পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/২৭৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কাহিনী বলিয়া যায়। শুক্রবার আসিল। সষমার জর আর নাই, কিন্তু, আজিও সে অন্নপথ্য করে নাই। স্বামীকে বলিল, “ওগো আমি ত পারলাম না, তুমি কাল থিয়েটারে যাও, কি রকম অভিনয় হয়, লোকে তা কি ভাবে নেয়, জেনে এস।” অবিনাশ বলিল, "পাগল ! আমি যাব এক, প্রেমের ইন্দ্রজাল দেখতে : যখন যাব, দজনে যাব, তুমি শরীরে একট বল পাও আগে। পঞ্চাননকে পাঠিয়ে দেবে, সে দেখে এসে বলবে প্লে কেমন ওৎরালো।” সৰ্ষমা আর কোনও কথা বলিল না। “প্রেমের ইন্দ্রজাল"-এর পাণ্ডুলিপি পঞ্চানন পাবেই চাহিয়া লইয়া গিয়াছিল। উহা হইতে সে একখানি প্রোগ্রাম ছকিয়া তাহা ছাপাইয়া লইল। উপরে লীলা থিয়েটারের নাম, তারপর পাত্র পাত্রীর পরিচয়, অঙ্ক, গভর্ণওক—এমন কি শেষে ইংরাজি হরপে ছাপা ম্যানে জারের নামটি পর্যন্ত। a রবিবার প্রাতে, এই প্রোগ্রাম হাতে লইয়া সে অবিনাশবাবর গহে আসিল এবং অভিনয়-সম্বন্ধে অনগ’ল অনেক কাল্পনিক-কাহিনী বলিয়া গেল। এমন কি, ੋਜੋ কালে একজন মাতাল পাববত্তী দশকের গাত্রে বমি করিয়া দিয়া কি ভাবে লাঞ্ছিত ও বিতাড়িত হয় তাহাও জানাইল । ৷ ছয় ॥ তিন দিন পরে সর্ষমা অন্নপথ্য করিল। ডাক্তারবাব বলিয়াছেন, যত শীঘ্র সম্ভব ইহাকে বায়-পরিবত্তানে লইয়া যাওয়া আবশ্যক। পাজার ছুটি হইতে সপ্তাহ মাত্র বাকী, সে সপ্তাহ অবিনাশবাক ছটি লইয়াছেন। শকুবর দিন ছিল ভাল, ঐ দিন পঞ্জাব-মেলে তিনি সস্ত্রীক চণ্যর যাত্রা করিলেন। চণারে সুষমার স্বাস্থ্য দিন দিন উন্নতিলাভ করিতে লাগিল। দুই মাস পরে সন্ত্রীকে লইয়া কলিকাতায় অবিনাশবাব ফিরিয়া অসিলেন। বাড়ী আসিয়া সষমা স্বামীকে জিজ্ঞাসা করিল, “হ্যাঁগা প্রেমের ইন্দুজাল এখনও লীলা থিয়েটাৰে হচ্চে ?” “না.—তারা এখন অন্য রম্ভ করেছে । “তাইত ! আমাদের যে দেখা হল না " “না, পেশাদারী ੇ # : ཧྥུ་ 驚 বিশ্ববিদ্যালয়ের ছত্রদের যে সখের দল আছে, লাটসাহেব কলকাতায় ফিরলেই তারা ইউনিভারসিটি ইনস্টিটাটে প্রেমের ইন্দুজাল' অভিনয় করবে।” এ কথাটা সত্য—কাল্পনিক নয়। বলা বাহুল্য, এ বিষয়ে পশ্চাননই ছিল প্রধান পাণ্ড । সুষমা সত্যই একদিন বিতলে চিকের আড়ালে বসিয়া, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রগণ কতৃক ‘প্রেমের ইন্দুজাল'-এর অভিনয় দেখিল। অনেক সাহেব মেম আসিয়াছেন তাহাও দেখিল । দ্বিতীয় অঙ্কে ড্রপ পড়িলে কে এক সাহেব তাহার স্বামীর সহিত করমন্দান করিয়া হাসিয়া হাসিয়া কি সব কথা বলিতে লাগিলেন। তার পরেই সাহেব অন্য কতকগুলি সাহেব ও মেমের সহিত বাহির হইয়া গেলেন। বাড়ী আসিয়া সষমা জিজ্ঞাসা করিল, “হ্যাঁগা সে সাহেবটা কে গা ? তোমার সঙ্গে শেকহ্যান্ড করে হাসতে হাসতে কথা কইছিল দেখলাম।” অবিনাশবাব বলিলেন, “সে সাহেব কে শুনবে ? বড় কেউকেটা নয়, স্বয়ং লাটসাহেব। তিনি যখন উঠলেন, আমাদের ভাইসচ্যান্সলার আমাকে তাঁর কাছে নিয়ে গিয়ে এই বলে পরিচয় ক’রে দিলেন—’ইনিষ্ট নাটকের রচয়িত্রীর সবামী-আমাদের একজন সম্মানিত অধ্যাপক "শুনে লাটসাহেব কি বললেন ?" ------ - ੇ তুমি ভাগ্যবান পরষ। তোমার প্রতিভাশালনা পত্নীকে অ-ল সম্মান অভিনন্দন জানাইও ।” - نتیسیسیحیی wo ལྷ་སྐུ།། পর সষমা যখন শুনিল যে “প্রেমের ३न्छञ्जाल” त्कान७ मिनई जोत्ना থিয়েটারে 8 ১২ ›ፃፃ