পাতা:প্রবাসী (সপ্তদশ ভাগ, প্রথম খণ্ড).pdf/৯২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


১৩৪ প্ৰবাসী জ্যৈষ্ঠ, ১৩২৪ ১৭শ ভাগ, ১ম খণ্ড লিবার আছে তাহা দেখিলাম এইবার, নরনারীর প্ৰেম নিৰ্ব্বাপিত, পরিসমাপ্ত হয় তারপর মনের সঙ্গে মনের ৈ সঙ হার কি বলিবার অাছে তাহা দেখা যাক । যোগ-তাই বা থাকে কোথায় ? মনও যে কত অবস্থা এখানেও ঐক্যই আপনাকে দ্বন্দের বেদনার ভিতর দিয়া পৰ্য্যায়ের উপর নিৰ্ভর করে। সেইসকল অবস্থাপনায় যখন ইয়া চলিয়ছে, ইহাই কৰি বলিতে চান। শৈশবে, ঐক বিপৰ্য্যস্ত, যখন নুতন অবস্থা তন চেতনায় মনকে ভরি ীেবনে দ) এবং প্ৰেম সেই শ্বের সমাধান পুলিয়া ফিরে । তোলে, তখন সেই মনের পূৰ্ব্ব যোগের স্মৃতির সূত্ৰ কে আৰু একটি কবিতায় কৰি বলিতেছেন, “শৈশবের দিনে তুমি , টানিয়া চলিবে ? কিন্তু আৰাৱ যোগ ? হুঁ, সেই যোগ আমি ত পৃথক ছিলাম না—তোমার আমার জগয়ে হৃদয়ে চিরন্তন। কিন্তু সে যে ক্ৰমাগত বিয়ােগের ভিতর দ্বিচ্ছ একই প্ৰাণের নিশ্বাস নিশ্বসিত হইত ; সহসা সেই যোগ এই জগতে, এই জীবনেই তাই প্রেনের বিদা প্ৰাণের ইজাল ফুরাইয়া গেল প্ৰন জাগিল, সেই-ৰ সাণ বহুবার স্বয় প্রেমের বিয়োগাবস্থা হয় –পূর্বত পুরাতন স্বর মিলাইয়া গেলা । অার অতিমানৰকে আমরা যোগাবস্থার জন্য । সে এক পারে, এক অ্যাপারেই হয় না জানিলাম না, এখন হইতে আমি জানি আমি মানব এ Ah ! and 1 must go তুমি মানবী। No এই যে পথ ও বিচ্ছে, এই যে একের জন্য অন্তের h other gath red, bh scalled by the Lone One on er loc; প্ৰবল অকাম, ইজিয়ের জন্য ইন্দিরে কাম, মনের জন্ত অনায় সৰ্বগু সঙ্গিনী, কামরা ভি ভি পথে চলিব মনের টান, আবার জন্য আত্মার সাকুলতা—যুগলের এ সে সকল মহিম। তামানের নয়, তাকে স্নামেরা গাৱয় হইতে আকাজা মিটে কেমন কবি ? যুগলের এ দ্বন্ গুচে সংগ্ৰহ কবি মাই একক এ, তিনিট একক সাধকে মনে এক সীপ্তি কেমনে? এখানে তো দেহের পাওদায় প্ৰাণের পাওয়া হয় কিন্তু সেই প্ৰ না, নিকটে পাওয়া দুরের পাওয়া হয় না দেহের টন for le it eart', new |he বরং আমার টানকে দূর করে। দেই সময় হইয়া উঠে y drop dissolves in diamond is heet tº a deep rc in another day. কৰি তাই At one’ নামক একটি কবিতায় বলিতেছেন goodnight, gººd nigh নিজের জন্মই ...