পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/৩০৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্রণাম করিল। বঝিলাম, লোকটা পাগল। পর্বের অশ্রদ্ধার ভাবটা মন হইতে তিরোহিত হইয়া, একটা দয়া হইল। সে বলিতে লাগিল, “আপনি অবিশ্ববাস করছেন ? আপনি ভাবছেন লোকটা পাগল ? তিনি আমার মা বটেন, তবে এ জন্মের মা নন। আসল কথাটা তবে খালে বলি। আমি পাঁচ বচ্ছর ধরে কাসরোগে কট পাচ্ছি। কত রকমৃ চিকিৎসা করালাম, কিছই হল না। মেট্রোপলিটনে বি-এ পড়ছিলাম, পড়া বন্ধ করতে হল। দেখন না চেহারাখানা, একেবারে অসিথচমাসার হয়ে পড়েছি। বেশী দিন আর বাঁচতে হবে না। দিন সাতক হল, গ্রামের বাইরে বিশালাক্ষীর মন্দিরে গিয়ে সারা সন্ধ্যেটা উপড় হয়ে পড়ে রইলাম। মা মা’ বলে কত কাঁদলাম, কত প্রথিনা করলাম। সন্ধের পর বাড়ী ফিরে এলাম । রাত্রে স্বপন দেখলাম, যেন মা বিশালাক্ষী আমার মাথার শিয়রে দাঁড়িয়ে বলছেন—আপনার নাম করে—তাঁর যিনি সন্ত্রী—তিনি আর জন্মে তৈার মা ছিলেনু। তুই তাঁকে মদ খেয়ে একদিন বাপান্ত করে গাল দিয়েছিলি, সেই পাপে তোর এই কঠিন রোগ হয়েছে। তাঁর কাছে যা, তাঁর পাদোদক পান করগে যা, ভাল হয়ে যাবি। বলেই মা বিশালাক্ষী অন্তধান করলেন।” এই পৰ্য্যন্ত বলিয়া সে চাপ করিল। জিজ্ঞাসা করলাম, “আপনি কোথায় যাচ্চেন ?” হাত দটি যোড় করিয়া সে বলিল, “সব শুনেছেন, আর এ অধমকে আপনি বলে কেন সম্ভাষণ করেন ? তুমি বলন বা তুই বলন।”—বলিয়া হেট হইয়া আমার জন্তা দইটা ছাইয়া সবীয় ললাটপশ করিল। “তুমি এখন কোথা যাচ্চ ?” “আমি যাচ্চি দৌলতপর। সেখানে আমার মামার বাড়ী। সেখান থেকে কলকাতায় যেতাম, আপনার সন্ধানে।” “আমি কলকাতায় যাচ্চি, এ সংবাদ আপনাকে কে দিলে ?” আকুলসবরে সে বলিল, “আবার ‘আপনাকে ?” “তোমায় কে বললে ?” “কেউ বলেনি। আমি কি জানিনে যে কলকাতায় এবার কনগ্রেসের অধিবেশন ? আমি কি জানিনে যে ব্যারিস্টারশ্ৰেষ্ঠ মিটার অতুল ব্যানাজি" না হলে স্বদেশহিতকর কোন কায্যই হবার যো নেই ? দেশের মধ্যে কে এমন—” আমি তাহাকে বাধা দিয়া বলিলাম, “তা ভালই হয়েছে। আপনার—তোমার অনেক পরিশ্রম বেচে গেল।” অত্যন্ত আগ্রহের সহিত সারদা জিজ্ঞাসা করিল, “আমার মা কি আপনার সঙ্গেই আছেন ?” “আছেন। আজই চাও পাদোদক ?” “আজ পেলে কি আর কালকের জন্যে অপেক্ষা করিতে পারি ?" “তবে দাঁড়াও এখানে।” বলিয়া আমি ক্যাবিন অভিমুখে অগ্রসর হইলাম। ‘ক্যাবিন পরিত্যাগের পর বোধ হয় অন্ধ ঘণ্টা অতীত হইয়াছিল। ভিতরে গিয়া দেখিলাম আমার স্ত্রীর ঘমে ভাঙ্গিয়াছে। আমাকে দেখিয়াই মুখে হাতের আড়াল করিয়া একটি হাই তুলিয়া জিজ্ঞাসা করিলেন, “কোথায় ছিলে এতক্ষণ ?" “একটি বড় মজা হয়েছে।” “কি গা ?” “তোমার ছেলে এসেছে।” বলিয়াই অনুশোচনায় মরিয়া গেলাম ! আমাদের একটি “ཚེ ཝ“སྟའ༣ བར་ཨཥ །e༥ ཤ ཨཛི ༥ཚེ་༣.ཧྥུཊ ཝང་ཀཟ སྨད་ལ་ ཉིད་ལྟ། ད་ལྟ་ཝ། उठाशि *