পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/৩৮২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


মালতী অন্যদিকে চাহিয়া, মাথা হেলাইয়া জানাইল ষে তাহাই। তাহার পর সাহস সংগ্ৰহ করিয়া জিজ্ঞাসা করিল, “আপনাকে যে চিনতে পারলাম না—কোথা থেকে আসছেন?” “আমি আসছি কাশী থেকে। গাড়িতে যাচ্ছিলাম, টিকিট হারিয়ে গিয়েছিল তাই মামিয়ে দিলে। শুনলাম আবার সেই রাত একটায় গাড়ী। একলা মেয়েমানুষ কোথায় যাই —তাই একজন ভদ্রলোকের বাড়ী খুজে এলাম।” মালতী বলিল, “তা বেশ করেছেন। হাত পা ধয়ে ফেলন।” দাই জল দিল । তিনি হস্তপদাদি ধৌত করিলেন। মালতী ততক্ষণ একটি শতরঞ্জ আনিয়া বরাদায় বিছাইল। তাহার পর জিজ্ঞাসা করিল, "কখন গাড়ীতে উঠেছিলেন? খাওয়াদাওয়া হয়নি বোধ হয় ?” তিনি হাসিয়া বলিলেন, “কই আর হয়েছে ” মালতী দাইকে বলিল “শীঘ্র করে উনানটা জেলে দে। দিয়ে বাজার যা, আলোচাল কিনে নিয়ে আয়।" ইহা শুনিয়া নবাগতা সমিষ্টস্বরে বলিলেন, “না মা, আলোচাল কিনতে দিতে হবে না। আলোচাল আমার প;টলিতে বাঁধা আছে, তুমি ব্যস্ত হয়ো না।” তিনি আসিয়া বারান্দায় বসিলেন। মালতীকেও কাছে বসাইলেন। জিজ্ঞাসা করিলেন “তোমার নাম কি বাছা ?” “আমার নাম মালতী।” “বাপের বাড়ী ?” “উত্তরপাড়া।” “তোমার মা, বাপ সবাই আছেন ?” মালতী মুখখানি অন্ধকার করিয়া বলিল, “বাবা ত মারা গেছেন আমি যখন অতুিড়ে —ম মারা গেছেন যখন আমি এক বছরের।”—বলিয়া মালতী উঠিয়া গেল—উনান জালিতে দৈরী হইতেছে বলিয়া দাইকে বাকল, নিজে উমান ধরাইতে বসিয়া গেল। কাশীবাসিনী উঠিয়া রান্নাঘরে আসিলেন। মালতী ধৌত বস্ত্র পরিয়া রান্না চড়াইল । সেইখানেই বসিয়াই আবার গল্প আরম্ভ হইল। কাশীবাসিনী জিজ্ঞাসা করিলেন, “কদিন তোমার বিয়ে হয়েছে ?” “এই বোশেখ মাসে।” “তবে ত অলপদিনই হল। এখানে এসেছ কি মাসে ?” “এই দমাস।” “তোমার সবামী কখন আপিসে যান ?” স্বামী প্রসঙ্গে মালতীয় লজা হইল। মুখখানি নত করিয়া শতরঞ্জ খাঁটিতে খাঁটিতে বলিল, “নটার সময়।” “কখন আসেন ?” “কোনও দিন ছ’টার সময় আসেন, কোনও দিন সাতটা বেজে যায়।” “কত মাইনে পান ?” “ত্রিশ টাকা।” “তা ছাড়া উপরি আছে ?” মালতী লজিত হইয়া বলিল, “কি জানি।” কাশীবাসিনী একটা খসী হইলেন। በ : በ আজ প্রদীপ জ্যালিতে জম্বলিতে গিরীন্দ্র বাড়ী আসিল। মালতী জিজ্ঞাসা করিল, “আজ ভারি সকাল সকাল যে ?” গিরীন্দ্র একট হাসিল। বলিল, “তুমি একলাটি থাক, তাই এলাম আজ সকাল সকাল।” S లిసి