পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/৩৯১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


“তুমি কতদিন হল শনেছ ?” “বিয়ের পর।” “মোক্ষদাপিসীর কাছে ?” “হ্যাঁ।” - কম করেন, পুজোর সময় তুমি দানাপারে আসবে তাও ঠিক হয়েছে।” মালতী বলিল, “তা হলে দানাপরে তুমি হঠাৎ এসে পড়নি, জেনে শনে এসেছিলে ? কেন ?” মালতীর সবর এখন কঠোর। কাশীবাসিনী কাঁদিতে কাঁদিতে বলিলেন, “আপনার সন্তানকে কেউ কি ভুলতে পারে?” মালতীর একবার একটু একট কান্না আসিতে লাগিল। আপনার মা না জানিয়াও ইহার যে মাতৃবং আকর্ষণ হইয়াছিল, তাই মনে পড়িল। কাঁদকাঁদ হইয়া বলিল, “কেন তুমি জানালে তুমি কে ?” “কি জানি। থাকতে পারলাম না।” মালতী আবেগভারে একবার বলিতে যাইতেছিল—জানিয়েছ ভালই করেছ। নইলে মা ত কখনো চক্ষে দেখতে পেতাম না ! কিন্তু তৎক্ষণাৎ মনে হইল, এ মা! নাই দেখতাম r এই বিধায় সে কিছই বলিল না, চপ করিয়া রহিল। গাড়ীর সময় হইল। কাশীবাসিনী কুলিকে বলিয়া দিয়াছিলেন, সে জিনিস লইতে আসল। মালতী বলিল, “গহনা নিয়ে যাও। আমি পরব না।” কাশীবাসিনী কন্যার মািখপানে চাহিয়া তাহার মনের ভাব বুঝিলেন। বলিলেন, “যা ভেবেছে তা নয়। এ তুমি সবচ্ছন্দে পোরো, নইলে আমিই তোমায় দিতাম না। জীবনে একবার যে পাপ করেছি, আজ চৌদ্দ বচ্ছর ধরে তার প্রায়শ্চিত্ত করলাম। আর, এর একখানিও পাপের অজন নয়। আমি মসত বড়মানুষের মেয়ে ছিলাম—শোনান ?” মালতী বলিল, “তবুও আমার স্বামীকে সব না জানিয়ে, তাঁর মত না নিয়ে, আমি নিতে পারনে।” “তাই কোরো। যদি তিনি তোমায় পরতে না দেন, তবে এগুলি দেবসেবায় দিও।” তিনি ষাইবার জন্য উঠিলেন। মালতী আর থাকিতে পারিল না। “মা আবার দেখা দিও”—বলিয়া কাঁদিয়া তাঁহার পা জড়াইয়া ধরিল, প্রণাম করিল। - - “সাবিত্রী হও, রাজরাণী হও”—বলিয়া মা কন্যাকে আশীব্বাদ করিয়া, দ্রত গহ হইতে বাহির হইয়া গেলেন। বৈশাখ, ১৩০৮ ] ধমের কল - በ ` በ হারাধন চট্টোপাধ্যায়ের প্রতিমার মত কন্যা মনোরমা পনেরো বৎসর বয়সে বিধবা হইয়া গৈল । - সেকালের কথা। পিতা বিক্রমপরে হইতে বিষ্ণঠাকুরের সন্তান এক দিগগজ কুলীন আনিয়া জামাতা করিয়াছিলেন। দইবেলা মাছভাত খাওয়া এবং সিদর পরিতে পাওয়া ছাড়া মনোরমা আর কোনও সধবাসখের অধিকারিণী ছিল না: তথাপি তাহার এই তরণে S8b. -