পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/৪০৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ওকালৎনামা নিয়ে এসেছে ! আরে গেল যা!—ফের যদি ওসব পাগলামি শনতে পাই ত জতিয়ে পিঠ ছিড়ে দেবো।” অতঃপর মাণিক কাঁদিতে কাঁদিতে প্রস্থান করিল। ডাক্তারবাবর চিকিৎসা আশু ফলপ্রদ হইল। মাণিক ছেলেটিকেও অতি সবোধ বলিতে হইবে। উপন্যাসের অনুকরণে প্রেমে পড়িয়াছিল, কিন্তু উপন্যাসের অনুসারে গহ ত্যাগ করিল না—বিষও খাইল না; বিষ খাইল না বটে—তবে কুসমের বিবাহের সময় লাচি । খাইল ফিতর। এত খাইল যে তাহার পরদিন অসুখ হইয়া পড়িল। সেই সযোগে সপ্তাহখানেক স্কুলে গেল না। প্রভাস চলিয়া গিয়াছিল। প্রেমিকের আদশ খববতার জন্য মাণিকের কাহারও নিকট জবাবদিহি করিবারও রহিল না। তাই অসুখ দই দিনেই ভাল হইলে—বাকী দিনগুলির অধিকাংশ সময় মাণিক বক্ষের শাখায় শাখায় লম্ফ দিয়া অতিবাহিত করিল। ভাদ্র, ১৩o৮ ] কলির মেয়ে ቤ ` በ চৈত্রের দিবা অবসিতপ্রায়। গোপাল সরকারের বৈঠকখানায় বসিয়া বিজয় মিত্র পাশা খেলিতেছিলেন। হঠাৎ তাঁহার কনিষ্ঠ পত্রটি ছটিয়া আসিয়া হাঁফাইতে হফিাইতে বলিল, “বাবা শীগগির বাড়ী এস, টেলিগেরাপ এসেছে।” টেলিগ্রামের নাম শনিয়া বৈঠকখানা-সদ্ধ লোক চমকিয়া উঠিল। পল্লীগ্রামে টেলিগ্রাম সব্বদা আসে না--যাহা আসে, তাহা প্রায়ই দুঃসংবাদ, বিপদের সংবাদ। বিজয় মিত্র খেলা ফেলিয়া ভিজা গামছায় কপালের ঘাম মছিয়া, চটিজত পায়ে দিয়া ত্বরিদপদে বাড়ী আসিলেন। দরে স্টেশন হইতে ঘমাক্ত কলেবর টেলিগ্রাম পেয়াদা আসিয়াছে। সদর দরজার বারান্দায় বৃহৎ লাঠি লইয়া গম্ভীরভাবে বসিয়া আছে। অসংখ্য কুতহেলী বালক-বালিকা তাহাকে ঘিরিয়া দাঁড়াইয়া। বিজয় মিত্র রসিদে নাম সহি করিয়া দিয়া কম্পিতহস্তে টেলিগ্রাম খলিলেন। পাঠমাত্র তাঁহার মখে আনন্দের জ্যোতি দেখা দিল। অন্তঃপরে প্রবেশ করিয়া দেখিলেন, ಠೇ। উৎকণ্ঠিতভাবে প্রতীক্ষা করিতেছেন। বলিলেন, “ভাল খবর।” ייק קaן* “বিন বাড়ী আসছে!” “বিন ? কোথা থেকে ? কবে আসবে ?” “তা লেখেনি। মোকামা থেকে তার করেছে, কাল এসে পৌছবে বোধ করি।” বিজয়হরি ও বিনোদবিহারী দই ভাই—সহোদর। বিনোদ যখন ছোট, তখন ইহারা পিতৃমাতৃহীন হয়। বিজয়হরির স্ত্রীই বিনোদকে মানুষ করিয়াছিলেন। বিনোদ বড় হইলে ভারি দন্দান্ত হইয়া উঠিল। এই সরে দাদার সঙ্গে প্রায়ই অহার বচস হইত। একদিন ক্লোধান্ধ হইয়া বিজয়হরি বিনোদকে জতার দ্বারা প্রহার করিয়াছিলেন। সেইদিন বিনোদ পলায়ন করিল। একদিন দইদিন করিয়া এক সপ্তাহ গেল, বিনোদ ফিরিল না। তখন বিজয়হরি সংবাদপত্রে বিজ্ঞাপন দিতে আরম্ভ করিলেন। দশ টাকা পরস্কার পর্যন্ত ঘোষণা করিলেন—তথাপি বিনোদের কোনও সন্ধান পাওয়া গেল না। দেখিতে দেখিতে মাস কাটিল বৎসর কাটিল, এইরূপে তিনটি বৎসর কাটিয়াছে। বিনোদ নিরদেশ হওয়ায় আত্মীয়বন্ধসমাজে বিজয়হরি লজ্জায় মুখ দেখাইতে পারেন না—আজি সহসা সবাদ আসি দু ভাই বাড়ী আসছে। やが登