুল প্ৰকৃতি , পঞ্চভুতও কাহারো কারণ নহে । ইহাতে এই স্কপ সেই মূল-প্ৰকৃতি হইতে—এক কথা প্ৰধান হইতে তাইতেছে যে, প্রতি-সোপানের শেষের এই যে-দুটা —ধলের আগম না হইলে, বুদ্ধিই বা কি, অহঙ্কার বা কি, কিতাপতেজোমর্যামই বা কি, কোনো প্ৰাকৃত (১) মনঃ প্ৰধান একাদশ ইন্দ্ৰিয় এবং (২) পঞ্চ বস্তুই কেবলমাত্ৰ নিজ-বলে কিছুই করিতে পারে না। বিচিত্ৰ - দুইই বিকৃতি-মাত্ৰ, দুই কাৰ্য মাত্ৰ : একাদশ বিশ্বভুবনের মহতী লীলার প্ৰবৰ্ত্তনাকাৰ্য্যে প্ৰথাই ক্ৰিয় অহঙ্কারের কাৰ্য ; পঞ্চকুত = পঞ্চ-৩৭াৱে কাৰ্য্য। —অব্যক্ত মূল কারণই—এক বা-কেবল স্বতন্ত্ৰ, অৰ্থাৎ হিয়া দেণ আপনাতে আপনি পৰ্য্যাণ্ড, তদ্ব্যতীত অপরাপর বস্তু যেখানে ২) প্ৰধান = অবাকৃত প্ৰকৃতি যত কিছু আছে সমস্তই নুনাধিক পরিমাণে পতন্ত । ২) প্ৰধানের বিকার বুদ্ধি ১১ এ-সম্বন্ধে সাংখাকারিকা দশম সূত্ৰেয় স্তবকৌমুদী -স্তাহো বুদ্ধির বিকার অহঙ্কাল ১ প্ৰকৃতি মন্তবা প্ৰকাশ করা হইয়াছে এইরুপ অহঙ্কারের অ্যাক্তর বিকার - বিকৃতি পাৱতং বুদ্ধাদি । বুদ্ধ্যা স্বকাৰে অহঙ্কাৱে জনন্তিব্যে প্রকা অহঙ্কারের আর এক-তর দিকার ইন্দ্ৰিয় পূরং অপেক্ষাতে । অৰ্থ-ক্ষীণা সতী- আল হাজং জাতুি তাদের বিকার স্থূল ভূত ৫ এবং অহঙ্কারাদিতিরলি কাৰ্য্যজননে—ইতি সৰ্ব্বং কাৰো ক্ল্যা তে পাইতেছি – স্বতে । তেন, প্ৰকৃতি পরাং অপেক্ষমাণং -কাদি ধান সমস্ত প্ৰাকৃত জগতের অনিগুঢ় অবাক মূল , বুদ্ধ, অহম্বা, এবং পঞ্চমাত্ৰ এই সপ্ত প্ৰকৃতি ইহা বাংলা অনুবাদ সেই একমাত্ৰ অদ্বিতীয় মূল কারণের শাখা-প্ৰশাখা ; বুদ্ধি-প্ৰকৃতি প্ৰকৃতি-সংস্কৃত পদাৰ্থ-মাত্ৰই পরত। বুদ্ধি র, মন:প্ৰধান একাদশ ইন্দ্ৰিৱ এ পঞ্চভূত এই ষোড়শ স্বকাৰ্য্যে, প্ৰবৃত্ত- ওন-কালে প্ৰকৃতি-কন্তুক বল কৃতি-সেই একমাত্ৰ অদ্বিতীয় মূল কারণের ফলাভিব্যক্তি। অপেক্ষা করে, নচেৎ বুদ্ধি কেবলমাত্ৰ নিজের ক্ষুদ্ৰ শক্তিটুকুর বলে অহঙ্কারের উৎপাদনে সমৰ্থ হয় না। সাংখ্যমতে, আদি সূৰ্বা হইতে পৃথিবী-উপপৃথিবী পৰ্য্যন্ত তেৰি ভাবা, দিব্যাপ্ত নিখিল বিশ্বব্ৰহ্মাণ্ডের যেখানে যত প্ৰকার কাৰ্যা বুদ্ধির পুত্ৰ অহঙ্কার যখন ইন্দ্ৰিয়াদির উৎপাদনাৰ্য্যে প্ৰস্তু হয়, তখন সে-ও তার জননীর স্নায় প্ৰকৃতি-কক তেছে সমস্তই একমাত্ৰ অদ্বিতীর মূল কারণে কাৰ্য iানেরই কাৰ্য্যা । মনুষ্য-দেহের মস্তিদের অন্তনিমূঢ় বল-পুরণের অপেক্ষা করে । এ তো দেখিতেই পাওয়া ন চৈতস নাড়ী-কেন্দ্ৰ (nerve-centre) হইতে বলের যাইতেছে যে, মূল কারণ হইতে (কিনা ্ স হইতে ) না হইলে হস্তপদাদি অঙ্গ প্ৰত্যঙ্গ মেন কেবলমাত্ৰ বলের আগম না হইলে বুদ্ধিপ্ৰভৃতিরা কারণ হইয়া ও কাৰ্য্য উৎপাদনে সুক্ৰাধ অসমৰ্থ । অনুযা না নালী - ক ল । এই অৰ্থে-পিপৰা প্ৰভৃতির ষ্ঠা inmenাণ্ড ( গ তত্ত্বও । নাড়ী-বিদে । তার সাক্ষ সাংখ্য মতে, এ যেমন দেখিলাম—যে, প্ৰতিই বিশ্ব প্ৰতে কেবল এই যে, শিয়া-প্ৰকৃতিরা ঘুণ পান ষ্ট্ৰী। অামি পারংপক্ষে nerve অৰ্ণে স্নায়ু ব্ৰহ্মাণ্ডের সৰ্ব্বে সৰ্ব্বা— এই সঙ্গে এটাও তেদি দেখা চাই যে, ঘাৱ কৰি দা এইজ - যেহেতু থাকোঁদের পত্তিাধা-স্বায়ু এক হাতে তালি বাজে না :—গানের মজলিযে শ্ৰোতার intº । ভাষাতত্ত্বরসিক পাঠকগণকে “স্থা” এবং “inew সমাগম না হইলে গায়কে কষ্ঠে কপাট উক্ত হয় না। হয়ে শব্দ-সাদৃশ্যে প্ৰতি মুহকে হয় করিয়া দেখিতে অনুরোধ প্ৰকৃতি-রঞ র পরমাশ্চৰ্য নাট্য-লীলায় স্বৰ্গ-মর্ত্য পাতাল, ১