পাতা:প্রবাসী (সপ্তদশ ভাগ, প্রথম খণ্ড).pdf/৪০২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৬৫০ প্ৰবাসী— আশ্বিন , ১৩২৪ [ ১৭শ ভাগ, ১ম খণ্ড ৬ষ্ঠ সংখ্যা ) বিবিধ প্ৰসঙ্গ—কংগ্ৰেসের আগামী অধিবেশন অন্যত্ৰ করিবার চেষ্টা ৩৫১ শাসন লাভ, সে-কথাও এ বৎসর নূতন করিয়া উঠিতেছে আপনাদের প্রতিনিধিত্বপে নিৰ্ব্বাচন কবিয়া পাঠাইয়াছে । ছে কঁঠাল, গোফে তেল । আছে, তাহা অৱশ্য ব্যক্ত হয় নাই। সকলেই জানেন ৫ সালে মহামতি গোখলে কাশীর কংগ্ৰেসে তাহাদের নাম মিষ্টার মাকণীনেস ( Mr. Macginnes } এক এক প্ৰদেশের ও জেলার কৰ্ত্তাদের হাতে স্তর ও লোভ বলেন, ১৯৯৬ সালে মহাত্মা দাদাভাই নওরোজী স্বরাজের এবং মিষ্টার ডি ভেলের de Vether ভারতসচিব মণ্টেও ভারতবর্ষে আসিতেছেন বলিয়া বাংল দেখাইবার কত উপায় আছে। দেশহিতৈষীয়া জাগুন, দাবীর সম্পূৰ্ণ বিবৃতি করেন। ১৯০৫ এর আগে একথা উঠিয়া দেশে বিনা বিচারে এত লোকের স্বাধীনতা গাছে, তথার কে যেন খুব বেশী আশ্বস্ত হইয়া না পড়েন । তিনি বুকের পাট বড় কঙ্গন, বৈধ উপায়ে স্বরাজ লাভের চেষ্টা থাকিবে, কিন্তু সে বিষয়ে ঠিক কিছু এখন মনে পড়িতেছে সেই রকমে নিগৃহীত এক-চনের কংগ্ৰেসের সভাপতি ভারতসচিব হইবার অল্পদিন আগেই পালেমেণ্টে মেসো না। যেসব বিদেশী এ পৰ্য্যন্ত কংগ্ৰেসের সভাপতি হইয়াছেন, নিৰ্ব্বাচিত হওয়ার একটা যথাযোগাতা আছে পটেমিয়া কমিশনের রিপোট উপলক্ষ্য করিয়া ভারতবর্থের মণ্টেগু যখন ভারতবর্থের লোকদের প্রতিনিধিসমিতি তাহাদের বিক্লান্তে এবং রামজে ম্যাকডন্যাস্তের বিরুদ্ধে প্ৰণালী সম্বন্ধে যে বক্ততা করেন, তাহাতে, ভারত- সমূহের এবং প্ৰধান প্ৰধান লোকদের কথা শুনিতে চাহি আমাদের গৃহবিবাদ ও এংলো-ইণ্ডিয়ানদের আমাদের আপত্তি রেপ খাটে, মিসেস বেসাটের বিরুদ্ধে | বন্ধ ৈ লোকদের কাছে ভারত গবৰ্ণমেণ্টকে দায়ী করা বেন, তখন তাহার নিকট নিঃশ্বাৰ্থ স্বাধীনচেতা লোকদের তপ খাটে না। কারণ, তিনি ভারতবৰ্ষকে নিজের উচিত, বলিয়াছিলেন এবং তারতবাণী িদগকে অনেকটা মত যাহাতে না পোছে, দিয়ে বিধিমত চেষ্টা হইবে বাসভূমি করিয়াছেন, ভারতবাসীদের পক্ষ সম্পূৰ্ণস্কপে বঙ্গে দলাদলি হওয়ায় এংলো-ইণ্ডিয়ান কাগজগুলার বড় স্বায়ত্তশাসন-ক্ষমতা দেওয়া কৰ্তব্য বলিয়াছিলেন বটে ; কিন্তু প্ৰতিনিধিসমিতিসমূহের সভ্যদের মধ্যে গবৰ্ণমেণ্টে পা অবলম্বন করিয়া রাজশক্তি দ্বারা দণ্ডিত হইয়াছেন, এবং সুখ হইছে। তােহাৱা মডারেটদিগকে খুব ভাল ছেলে বলিয়া এক্সপ বক্ত, তা হইতেও বেশী কিছু আশা করিবেন না। তিনি কটাক্ষভিখারী অনেক লোক আছে তাহারা আমাদের ভারতবৰ্ষ যদি স্বাধীন হইত ও এখানে বিদেশীকে দেশী- সাৰ্টফিকেট দিয়া তাহাদিগকে