পাতা:প্রবাসী (সপ্তদশ ভাগ, প্রথম খণ্ড).pdf/৩২১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৫৪২ প্ৰবাসী -- ভাদ্র, ১৩২৪ খ্ৰীপুৰুষ ও জাতিধৰ্ম্মনিৰ্বিশেষে সকলেই ঘাঁহাতে মানুষ হুইবার ও নিজ নিজ শক্তি অনুযায়ী কাজ করিবার সুখে পায়, তাহা করিতে হইবে । স্বরাজের অভিমুখে । কামরা Towards Home Rule ব অভিমুখে” নাম দিয়া যে দুইখণ্ড পুস্তিকা লিখিছিলাম তাহা প্ৰথম খণ্ড ব্ৰেথায়ী মাসে বাহির হয় উহার দ্বিতীয় সংস্করণ প্ৰকাশিত হইয়াছে বহিথনি ভারতবর্ষের কোন কোন ভাষা অনুবাদ কৰি অনুমতি চাহিয়া অনেকে আমাদিগকে পত্ৰ লিগিয়াচে আমরা আচমতি দিয়াছি প্ৰথম খণ্ডের দ্বিতীয় সংস্করণে কতকগুলি নুতন বিষয় সন্নিবিষ্ট হইয়াছে অাব্দল রসুল [ ১৭শ ভাগ, ১ম খণ্ড অাণ রসুল মহোদয়ের অকালমৃত্যুতে বদদেশ ও ভারতবৰ্ষ একটি খাটি মানুষের সেবা হহঁতে বঞ্চিত হইল৷ তিনি অক্সফৰ্ডর এম্-এ এবং ব্যাষ্টিার ছিলেন ? অাইন ব্যবসায়ে সত্যনিষ্ঠ ও স্বাধীনচিত্ত বলিয়া হার খাতি ছিল । তিনি দেশভক্ত ও সাহসী লোক ছিলেন ভাব না ও মধু ছিল তাহার চরিত্ৰে সাম্প্ৰ মৃত্যু হয় এই কন্যার বিবাহের নিমণ পত্ৰ অামাদের মত ৱিক সংকীৰ্ণতা ছিল না। এইজন্য মুসলমানসমাজের কন্তু বাং" লিম্বিত ইয়াছিল বাহিরেও তাছার অনেক অন্তরঙ্গ বন্ধু ছিল । এবং তাহা সম্প্ৰদাসের বিবাহের নিমস্কণপরে হ্ৰাগ ইহাৱাও বীম কোণে প্ৰতি শ্ৰদ্ধা মুসলমানসমাজের সীমায় আবদ্ধ ছিল না বড় অপ: শুভবিবাহ” ছাপা ছিল । উপরে বিচারপতি চন্দ্ৰমাধব, ঘোষের বাড়ীর এক সান্ধাৰ্ম্মিলনে আ র "ইয়াৰ” বা “হে পরমেশ্বর” মুলিত ছিল । হিন্দু ও মুসলমানদের জলযোগের পৃথক বন্দোবস্ত ছিল ; ঠিখানির কোন বিশেষত্বের অন্তঃ আমরা ইহার উল্লেখ কিন্তু স্বল সাহেবকে হিন্দুরা তাহণের সঙ্গে টানিয়া লইয় রণ সাহেব বিলাতী বিশ্ববিদ্যালয়ের গাসলা গিয়াছিলেন । বঙ্গবিভাগ আন্দোলনের সময় তিনি বিভাগের একজন ইংরেণি মহিলা ৬াহার পত্নী ; অথচ তিনি বিরোধী ছিলেন বলিয়া তখন মুসলমান-সম্প্ৰদায়ের অ কন্যার বিবাহের সময় মাতৃভূমি ও মাতৃভাষার সন্মান রক্ষা ভুল বুঝিরা তাহাকে বিধী পৰ্য্যন্ত বলিয়াছিলেন । কিন্তু পরে করিয়াছিলেন, আমরা এইজন্যই ইহা উল্লেখ করিলাম তিনি আপনার চরিত্ৰে প্ৰভাৰে সধৰ্ম্মীদের