পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/১০৫৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


এতক্ষণে বেশ ফসর্ণ হইল। গহিণীরা জাগিলেন, বাড়ীর সকলে জাগিল ; সকলে ব্যাপার কি জানিবার জন্য ছোটবউকে ঘিরিয়া বসিল। বড়কত্তার আশ্বাস সত্ত্বেও, বকুনি যে তাহাকে একেবারেই খাইতে হইল না এমন নহে। ক্ৰমে প্রকাশ পাইল, গত দিবস বিকালে মুখুয্যেদের মনোরমা এবং কুঙ্কুম, দুজনে আম খাইবার জন্য গোহালের পশ্চাতে মই লাগাইয়া ছাদে উঠিয়ছিল। গোটাকতক আম খাইয়া মনোরমা নামিয়া যায়, কুঙ্কুম বলে, এই আমটা খেয়ে নামছি। নামিবার সময় সে আর মই পায় নাই। লড়জায় কাহাকেও ডাকিতেও পারে নাই। গাছের অনেকগলা ডাল, ঘনপল্লব ও প্রচর ফলের ভারে অবনত হইয়া গোহালির ছাদ প্রায় পশ" করিয়াছে। ডালপালা সরাইয়া ছাদের সে কোণটায় কেহ গিয়া বসিলে, নিনের লোক তাহাকে দেখিতে পায় না। যতক্ষণ আলো ছিল, ততক্ষণ কুকুম সেই আম-ঝোপের ভিতর লকাইয়া বসিয়া ছিল। বেশ অন্ধকার হইলে, অ বার ডালপালা সরাইয়া বাহির হইয়া খোলা ছাদে আসে। অনেক রাত্রি অবধি সেখানে চাপ করিয়া বসিয়া থাকিবার পর, শেষে ঘমাইয়া পড়িয়াছিল। জেরায় ইহাও প্রকাশ পাইল যে শধে কুকুম ও মনোরমা নহে, এ বাড়ীর অন্যান্য মেয়ে ও বধরাও মাঝে মাঝে এইরাপভাবে ছাদে উঠিয়া গোপনে আমভক্ষণ করিয়া থাকে। তবে এদিন যে কুঙ্কুম ও মনোরমা আম খাইতে গিয়াছিল, একথা তাহারা জানিত না । জ্যোতিষী মহাশয় কলিকাতা দজিজপাড়ার কোনও ক্ষুদ্র দ্বিতল বাটীর একটি কক্ষে, সন্ধ্যার প্রাক্কালে, মণ্ডিত-গল্ফেশমশ্র প্রৌঢ়বয়স্ক কৃষ্ণকায় শ্ৰীযক্ত কমলাকান্ত জ্যোতিবিদ্যামহাণব মহাশয় বসিয়া ধমপান করিতেছিলেন। গহিণী ও কন্যারা নিনতলে গহকাযে ব্যস্ত, ছেলেরা ফুটবলের ম্যাচ দেখিতে গিয়াছে। জ্যোতিষী মহাশয় একাকী বসিয়া ধমপান করিতেtছন, আর আকাশ-পাতাল চিন্তা করিতেছেন। আজ প্রায় কৃড়ি বৎসরকাল এই কলিকাতা সহরে তিনি জ্যোতিষ প্রাকটিস করিতেছেন, কিন্তু এমন দাবৎসর কখনও হয় নাই। খবরের কাগজে তাঁহার বিজ্ঞাপন ছাপা হইতেছে—সে সকল বিজ্ঞাপনের বিলের তাগাদায় তিনি অস্থির,—কিন্তু কি আশ্চযর্ণ, একটি কোটী প্রস্তুতের অডারও আসিতেছে না। গরদ পরিয়া, কপালে রক্তচন্দনের ফোঁটা কাটিয়া, তিনি তাঁহার বোরলান সাইনবোড়ের ঘোষণা অনুসারে প্রতিদিন প্রাতে ৭টা হইতে বেলা ১০টা পৰ্য্যন্ত বৈঠকখানায় বসিয়। হত্যা দিতেছেন, কিন্তু একটি লোকও হাত গণাইতে আসিতেছে না। বাড়ীর ভাড়া, ভূত্যের বেতন, বিজ্ঞাপনের বিলের অনেক টাকা বাকী পড়িয়া গিয়াছে ; প্রতিদিনকার বাজার-খরচ চলাই কঠিন, এখন কি উপায় করিলে কিছয় টাকা আসে, এই চিন্তাতে তিনি মহামান ছিলেন, এমন সময় নিমন হইতে শব্দ উত্থিত হইল—“জ্যোতিষী মশায় বাড়ী আছেন ?” শ্রবণমাত্র, হকাটি দেওয়ালের কোণে ঠেস দিয়া রাখিয়া, জ্যোতিষী মহাশয় উঠিয়া দাঁড়াইলেন ; সন্তপণে রাস্তার ধারের বারান্দায় গিয়া, চিক ফাঁক করিয়া লোকটকে দেখিলেন। বুঝিলেন বাড়ীওয়ালার লোক নহে, বিজ্ঞাপনের বিল আদায়কারী বারবানও নহে—মক্কেল হইলেও হইতে পারে। তখন নিভয়ে হকিলেন—“কে ও ?” নিন্ন হইতে বর উত্থিত হইল, “জ্যোতিষী মহাশয় বাড়ী আছেন কি? তাঁর কাছে একটা দরকারে এসেছি।” “आझा माँछान"–गिजब्रा बाख्यौ भशश्नम्न झग्ने काब्रग्रा डाँशब्र भट्जत श्रृङ्घीउ झाफूा . ১২৫