পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/২৫২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বাঁচাও।” “কেন ? আর বিপদ কি ?” “ঐ যে ছোকরা জলে লাফিয়ে পড়ছিল, তুমি তাকে ধরে টেনে তুললে, সেই আমার জামাই।” হরেন আশচষ্য হইয়া বলিল, “অ্যাঁ! তাই নাকি? তা হলে ত বিপদই বটে।” আমি তার হাত দটি ধরিয়া কাতরস্বরে বলিলাম, “তোমার ভাগনী-জামাইকে, যেমন করে পার, বাঁচাও ভাই।” হরেন বলিল, “আচ্ছা দাঁড়ান, কি করতে পারি দেখি।” বলিয়া সে বাহির হইল । আমিও তাহার পিছ পিছর বাহিরে গিয়া দাঁড়াইলাম। তাহার আদেশ অনুসারে বাকী আসামীদিগকে পিঠমোড়া করিয়া বাঁধা হইতে লাগিল। আমার জামাইকেও বাঁধিল। বাবাজী কাতর ভিক্ষা-পাণ দটিতে আমার পানে চাহিতে লাগিল। একে একে সব আসামীকে পলিসবোটে নামানো হইল, শুধ বাকী রহিল পর্ণ। হরেনের ইসারায় আমি তাহাকে টানিয়া লইয়া ভিতরে ঢকিয়া পড়িলাম। পর্ণকে লইতে দই তিনজন কনেষ্টবল বজরায় আসিল। কোনও আসামী না দেখিয়া, শধ হরেনকে সেখানে দাঁড়াইয়া থাকিতে দেখিয়া, তাহারা বোধ হয় স্থির করিল, অন্য কনেষ্টবলরা তাহকে পলিসবোটে থানান্তরিত করিয়া থাকিবে। উত্তর হইল, “হাঁ হজর, সবকোইকো শিকলি চড়ায়া।” “গিনো, কয়ঠো হয়া ?” তাহারা গণনা করিয়া বলিল, “আঠ আসামী হজের।” “আচ্ছা, ঠিক হ্যায়।”—বলিয়া হরেন তাহাদিগকে আর আর কি সব আদেশ দিতে লাগিল। ডাকাইতগণের ছিপ দইখানিকে পশ্চাতে রজবদ্ধ করিয়া, পলিসের পান্সী দইখানি খলিয়া দিল। আমাদের বজরার মাঝি-মাল্লারা বোধ হয় দরে দরে অন্ধকারে জলে ভাসিতে ভাসিতে সকল ব্যাপার প্রত্যক্ষ করিতেছিল। ভিজা বিড়ালের মত একে একে তাহারা আসিয়া বজরায় উঠিতে লাগিল। । হরেন ভিতরে আসিয়া বহস্তে পণের হাতের বাঁধন খুলিতে খুলিতে বলিল, “কেমন হে ছোকরা, স্বদেশী করবার সখ মিটেছে ত এখন?” আমি বলিলাম, "আর মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা কেন ?” হরেন আমার পানে চাহিয়া চোপ টিপিয়া বলিল, “এখনি খাঁড়ার ঘা হয়েছে কি ? আপনার জামাই বলে যে ছেড়ে কথা কইব, তা ভাববেন না। আমরা পলিসের লোক, বাগে পেলে নিজের বাপকেও রেয়াৎ কারনে থানায় নিয়ে গিয়ে প্রথম ত উত্তম-মধ্যম প্রহার। তার পর হাতে হাতকড়ি দিয়ে চালান দেবো—সাতটি বছর শ্ৰীঘর।” মিনতির স্বরে বলিলাম, "ছেলেমানষে, না বঝে একটা কাজ করে ফেলেছে, এবার ওকে মাপ করন—ছেড়ে দিন। আর কখখনো এমন কাজ ও করবে না।” "ছেড়ে দেবো ?—ছেড়ে দিলেই ত আবার গিয়ে ঐ সব দলে মিশবে। এবার ডাকাতি করেছে—এর পরে বোমা ফেলবে-মানুষ খন করবে।” বলিলাম, “ন না, তা আর ও করবে না।” হরেন বলিল, “কি হে ছোকরা,—ছেড়ে দিলে আবার এই সব করবে ত?” পাণ মাথা নাড়িয়া জানাইল, আর কীরবে না। হরেন বলিল, “শনলাম, ইনি তোমার বশর। আচ্ছা, এর পারে হাত দিয়ে দিব্যি y嫩心。 -