য় অ নেক ক্ষু করিতে হয়, হাত প্ৰমে মধু, যদিও আমরা দূরে অ্যাডি, তবু কথাৎ তোমার কাগ তাহা হইবে কাদীয় কে এক অঞ্চ উৎসে উলিয় উঠে কথনে । তোমার এ নির শেষ বৰ্ণবি-পুটি যখন হীকের ও আলো দিলাইয়া যাইবে সি দাদার অন্তরে সোমাৱ কিরণে লসিরা পড়ে । শুন আরেকদিন আরেক নিবিঢ়তর পরিচ্ছদে হত আমরা বিধিৰ সেই গুপ্ত উৎসের উপর কি? কান স্থানে কাহ সাদরের কথা সেই পরঃ প্ৰতু না স্বাস পর্যন্ত, হে প্রিামে, বিদায় । বিদায় পাঠাই - যদি কাছে পাঞ্চি , বাষ্টেৰে ধৰা তি, কি মন অদ্বৈত মাত্মতত্বে যুগলের দ্বৈততত্ত্বের স্থান থাকে না; দল হয়ে এমন মধুৰ বাণী বলিতে পারিতাম যে সব কৱি দুয়ে পাধিলেই তোমার প্রেদের স্থা কারণ, দ্বৈত সত্য ন। কিন্তু সুগল প্রোমের মত মানুহে তাই তুমি কা২ে এ । চাই ন শ নের এ একটা সত্যকে মাৱ বলিয়া উড়াইয় যে সত্য মাময়া মিণি—যে কৃতা বিলুপ্ত হয়—কি জানি তোৰা না, তোমা ও দি তাহলেই দেওয়া কোন মতেই চলে ন গল প্রেমের বিচ আছেই, কিন্তু তাই পূৰ্ণতর ঐকোরই প্ৰতীগণ রাগে শুধু যে এই দুয়ের লীলা গ্রেনের নিবিড়া মে, তাই মুগল আ ম সম্পূৰ্ণতার দিকে অগ্রসর হইতে হইতে, একৰি ময়। আবার যে স্বাতা আছে এক স্নাত্মার জীবনের সেই পৰে প্ৰাধে, আত্মা পূৰ্ণভােৱই পৱন প্ৰভু, গতি অন্ত আত্মার জীবনের গতির সঙ্গে কখনই সমান নয় রায় মিলিত হইবে—কবি এই আশ্বাস দিয়া তাহার প্ৰে কত অভাবী পথে, কত সুখছাথের ভিতর দিয়া, হয়ত কবিতাট শেষ শুরিয়াছেন দান্তে ও ব্ৰাউনিং ভিন্ন স্বা লকেদোকান্তরে আত্মা যাত্ৰা কোন কবিই প্রোমের এত বড় আশ্বাসবাণী আমাদিকে করিবে | শুদ্ধযাত্র এই শীরের যৌনপ্ৰবৃত্তির কণিক নান নাই ীআতিকুমার চক্ৰী আকৰ্ষণ সেই মহাকালের মহাৰাত্ৰা কোন ক্ষণের মধ্যেই ২য় সংখ্যা ]] রশিক্ষা কেমন ছিল ? রশিক্ষা কেমন ছিল ? এ হেন সুন্দর স্থানে জানাকে ইয়া আসা হুইল প্ৰথমে তাহাকে একশো বা কোড়া মারা হইৰে । কোমল ছবি প্ৰাণ একটি মেয়ে শুধু বেতের ঘায়েই তা প্ৰাণ বাহির (সঙ্গল দিন। সেপিটাসবাৰ্গের নাময় পুখ হওয়া আণ্য নয় ; তারপর যথন জেল-দারোগা তায় সহসা পিস্তলের শব্দ হইল এক সশস্ত্ৰ সুবেশ মণ্ডিত গায়ের আবরণ টানিয়া , ফেলিয়া দায় এবং নিকটবৰ্ত্তী সুৰুষ সৈনিক কৰ্ম্মচারী বুকে গুলি খাই পড়িয়া গেল । কশাককে তার দুই হাত পিছন দিকে টানিয়া বাধিবার হুকুৰ লি যে চড়িয়াছিল সে ধরা দিল। পাণাইবার কিছুমান দায় - তখন, তখনও সে বঁাচে কেমন করিয়া ! চেষ্টা করিল না তার নাম অ্যান৷ সাহসী অ্যানা দারুণ দুণার অপমানে ভয়ে দুই হাতে সে সুন্দরী। সৰ্ব্বাঙ্গে তার. যেীবনের হিল্লোল । মুখ মুথ চাকিয়া