শ্ৰদ্ধা পাই শিক্ষামন্ত্ৰণাসভায় বঙ্গের স্থান । ছিলেন, এবং ব্যবস্থাপক সভায় মুসলমানদিগে অন্যতম আগামী ৪ঠা ও এই ভাত্ৰ ( ২৭শে ও ২১শে আগষ্ট) প্রতিনিধি নিৰ্ব্বাচিত হইয়াছিলেন। তিনি একটি ইংরেজ ভারতবর্ষের ইংরেজী বিদ্যালয়-সকলে ইংরেজী ভাষা শিক্ষা মহিলােৱ পাণিগ্ৰহণ করিয়াছিলেন ; কিন্তু তাহাতে তিনি বান সৱে সি একটি মন্ত্ৰণ সভা ব: হাতে বাঙালী-বৰ্জিত হন নাই তাহার একমাত্ৰ কন্যা মালা ও বোম্বাই প্ৰদেশ হইতে চারিন করিয়া, বাংলা, ি য়া নেজ মাের বিবাহের ছুদিন পূৰ্ব্বে হঠাৎ তাহার মাও-অযোধা ও পাব হইতে তিনজন কণিয়া, মধ্যপ্ৰদেশ ৫ম সংখ্যা ] ] বিবিধ প্ৰসঙ্গ—সাৰ্ব্বজ্ঞানিক কাজে ভারতনারী ৫৪ ইতে দুইজন এবং বিহার-ওড়িশা ও আসাম হইতে একজন ধারণা দ্ৰান্ত বলিয়া প্ৰমাণিত হইলে, আমাদের চেয়ে বেশী রিয়া প্ৰতিনিধি উপস্থিত থাকিবেন যে প্রতি- আনন্দিত কেহ হইবে না নিধির সংগ্রাতেই বাংলাদেশ প্ৰথম শ্ৰেণীর প্রদেশ মধ্যে সিমলার মন্ত্ৰণাসভার আলোচনার বিষয় ঠিক কিরাপ গণিত হয় নাই, তাহ নহে মা জ, বোপাই, আগে। তাহা না জানায় এখন কিছু লিথিলাম না। সভার রিপোৰ্ট অযোধ্যা, পাব, বিহার-ওড়িশা ও মধ্যপ্ৰদেশ হইতে বাহির হইবার পর আবশ্যক হইলে কিছু লিখিব প্রতিনিধি লওয়া। ইয়াছে ; আসামের সাৰ্ব্বজনিক কাজে ভারতনারী । তিনিধি রায় ঘনশ্যাম বঢ়া বাহাদুর বি-এলঃ বোধ হয় দয়কী কৰ্ম্মচারী নহেন বাংলাদেশ হতে কোন আমরা কিছুদিন হইতে লক্ষ্য করিয়া অাসিতেছি যে সেৱকারী প্ৰতিনিধি গ্ৰহণ করা গবৰ্ণমেণ্ট উচিত বা সাৰ্ব্বজ্ঞনিক কাজে অৰ্থাৎ দেশহিতকর কাজে বাঙালী নারীরা বশ্যক বোধ করেন নাই। কি কারণে কোন প্ৰদেশ অন্য কোন কোন প্রদেশের নারীদের চেয়ে পশ্চাৎপদ । কম, কোন প্ৰদেশ হইতে বেশী ওয়া হইল, একটা মত বা ধারণ মাত্ৰ নহে । দক্ষিণ-আফ্ৰিকা-প্ৰবাসী রী প্ৰতিনিধিই বা কোন কোন প্রদেশ হইতে বিপন্ন ভারতবৰ্ষীয়দের জন্য বাঙালী নারীরা কয়জনে মিলিয়া কোন লওয়া হইল না। কটি সভা করিয়াছেন ও কত টাকা তুলিয়াছেন, ও ফিজিীপে কলেজ হইতে যে-সব বাঙালী বাহির হইয়া নিজের নজের চুক্তিবদ্ধ কুলি প্রেরণক্ষপ দাসত্ব বন্ধ করিবার জন্য বাঙালী বিষয়কৰ্ম্মে প্ৰবৃত্ত হইয়াছেন হাণের মধ্যে, এবং এমন নারীরা কি আন্দোলন করিয়াছেন, এবং