পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/১১০৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ছিলে ; এখন সাহিত্যের এই নবযুগের আলো দেখে কিচির মিচির আরম্ভ করেছ।” আরও কত কি বলে। ভক্তের এই সনিবন্ধ অনুরোধ উপেক্ষা করিতে না পারিয়া, নগেন্দ্র উঠিল। সংশোধিত শটগুলির পত্রাঙ্ক মিলাইয়া, পিনে গাঁথিয়া, সন্ধীরের হস্তে দিয়া, সমানাথ প্রস্তুত হইতে লাগিল। সুধীর প্রফগুলি লইয়া প্রেসে দিতে গেল। li Ş ll নগেন্দ্রনাথের মতন উপন্যাস “সমাজদ্রোহী” প্রকাশিত হইয়াছে। সপ্তাহখানেক পরে, অফিসের ফেরৎ একদিন বিকালে নগেন্দ্র তাহার প্রকাশকের দোকানে আসিয়া দশন দিল। প্রকাশক মহাশয় তখন তাঁহার খাসকামরায় বসিয়া চা পান করিতেছিলেন, সংবাদ পাইয়া নিজে আসিয়া বলিলেন, “এক পেয়ালা চা দিক ?” নগেন্দ্র সম্মতি জানাইলে প্রকাশক মহাশয় হকিলেন, “ওরে, নগেনবাবকে এক পেয়ালা চা দে ; আর আমার জন্যেও অার এক পেয়ালা আনিস।” নগেন্দ্র জিজ্ঞাসা করিল, “সমাজদ্রোহী কিরকম বিক্ৰী হচ্চে ?” প্রকাশক বলিলেন, “বেশ টানছে । এই এক সপ্তাহ ত বই বেরিয়েছে। এরই মধ্যে প্রায় ২৫o গেছে। পুজোর মধ্যে ৪৫ শো কেটে যাবে বোধ হয় ।” শনিয়া নগেন্দ্রের মনটি পলকিত হইয়া উঠিল। জিজ্ঞাসা করিল, “লোকে কেমন বলছে ?” প্রকাশক বলিলেন, “তা—ভালই বলেছে। কিন্তু কেউ কেউ আবার বলছে, অন্য সব নগেন্দ্র একট শ্লেষের হাসি হাসিয়া জিজ্ঞাসা করিল, “রচিবাগীশ মহাশয়েরা বঝি ?” একট—অর্থাৎ—ইয়ে দলের। তারাই ত বেশীভাগ খন্দের কিনা। তারা বুলছে, মশাই, নগেনবাব ঐ যে গণিকা-চরিত্রগুলি একেছেন, ও সাফ কল্পনা। তাদের চাল চলন কি ঐ রকম, না তাদের কথাবাত্তা ঐ রকম রবিঠাকুরী ধাঁচের ? নগেন্দ্ৰবাব বোধ হয় জ্যাত গণিকার সঙ্গে কখনও কোনও কারবার করেন নি ; তাই তাদিকে এমন অদ্ভুত করে একেছেন। চিত্রগুলি যদি বাস্তব হত, তা হলে বইখানি আরও বেশী হৃদয়গ্রাহী হতে পারতো।’ এই কথা তো তারা বলে।” বলিয়া প্রকাশক মহাশয় অবনত মুখে চা পান করিতে লাগিলেন। নগেন্দ্র এই সমালোচনা খণ্ডন করিতে পারল না। বাসতবিকই ত, গণিকা-চরিত্র অঙ্কিত করিতে সে নিজ অভিজ্ঞতার কিছমাত্র সাহায্য পায় নাই। নাটকে উপন্যাসে গণিকদের বর্ণনা, এবং লোক মুখে কিছু কিছ শনা মাত্রই ত তাহার অবলম্ববন! এই সকল কথা ভাবিতে ভাবিতে নগেন্দু, চা পান শেষ করল। ’ নগেন্দুকে নীরব দেখিয়া প্রকাশক বলিলেন, “আপনি যদি ঐ সব দলে মাঝে মাঝে একটু আধট মেশেন, তাতে আর ক্ষতিটা কি ? বিলাতী ঔপন্যাসিকেরা, যাঁরা দরিদ্রপল্লীর গল্প লিখবেন, তাঁরা রীতিমত দরিদ্র সেজে তাদের পল্লীতে গিয়ে বাস করে, তাদের সঙ্গে মেলামেশা করে নিজস্ব অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করে এনে নভেল লেখেন শুনেছি।” আর কিছুক্ষণ কথাবাৰ্ত্তার পর নগেন্দ্র উঠিল। প্রকাশক বললেন, “আমার কথাটা ভেবে দেখবেন তা হলে ?” - “হ—িভেবে দেখব বইকি।” বলিয়া নগেন্দ্র বিদায় গ্রহণ করিল। W ○ l সেই দিন রাত্রে আহরের পর বাসার নিজন ছাদে বসিয়া নগেন সফরকে তাহার প্রকাশকের মন্তব্য ও జాణి శ్యాశా প্রথমটা শিহরিয়া উঠিল ; ‘Y - -