অন্তদলের লোকদের সঙ্গে ) ত একজন একচ্ছত্ৰ স্বয়ংকৰ্ত্তা সম্ৰাট্‌ নহেন, যে, যাহা ইচ্ছা দাবীটাকে খুব কমাইবার চেষ্টা কৱিবে । এখন হইতে করণের আইন থাকিত যাহাকে naturalisation সমস্ত সম্পৰ্ক ছাড়িয়া দিতে ও স্বতন্ত্ৰ কংগ্ৰেস করিতে উৎ তাহাই করিতে পারেন ভারতবর্থের গবৰ্ণমেণ্টসকল, সতৰ্ক থাকিয়া ইহা বন্ধ করিতে হইবে। দেশভক্ত সত্য বলে, তাহা হইলে তিনি দেশীকৃত ভারতীয় অর্থাৎ mat সাহিত করিতেছে । আমরা কিন্তু অাশা ছাড়িতে পারিতেছি হার নিজের মন্ত্ৰণাসভা, পালেমেণ্ট, প্ৰতি দ্বারা দিগকে ইহা করিতে হইবে। প্ৰধানতঃ গবৰ্ণমেণ্টের led Indian হইতেন, যেমন আমেরিকা সুধীন্দ্ৰ বসু, যে, এখনও সব দলের সন্মিনিত কংগ্ৰোস হইবে, অনেক বাধা পড়িবে । তা ছাড়া, তিনি ভারতসচিব হইবার ধামাধৱা অনুগ্ৰহভিখারী সেলামৰাজ লোকদিগকেই দেশের অক্ষয় মজুমদা, সখারাম গণেশ পণ্ডিত, তারকনাথ দাস যদিও তাহার সম্ভাবনা দিন দিন খুব কম হইয়া যাইতেছে আগে যাহা বলিয়াছেন, পদ পাইবার পরে তাহা যে করিতে প্ৰধান লোক বলিয়া মণ্টেণ্ডর কাছে হাজিয় করিবার খুব প্ৰভৃতি দেশীকৃত মাৰ্কিন ইয়াছেন । বিদেশীকে স্বদেশী এংলোইণ্ডিয়ান কাগজগুলা বলিতেছে, তোমরা যে চেষ্টাও কয়িবেন, নিশ্চয় করিয়া, এমন বলা যায়ন তাহাৰ চেষ্টা হইবে । শ্ৰীযুক্ত ভূপেন্দ্ৰনাথ বসু মণ্টেগু সাহেবের করিবার স্নীতি ও নিয়ম সব জীবন্ত জাতির মধ্যে আছে। এত দলাদলি চীৎকার চলা গড়া করিতে, শাস্তশিষ্ট অপেক্ষা খ্যাতিমান ইংরেজ রাজনীতিজ্ঞও তােহা করেন নাই সঙ্গে থাকিয়া ভাষাকে নানাস্থানে ইয়া বাইবেন । মানুষ আমাদের মধ্যেও পরে নিশ্চয় হইবে। স্বাধীন দেশ-সকলে ভাবে সভার কাজ করিতে পারিতেচ্ছ না, ইহার ধারাই বা পারেন নাই। ইহাও মনে মাখিতে হইবে, যে, ওকালী হাজার ভাল হইলেও অনেক সময় নিজের গীর দেশজাত ও দেশীকৃত মানুষদের দায়িত্ব ও অধিকার বুঝা যাইতেছে যে তোমরা স্বরাজের বা জাতীয় আহ্মকৰ্ত্তত্বের বা ব্যাষ্টিায়ী করিবার সময় কেহ কোন মঞ্চেলের সপক্ষে সঙ্কীৰ্ণতা ছাড়াইয়া উঠিতে পারে না । সুতরাং ভূপেন্দ্ৰ বাবু । আমাদের দেশে তাহাই হওয়া উচিত। ২ ) । অযোগ এরুপ কথা শুনিলে আমাদের হাসি পায় যে-সব কথা বলেন, বা অপর পক্ষের বিদ্ধে যাহা বলেন, যদি রাজনীতিক্ষেত্রে তাহারা বিপক্ষদলের লোকদিগকে দ্বিসে বেসান্টকে সভাপতি করার বিরুদ্ধে আর-একটা পাশ্চাত্য স্বাধীন দেশসমূহে রাজনৈতিক আন্দোলন বিচারকের জাসদে সিলেও রায়ে ঠিক সেইক্লপ কথা বখাসুধা বাদ দিতে চেষ্টা করেন, তাহা আশ্চৰ্য্যর বিষয় আপত্তি এই হইয়াছে, যে, তিনি গবৰ্ণমেণ্ট কৰ্ত্তক নজরবন্দী আলোচনা ও তৰ্কবিতৰ্কের নামে যে-সব বৰ্ব্বরতা, অসভ্যতা বলিবেন, ইহা ত