পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/৩৭৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


নিমেন ডাকপিয়নের কন্ঠস্বর শ্রত হইল। ভূত্যকে পত্ৰ দিয়া সে ফিরিয়া গেল, তাহার পদশব্দও পাওয়া গেল। কুমন্দনাথ প্রতিমহেনত্তে পত্ৰহস্তে ভূত্যের প্রতীক্ষা করিতেছিলেন। কিন্তু সে আর আসে না। নাম করিয়া ডাকবার জন্য জানালা খলিলেন। অত্যন্ত শীতল বায়র সঙ্গে সঙ্গে একটা অসফট কোলাহলধননি কণে প্রবেশ করিল। ব্যাপারটা কি জানি বার জন্য কুমুদনাথ লন্ঠন লইয়া নিনে অবতরণ করিয়া গেলেন। দেখলেন, চাকর বিশয়া একটি সন্দরী যাবতী পাহাড়িয়া সত্ৰীলোককে ধরিয়া রহিয়াছে। সত্ৰীলোকটা অত্যন্ত বলপ্রয়োগ করিয়া ছাড়াইবার চেষ্টা করিতেছে। কুমন্দনাথকে দেখিবামাত্র সে বসন্ত্রাঞ্চল হইতে কুকরী ছুরি বাহির করিল। তাহা দেখিয়া কুমন্দনাথ পিছত সরিয়া আসিলেন, বিশয়াও তাহাকে ত্যাগ করিল। তখন সে উন্মুক্ত দ্বারপথে বাহির হইয়া দ্রুতবেগে পলায়ন করিল। বিশয়া মহা উত্তেজিত হইয়া বলিল, “বাব –চোর।" কুমদবাব তাহার বৃদ্ধির উপর দোষারোপ করিয়া বলিলেন, “ধরলি ধরলি, হাতদটো যদি ধরতিস, তবে ছরি বার করতে পারত না ।” বিশয়া বলিল—উহাদের গায়ে ভরি জোর: জাপটাইয়া না ধরিলে রাখা যাইত না। যাহা হউক, কুমুদনাথ বিবেচনা করিলেন, চোর চরি করতে পারে নাই, পলাইয়াছে মাত্র, ইহাই ভাল। ধরিলে পলিশে দিতে হইত এবং তাহা লইয়া অনেক হাঙ্গামা পোহাইতে হইত। ফিরিয়া, উপরে গিয়া শয়ন করিলেন। গিরিবালা সব শনিয়া বললেন—“চোর নয়, তোমার চাকরের সখী । ধরা পড়বার ভয়ে উপস্থিত বৃদ্ধির ব্যবহার করেছে।” "জান না বুঝি ? ও পাহাড়ী মেয়েদের দস্তুর। সঙ্গে সর্বদা ছরি থাকে।” পরদিন প্রভাতে কুমন্দবাব চাকরটাকে ডাকিয়া জিজ্ঞাসাবাদ করিলেন, কিন্তু সে কিছতই ঐ রমণীকে স্বীয় প্রণয়িণী বলিয়া স্বীকার করিল না। 猫 @ ü সেদিন আকাশ বেশ পরিকর। খোকাকে ঠেলাগাড়ীতে বসাইয়া তাহার চাকর তাহাকে বেড়াইতে লইয়া গেল। তখন বেলা দইটা। গিরিবালা চাকরকে বারংবার করিয়া বলিয়া দিলেন, যেন এক ঘণ্টার বেশী বিলম্ব না হয়! তিনটা বাজিল তব খোকা ফিরিল না। সাড়ে তিনটার সময় স্বামী সন্ত্ৰী উৎকণ্ঠিত হইয়া উঠিলেন। খোকার অন্বেষণে চাকর পাঠাইবার পরামশ হইতেছে, এমন সময় পুলিশ আফিস হইতে পত্র আসিল: বিশেষ ঘটনা উপলক্ষ্যে দারোগা কুমন্দবাবকে এখনি থানায় আহান করিতেছেন। একে ছেলে ফিরিল না, তাহার উপর পালিশ হইতে এই পত্র; একটা আসন্ন বিপদের ভয়ে দই জনেই ব্যাকুল হইয় পড়িলেন। " কুমন্দবাব তৎক্ষণাৎ বাহির হইলেন। গিরিবালা শনাগহে শরবিদ্ধ হাঁরণীর মত ছটফট করিতে লাগিলেন। , - কিছুক্ষণ অতীত হইলে পর, গিরিবালা ভূত্য বিশয়াকে থানায় পাঠাইয়া দিলেন, বলিলেন বাবর যদি আসিবার বিলম্বব থাকে, তুই যত শীঘ্ৰ পারিস সংবাদ আনিবি কি হইয়াছে। কুমদবাব থানায় গিয়া দেখিলেন, অত্যন্ত জনতা। বারান্দায় ঠেলাগাড়ীতে খোকা ক্ৰন্দন করিতেছে; একজন কনটেবল প্রহরায় নিযুক্ত। কুমন্দবাব গিয়া খোকাকে কোলে করলেন। তাহার মখচলন করিলেন। খোকা তখন আশবত হইয়া চপ করিল। দারোগা সেলাম করিয়া বলিল, “বাব, আর একটু হইলে আজ আপনার সব্বনাশ হইয়াছিল। একটা লেপচা স্ত্রীলোক এই শিশকে খন করিতে উদ্যত হইযাছিল। আপনার ভূত্য বাধা দিতে তাহকে ছুরিকাঘাত দিছে", や &