পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/১৮৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


যাহা হউক, সকলে পরামশা করিয়া বলিল—“আমরা আর কি বলব বাছা! তোমাদের যা ভাল আছে তাই গাও।” নগেন্দ্র জিজ্ঞাসা করিল—“কৃষ্ণবিষয় ?” গহিণী বলিলেন—“বেশ, কৃষ্ণবিষয়ই গাও।” নগেন্দ্র গান আরম্ভ করিল, তাহার পর বিপিন যোগ দিল। সরে যখন উচ্চে উঠিল, তখন পশ্চাৎ হইতে চার সাবধানে নিজ কন্ঠ মিলাইল। গানটি জ্ঞানদাসের একটি পদ।শ্রোত্রীগণ তাহার সকল কথা বঝিতে পারিল না। কিন্তু জ্ঞানদাসের সমধর পদবিন্যাস এবং সকন্ঠ গায়কগণের মিলিত উচ্ছসিত সসবরলহরীতে সকলে একেবারে আত্মহারা হইয়া পড়িল। দুইবার, তিনবার গাহিয়া তবে গান শেষ হইল। এই সময় ঝম বাম করিয়া আবার ব্যটি আরম্ভ হইল। বড়বধ বলিলেন—“কি বাছা তোমাদের হিন্দীমিন্দী আমরা সকল কথা বুঝতে পারিনে। এইবার একটা বাংগালা গাও। একটা থিয়েটারের গান গাও না। আজকাল ত কত বোটমি এসে থিয়েটারের গান গায়-- মন্দবিদায়, তবে গিয়ে প্রভাস মিলন, আরও সব কত কি।” নগেন্দ্র বলিল—“আচ্ছা, একটা আধুনিক গান গাই তবে শনন।” এই বলিয়া আরম্ভ করিল – বধয়া, অসময়ে কেন হে প্রকাশ ? সকলি যে সবপন বলে হতেছে বিশ্বাস : চন্দ্রাবলীর কুঞ্জে ছিলে, সেথায় ত সোহাগ মিলে, এরি মধ্যে মিটিল কি প্রণয়ের আশ ? এখনো ত নিশি শেষে ওঠেনিক শাক-তারা, এখনো ত রাধিকার শকোয়নিক অশ্রদ্ধারা! সেথাকার কুঞ্জগহে, পপ ঝরে গেল কিহে ? চকোর হে সেই চন্দ্রমুখে ফরায়ে কি গেল হাস ? দুইবার উপর্যাপার গলা ছাড়িয়া গাহিয়া বৈষ্ণবীরা যেন কিঞ্চিৎ শ্রান্ত হইয়া পড়িল । পাহিণী ইহা লক্ষ্য করিয়া বলিলেন—“তোমরা একটা জিরিয়ে নাও বাছা,—চে’চিয়ে ভারি মেঘাত হয়।” গান বন্ধ করিয়া কথাবাত্তা আরম্ভ হইল। নগেন্দ্র বলিল--"মা ঠাকরণ, আপনি জাগালতী, তার সমসত লক্ষণ আপনাতে দেখতে পাচ্ছি।” কয়েকজন নবীনা ইহা শনিয়াই বলিয়া উঠিল—“হাঁগা তোমরা কি সামুদ্রিক জান ?” "জানি, কিন্তু হাত দেখতে পারিনে; মুখ, চক্ষ, চল, কণ্ঠস্বর থেকে কিছ কিছ: জম্যমান করতে পারি। তা গিন্নিমা, আপনার ছেলেমেয়ে কটি ?” "বাছা, আমার দটি ছেলে আর তিনটি মেয়ে। এই বড়বউমা; ছোটবউমা বাপের বাড়ী ৬(ড়েন, বড় মেয়ে মেজ মেয়ে শ্বশুরবাড়ীতে, এইটি ছোট মেয়ে—এর এই সম্প্রতি বিয়ে ৰuেছে।” এই বলিয়া গহিণী চারীর সত্ৰী কুমদিনীকে দেখাইয়া দিলেন। লগধত্রয়ের চোখে চোখে বিদ্যুৎবাত্তার আদান প্রদান হইয়া গেল। চার উভয়ের প্রতি চোখ রাঙাইয়া যেন বলিল—“কি ছেলেমানষি কর ? শেষকালে কি ধরা পড়বে ?” ৫ার একট। গান হইতে প্রায় সন্ধ্যা হইয়া পড়িল। বৈষ্ণবীরা বিদায় চাহিল। এড়বধ তাঁহার শবশ্রদেবীর কাণে কাণে গোপনে কি বলিলেন। গহিণী বৈষ্ণবৗদিগকে বলিলেন—“তোমরা বাছা আজ নেইবা ফিরে গেলে । রাত্তিরে uখানে থাক; সিধেপত্তর দিই, রাঁধ বাড় খাও দাও । কাল সকালে যেও এখন " \ক স্বনাশ । তাহারা রন্ধন করিতে জানে নাকি ? আর বাড়াবাড়ি করিলে ধরা পাঁড়বার t৭w*" সম্ভাবনা। সুতরাং তাহারা সম্মত হইল না। এণ ১ণ প্রতিবেশিনী—সম্পকে গহিণীর নাতবেী—তিনি বলিলেন—“তোমার যে পণ্য, দধি ! এই কাঁচা বয়সে ওরা কি আধু আপন বোস্টম ছেড়ে থাকতে পারে?” 3.