কোন বুদ্ধিমান লোক মনে করে না হুইবে না ;—যদিও এক্সপ আশা করা অসঙ্গত নহে যে তিনি ইয়াছেন ; সুতরাং তঁহাকে সভাপতি করিলে ঠিক যেন ও গুণ্ডামি হয়, তাহা কি আমরা জানি না ? তাহাতে স্ত শক্তিপৰীক্ষার জন্য সরকা বাহাদুরকে শ্বযুদ্ধে আহবান তাহাদের স্বাধীনতার যোগ্যতা প্ৰমাণিত হইয়াছে বলিয়া নিশ্চিন্ত থাকিবেন না। কথা খুব কুন ন, কংগ্ৰেসের আগামী অধিবেশন অন্যত্ৰ করা হইৰে । অামাদের তাহা মনে হয় না । তাহাবু ও কোন পাশ্চাত্য জাতি স্বীকার করে না ? আলোচনা আন্দোলন করিতে থাকুন। উপলক্ষ্যে ভারতের -সৰ্ব্বঞ এত প্ৰতিবাদ-সভা যদি দ্বন্ধুদ্ধে আমরা এমন হাস্যকর কথাও অবশ্য বলি না যে ভারতবর্ষে এখন রাতৃত্যত বা আমলাতন্ত্ৰ প্ৰতিষ্ঠিত করিবার চেষ্টা আহান না হয়, তাহা হইলে হাব নিৰ্ব্বাচনটাই আমাদের আমাদিগকে গণতা বা জাতীয় আত্মকতৃত্বের যোগ্যতা রাজভৃত্য বা আমলারা নিজেদের ক্ষমতা সহজে ছাড়িবেন পুৰ্ব্বেই লিখিয়াছি, বঙ্গে দলাদলি দেখিয়া কংগ্ৰেসের একটা অমান্তৰ্দ্দনীয় অসম্পৰ্দ্ধা বলিয়া বিবেচিত না হইতে লাভ করিতে হইলে গুণ্ডামির ব্রিটিশ আদৰ্শ বা যান কেন ? শুনিতেছি, তাহাদের মধ্যে সৰ্ব্বোচ্চ আমাদের আগামী অধিবেশন মাদ্ৰাজ বা বোম্বাইয়ে করিবার চেষ্টা পারে। ইংরেজ জাতি এরুপ ব্যাপারে অভ্যন্ত । রাজনৈতিক (British standard of roadlyism সমুখে রাথিয়া নিকট হইতে প্রদেশে প্রদে লা জেলায় গোপনে হইতেছে। এই চেষ্ট বঙ্গের কোন ফোন নেতার প্ররোচনায় অপরাধে দণ্ডিত একাধিক ব্যক্তি পালেমেণ্টের সভ্য তদনুসাবে চবিত্ৰ গঠন করিতে হইবে । শাস্তশিষ্ট ভাবে উপদেশ ও আদেশ আঁসিয়াছে যে তাহারা যেন, প্ৰকাণ্ড বা তঁহাদের জ্ঞাতসারে হইতেছে কি না জানি না , কিন্তু নিৰ্ব্বাচিত হইয়াছেন । তাহা নিৰ্ব্বাচকদের একটা অপরাধ গাম্ভীৰ্য্য ও ভবাস্তা রক্ষণ করিয়াই সব সাৰ্ব্বজনিক কাল নিগ্ৰহ ছাড়া আর-সব প্রকার উপারে, লোকদিগকে স্বরাজের সন্দেহের কারণ আছে। কারণ এখানে কে-কেহ মিসেস বলিয়া গণিত হয় নাই। এই সেদিনওঁ আইগ্নিশ ন্যাশন্তাষ্টিরা করা উচিত, তাহাতে সন্দেহ নাই । কিন্তু যে-সব লোক দাবী হইতে নিরস্ত করেন। হোমৰূল সম্বন্ধে একটা সাৰ্কলার বেলাণ্ট যাহাতে সভাপতি নিৰ্বাচিত না হন, জন্য কোমর পনাদের চেয়েও উৎকট স্বাধীনতাপ্ৰয়াসী দুজন সদ্য পাশ্চাত্যদেশের অপষ্ট নমুনা, তাহারা এক্সপ উপদেশ দিতে যে সমস্ত প্ৰাদেশিক গণমেণ্টের নিকট আসিয়াছে, তাহা বাধিয়া লাগিয়াছেন । । মান্দ্ৰাজে বা বোম্বাইয়ে কংগ্রেস করিলে দেখালাসী শিনফেন দলের বিদ্ৰোহীকে, পালেমেণ্টে পারে না । বড়লাটের যোগিলে স্বীকৃতই হইয়াছে। তাহাতে কি … তাহাদের এই উদ্বে সহজে সিদ্ধ হয়। যিনি যে প্রদেশের W