ভূমির উপর হাটু গাড়িয়া বলিয়া পড়িলা। তায় খানি বড় কচি, হাত দুখানি ফুলের মত চোখ আকাশের সৰ্ব্বাঙ্গ থৱধা করিয়া কঁাপিতে লাগিল। মেল-জারোগ। তাহার যত নীল, ধল্প সুৰ্য্যাস্তের মত বৃক্তিম । লাবন্ধটা টানিয়া ফেলিয়া দিল। অ্যান৷ এমন চীৎকার এ ও এমন কাজ করিতে পালে? সকলে অবাক ইয়া করিয়া উঠিল যেন জ্বলন্ত লোহা তার দেহ পৰ্শ করিয়াছে ভাবিতে লাগিল জা-দারোগা ডাকিয়—টোবোগা । অ্যানায় মন ভুলাইয়া সৰ্ব্বস্ব চরণ করিয়া ৰে তাহাকে কশাকের দল হইতে একজন কশাক সুখে ফাসিয়া কাপুরে মত ত্যাগ করিা তাহাকে দাড়াইলে । অ ন, তাহাকে দেখিয়া দুই হাত দিয়া প্ৰাণপণ করা বা বলে বুকের কাপড়, চাপিয়া ধরিয়া হিল তাইতো আনা এমন কাজ কম্বিাছে ওর হাত চটো ধয় বাহাই হেীক আঘাত শুরুতর হয় হ, সে-বাবা সেনা হুপিয়ার, বেন না কামড়ায় !" নীয়ক বাচিয়া গেল জজেরা দা করিয়া অ্যানাকে কশাক বহুমুষ্টিতে অ্যানার তুষারধবল পুখফোমল কেবলমাত্ৰ একশো গা ধেত মারিতে হুকুম দিলেন হাত দুখানি চাপিয়া ধৰিল । বেত খাইয়াও যে বাচিা থাকে তাহাকে সাবিরিয়ায় অ্যানা হাত ছাড়াইবার চেষ্টা করিল না। জীবন্ত কবর দেওয়া হয়—সভা ইউরোপেৰ সঙ্গে তার অ্যার কৰুণ চোখ দুটি তুলিয়া সৈনিকের চোথের উপর রাখিল কোনো সংশ্ৰব থাকে না। কশাক যুদ্ধ হইয়া দেখিতে লাগিল। সেই সুন্দর চোখের বদনাভা মিনতিভরা চাহনিতে বনের পশু বশ হয় সুন্দরী আনা শুনিল কালে পৃষ্ঠে একশো গা কোড়া কণাক তো কোন ছাত্ৰ ? গাইবার পরও যদি সে বঁাচিয় থাকে তবে তাতাকে কোপাল জেয়া-দারোগ পুনরায় যখন অ্যানার পোশাকে হাত দিলা দুৰ্গে নিৰ্বাসিত করা হইবে সেখানে গান্ধব অনেক আছে, টোবাগো ীিয়া উঠিল ওকে ছোবেন না, ছোবেন না, করিলে সে বিবাহ কৰিয়া ঘরসংসাবও পাতিতে পাতে অামি ওর অন্ধক শাস্তি নেব এই কোপাল দুৰ্গ মা-এদিয়ার এক সমুজ পা জেল দরোগী যেন আকাশ থেকে পড়িল । দিজাসা ধারে অবস্থিত । আশে-পাশে দিগন্তস্থিত নব-প্ৰান্ত, বৃক্ষ করিল—“কোন অধিকারে আমি ওকে বিন্ধে করবো। আপনি তো জানেন এক ফোটা জল মিলিবে না। দুৰ্গমধ্যে রাশ সেনানায়ক ও স্বামী হীর শাস্তির ভাগ নিতে পারে ঠর সৈনিকেরা থাকে বৎসরে কেবল দুবার কশাক “ঠিক কথা আচ্ছা জামা খোলো । এর জন্তে অনেক অগারোহীর দল কোপালের আদিবাসীদের স্থা—আহাৰ্য্য, দুঃখ পেতে হবে, মনে থাকে যেন মা ও চিঠিপত্ৰ আনিতে যায় । টোবোরগা কোমর” পৰ্য্যন্ত অনাবৃত কলি । তার তৃণপত্ৰ কিছুই নাই। চোশের পর জোশ চলিহা যা