পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/১৩০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সরোজ বলিল, “ঐ সত্তে ভিন্ন তিনি যদি রাজি না-ই হন, তা হলে অগত্য তাই হবে। দেখ, সকল বাধাই ত ঘচে গেল, এবার তুমি বল লীলা, তুমি আমায় গ্রহণ করবে। আমাকে আর সংশয়ের মধ্যে ফেলে রেখ না—আমাকে সখী কর ।” লীলা বলিল, “আমাকে পেলে যদি তুমি সখী হও—তা হলে তা হলে—আমাকে নাও তুমি।” - ষোল-আনা লওয়া, গিজায় ভিন্ন অপর কোথাও ত সম্ভব নয়। তাই, আপাততঃ অধিককাল, উভয়ে উভয়ের মন জানিয়াছে—উভয়ের এরপে নিভৃত ও দীর্ঘকাল সাক্ষাতের সযোগও বহুবার হইয়াছে—কিন্তু সরোজ বাক্যে ভিন্ন, লীলার সহিত প্রণয়িজনোচিত ব্যবহার কোনও দিন করে নাই--তাহার ধম্মবৃদ্ধি, তাহার ভদ্রতা জ্ঞান, লেশমাত্র অসংযম হইতে এতদিন তাহাকে রক্ষা করিয়া আসিয়াছে। তারপর এবিষয়ে দজনে আলোচনা হইল। লীলার পিতা যখন ইহাদের অর্থের উপর কিছ মাত্রও ভাগ বসাইতে সম্মত নহেন—সরোজ যাহা বেতন পায়, এবং লীলা চিকিৎসা ব্যবসায়ে ষাহা উপাজন করে, তাহাতে, ব্যয়বাহুল্য না করিয়া, সসত অঞ্চলে একখানি ছোটখাট বাড়ী লইয়া সাধারণ ভদ্রগহন্থের মত থাকিলে এখনই এ দুটি প্রাণী, সম্মিলিত জীবন যাপন করিতে পারে। য়রোপীয় সমাজে, বিবাহের দিনটি স্থির করিবার ভার একমাত্র “কনে”র উপর;--তদনসারে সখেমিলনের সেই দিনটি যত শীঘ্র সম্ভব নিদ্ধারণ করিবার জন্য সরোজ লীলাকে পীড়াপীড়ি করিতে লাগিল। লীলা বলিল, “আচ্ছা তাই হবে গো হবে! বাবার কাছে আগে সব কথা বলি। কাল সকালে তুমি আমাদের বাড়ী আসছ ত, সেই সময় শনতে পাবে।” সরোজ বলিল, “আচ্ছা লীলা, আমি এক কাজ করি। এখনি তোমাদের বাড়ী যাই চল না। আমি বরং নীচে লুকিয়ে বসে থাকবো এখন; বাবার সঙ্গে কথাবাৰ্ত্তা কয়ে এক মিনিটের জন্যে তুমি এসে আমায় বলে যাবে।” লীলা বলিল, “না না সে কি হয় ? কাল সকালে এসে তুমি শনবে। তোমার যে আর দেরী সইচে না দেখছি!” “মানুষের সহন শক্তির একটা সীমা ত আছে ? আর কত সওয়া যায় বল!”—বলিয়া সরোজ প্রিয়তমার ওঠে একটি এবং উভয় গড়ে দুইটি চমবন করিল। “লোভী বালক ”—বলিয়া লীলা সরোজের বাহতে মদচপেটাঘাত করিয়া বলিল, “আটটা বাজে বোধ হয়। এখন ওঠা যাক চল । আমি বাড়ী গিয়ে তবে বাবার খাবার ঠিক করবো।” দুজনে তখন উঠিয়া, গেটের দিকে চলিল। বাহির হইয়া, উভয়ে কালীঘাটগামী ট্রামে উঠিল। এলগিন রোডের মোড়ে নামিয়া, লীলাকে তাহার গহবার অবধি পৌছাইয়া দিয়া, সরোজ নিজের বাসায় গেল। উভয়েরই বাসা কাছাকাছি। সরোজের এই বাসায় আরও ২৩ জন খৃষ্টীয় যুবক বাস করেন—মেসেরই মত। সরোজ নিজ বাসায় গিয়া ভূত্যের নিকট শুনিল তাহার জন্য একখানি টেলিগ্রাম অপেক্ষা করিতেছে। তাহার মা ও ভাইয়েরা আসানসোলে থাকেন, ভাবিল, হয়ত তাঁহাদেরই কাহারও কোনও অসংখ বিসখ হইয়াছে। তাড়াতাড়ি নিজ কক্ষে প্রবেশ করিয়া, টেবিলের উপর হইতে, হলদিবণ খামখানি ছিড়িয়া টেলিগ্রামটি পড়িল। একবার-দুইবার— তিনবার পড়িল। উহা বোম্ববাই হইতে আসিতেছে-জামাণ লটারির এজেণ্ট তার <ETERIIGER-- "আপনার ক্লীত টিকিটখানি পঞ্চাশ হাজার পাউন্ড টালিং প্রাইজ লাভ করিয়াছে আন্তরিক অভিনন্দন গ্রহণ করন।” পুঞ্চাশ হাজার পাউণ্ড! ཤམྦྷ་ཀུ་ཅོས་ཚད་ལྷག་ཨིe། ། সাড়ে সাত লক্ষ টাকা ।”— & - - - -