পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/১০৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


তুমি।” কিন্তু এত কালের মমতা, ধীরে ধীরে স্ত্রীর দিকে অগ্রসরও হইলেন। মাখ হইতে হাত ছাড়াইবার চেষ্টা করিতে করিতে বললেন, “তা, এত কান্না কিসের?—এস এস, ধীরভাবে কথাটা আলোচনা করা যাক ৷” উষা কিন্তু সহজে অসিল না। অনেক সাধ্যসাধনা করিতে হইল। অবশেষে দুইজনের “ধীরভাবে” কথাবাত্তা আরম্ভ হইল। ব্ৰজবাব বললেন, “আর এক হস্তা মাত্র ত আমি দেশে আছি। আমি চলে গেলে, তুমি তোমার মার কাছে গিয়ে থাকবে ত?” উষা প্রবল ভাবে ঘাড় নাড়িয়া বলিল, “না।” ব্ৰজবাব বলিলেন, "তবে ? কোথায় থাকতে চাও তুমি ?” “কোথাও থাকতে চাইনে ৷” “বুঝলাম না।” “হয় আমিও তোমার সঙ্গে যাব, নয় তোমাকেও যেতে দেবো না। রেখে দাও তোমার ব্যক্তি-স্বাতন্ত্র্যের থিওরি। ও থিওরির মাথায় মারি আমি—যা দিয়ে ঘরকটি দিই তাই।” ব্ৰজবাব একটু দ্বিধায় পীড়য়া গেলেন। মৌখিক স্বামী-বিচ্ছেদবেদনা দেখাইয়া, স্বৈরিণীর স্বাধীনতা লাভের আনন্দকে ঢাকিয়া রাখার অভিনয় বলিয়া ত ইহা বোধ হইতেছে না! তাই তিনি বললেন, “হয় আমার সঙ্গে তুমিও বিলাতে যাবে, নয় আমাকেও যেতে দেবে না এই তোমার ইচ্ছা ? কথাটা কি সত্য, উষা ?” উষা বলিল, “আমাকে মিথ্যাবাদিনী মনে করার, তোমার কি কোনও কারণ ঘটেছে ?” ব্ৰজবাব বলিয়া ফেলিলেন, "ঘটেছে। ভেবে দেখ, এই দাতিন মাসের মধ্যে তুমি ’ কি আমাকে অনেকগুলো মিথ্যা কথা বলনি?” একথা শুনিয়া উষ্ণ একটু দমিয়া গেল। সে নতমখে বসিয়া ভাবিতে লাগিল, সম্প্রতি স্বামীর নিকট কি মিথ্যা সে বলিয়াছে। ব্ৰজবাব বলিলেন, “বল বল, চপ করে রইলে কেন ?” উষা ভীত ভাবে বলিল, “হ্যাঁ, দই একটা বলেছি বোধ হয়।” ব্ৰজবাব বলিলেন, “বলেছ। আচ্ছা, এখন আমি তোমায় যা যা জিজ্ঞাসা করবো, সমস্ত কথার সত্যি উত্তর দেবে কি ?” উষা বলিল, “দেবো। তুমি জিজ্ঞাসা কর আমায়।” ব্ৰজবাব বলিলেন, “সে দিন তুমি আমায় একটা গন্ধ দেখিয়েছিলে তার নাম নাকিস। সেটার দাম কি সত্যি সাড়ে তিন টাকা ?” উষা অবনত মুখে বলিল, “না, তার দাম ২৪, টাকা।” ব্ৰজবাব বলিলেন, “আচ্ছা বেশ। এবার সত্যি কথা বলেছ। আচ্ছা, তোমার এমন কোনও কাপড় গহনা আছে কি, যা আমি তোমায় দিইনি, এমন কি দেখিনি পৰ্যন্ত ?” উষা বলিল, “হ্যাঁ, আছে।” ”দেখাবে সে সব আমায় ?” ”আচ্ছা দেখাচ্ছি।”—বলিয়া উষা উঠিয়া, তাহার কাপড়ের আলমারি খলিয়া, একখানি সন্দের সাচ্চা জড়িপাড় শাড়ী বাহির করিয়া আনিয়া স্বামীর সম্মুখস্থ টেবলের উপর রাখিয়া বলিল, “আমার এই শাড়ীখানি তোমায় এখনও দেখাইনি।” ব্ৰজবাব সেখানি সপশও করলেন না। কেবল জিজ্ঞাসা করিলেন, “কোথাকার শাড়ী এ ?” “বেলেডাওগার।” “দাম কত ?” “এখানির দাম ত্রিশ টাকা ।” - ९é