এই এই উদ্দেশ্যে কি শিক্ষাদানকাৰ্য্যে নিযুক্ত বাঙালী ও প্ৰলোকদের অন্ত কোন কোন প্রদেশের নারীরা কি করিয়াছেন, তাহা শিক্ষাবিষয়ক নানা প্রশ্ন ও সমস্যা সম্বন্ধে রোেপ ঔদাসীর রণ করিলেই আমাদের কথা সত্য বলিয়া বুঝা যাইবো ইহা দেখা যায়, তাহাতে আমাদের ক্লেপ অভিনে ক | ভাণি না হয় দু দেশের ব্যাপার আমরা নিজে জানি, বাংলা দেখাইবে না যে বাংলাকে মাতা বোম্বাইয়ের সমশ্ৰেণী দেশেরই দুৰ্ভিক্ষ নিধারণের জন্য বোম্বাইয়ের মহিলারা যত করায় বাংলার প্রতি অবিচার হইয়াহে নতুবা টাকা কহ কৰিয়া পাঠাইয়াছিলেন, বাঙালীর মেয়েরা তাহার রেীতে পণ্ডিত ও ইংরেজী শিপাইতে সুদক্ষ বিস্তর বাঙ্গালী দশ ভাগের একভাগ টাকাও দেন নাই। পল্লাবের শিক্ষিতা থাছেন ; হারে কাহারও সাহাঘা লাইতে পারিতেন । কোন কোন মহিলা বালিকাদের শিক্ষার জন্য ভারতম করার জন্ত যতটুকু অপায়ন দরকার, এবং পাস কর ক্তত কুরিয়া অৰ্থ সংগ্ৰহ করিয়াছেন । বঙ্গের কেহ সোপ গেলে সময় কাটাইবার জন্য লঘু সাহিত্য পাঠ যতটুকু করেন নাই । সমাজসেবার অন্য কোন কোন বিভাগেও সাবওক, তাহা বাদ দিলে, আজকাল কাৱ বাঙালীরা বিদ্যা এইরুপ অনেক দৃষ্টান্ত দেওয়া যায়। এই প্ৰভেদেয় অনুশীলনে ভারতবর্থের শ্ৰেষ্ঠ . ই ; মে সব প্রদেশের কারণ কি ? কেরা প্ৰথমস্থানীয়, বঙালীর তা হাদেও অন্তৰ্গত নহে ইহা জাতিগত নহে কারণ, সম্প্ৰতি ২১ বৎসর আমাদের কথা মিথ * কবিৰার জন্য সাহিত বাঙালী পুষেরা সাৰ্ব্বজনিক কাজে ঔদাসীন্য বা সাহসের বিজ্ঞান দৰ্শন ইতিহাস অভাব দেখাইলেও, মোটর উপর তাহারা অন্য কোন ৗঢ় বাঙালীর নাম অওড়ালে চলিবে এই গোড় প্রদেশের পুনের চেয়ে কম অগ্রসর ন ড়ি খাড়ায় আর কতদিন চলিব ? উঠতি বয়সের বাঙালীর শিক্ষার অভাব ইহার আংশিক কারণ হইতে পারে, বিদ্যার নানা বিভাগের নূতন নুতন বহি কত ক্ৰয় করেন ও কিন্তু একমাত্ৰ কারণ নহে। প্ৰধান কয়েকটি প্রদেশে শ্ৰী এবং অন্য প্রদেশের ঐ বয়সের লোকেরাই বা কত শিক্ষার অবস্থা এইরুপ :—বঙ্গে হাজারকরা ১১ জন খ্ৰীলোক কিনে পড়েন, তাহা জানিবার উপায় থাকিলে আমাদের লিখিতে পড়িতে পারে, বোম্বাইরে ১৪, মাঙ্কাজে ১৩, পঞ্চাৰে খাৱ যথাৰ্থতা প্ৰমাণিত হইত। যাহা, হউক, আমাদের , আগ্ৰা-অযোধ্যায় ৫ । নারীদের মধ্যে ইংরেজী শিক্ষার