পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/৪১৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


করেছে নাকি ?” বলিয়া সে স্কুমারীর মুখ হইতে হঠাৎ লেপ খলিয়া দিল। মাখ দেখিয়া আশ্চৰ্য্য হইয়া বলিল, “একি, কাঁদছিস! কি হয়েছে লা ? দাদা ভাল আছে ত ?” সকুমারী তাড়াতাড়ি চোখের জল মছিয়া ফেলিয়া বলিল, “না, কাঁদনি ত।" “না কাঁদিসনি বইকি দাদা ভাল আছে ত?” “হ্যাঁ ভাল আছে।” শনিয়া বিনোদিনী আশকত হইল। কিন্তু আশ্চর্য হইয়া বলিল, “তবে কাঁদছিস কেন ?” গালে চোখের জলের দাগ, তথাপি সংকুমারী বলিল, “কই, কাঁদনি ত?” “দাদা বকেছে ?” “দর।” "বলনা, কি হয়েছে বলনা ভাই ?” সকুমারী বিরক্ত হইয়া বলিল, “কিছ হয়নি, হবে আবার কি ?” “না, হয়নি! বলবিনে তাই বল। মা বল্লি ত ভারি বয়ে গেল।”—বলিয়া বিনোদনী রাগ করিয়া চলিয়া গেল। ~ সকুমারী একা হইয়া আবার লেপে মািখ ঢাকিল। ভাবিতে লাগিল, সত্যই যদি তাহা হইয় থাকে, তবে ত সবই শেষ হইয়াছে। সবই গিয়াছে। সে স্বামীকে আর কেমন করিয়া পশ করবে, যত্ন করিবে, সেবা করিবে ? সে কি করিবে ? তাহার এ কি হুইল ? এ সব্বনাশ তাহার কে করিল ? এই সময় তাহার শাশুড়ী আসিয়া ঘরে প্রবেশ করিলেন। বলিলেন, “আবার জবর করে বসেছ ? বেশ করেছ ! কি কুপথ্যি করেছিলে ? আবার তেতুল-আচার খেয়েছিলে ?” সকুমারী লেপের মধ্য হইতে কাঁপতে কাঁপিতে বলিল, “তেঁতুল-আচার ত খাইনি মা।” “খাওনি ত কি করেছিলে ? এত করে বারণ করি ভিজে মাথায় শয়োনা। তা ত শনবে না; ভাতটি খেয়েই চপ করে শয়ে পড়। যা খসি কর বাছা। গা কি খব গরম হয়েছে ? ভারী শীত করছে ? এখনও আমার মালাজপ শেষ হয়নি, বিছানা ছতে পারব না, যাই মন্না কি বিনিকে পাঠিয়ে দিইগে।”—বলিয়া তিনি চলিয়া গেলেন। সকুমারী আবার ভাবিতে লাগিল। কে সে ? কোন রাক্ষসী তাহার সর্বনাশ করিল—তাহার সখের ঘরে আগন লাগাইয়া দিল ? তাহাকে যদি পায় একবার, তবে নখে করিয়া তাহার চক্ষ ছিাড়িয়া ফেলে। ভাবিল, না জানি সে কেমন সন্দেরী। আমার স্বামী ভুলিল—অবশ্যই সে আমার অপেক্ষা সন্দেরী। আর কেহ নয়, আমার স্বামী ! আমার স্বামীকে যে আমি দেবতার তুল্য জ্ঞান করিতাম। কত লোক বলিয়াছে কলিকাতা অতি প্রলোভনপণ স্থান—যবেকན ཏཱཝ ཨཱs fཁ ཟཝ་ཁག་ ཝམསྶ ཨ་ལ་ ཟམ་བཀཏྭཱ ཙཀྐཝཱ ཨ་ལ་ ༢ ཨ་ ལ། །མཁལ་མ་ f এইরুপ ভাবিতে ভাবিতে সরুমারীর জর দ্বিগণ প্রবলতা ধারণ করিল। জনরের ঘোরে সে অচেতন হইয়া পড়িল । সুকুমারী যখন চক্ষ খলিল, তখন দেখিল ঘরে প্রদীপ জলিতেছে। ডাক্তার নিকটে বসিয়া ঔষধ প্রস্তুত করিতেছেন। তাহার বশর কিছদয়ে চেয়ারে বসিয়া তামাক খাইতেছেন। মন্না মেঝের উপর বসিয়া খোকাকে ঘুম পাড়াইতেছে। ডাক্তার বলিলেন, "এই ঔষধটকু খেয়ে ফেল দেখি মা!”—বলিয়া মাখের কাছে ঔষধ ধরিলেন। স্কুমারী পল করিল। ডাক্তার বললেন, “অনেকটা নরম পড়েছে এখন। কোনও ভাবনা নেই। যতক্ষণ, ኃፃ© -