পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/৫০১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বউদিদি বললেন, "এ মেলে নিৰ্ম্মলার চিঠি না পেয়ে আহা বেচার হয় ত কত য় যাবে।” ভেবেছে । তা এখনই তার সকল কন্টের ক্ষতিপূরণ হয়ে $4 বাহিরে পদশব্দ শনা গেল। ফটম্যান দয়ার খলিয়া, নত হইয়া বলিল—“মিটার চার, নিমলার হাতখনি ধরিয়া দাঁড়াইয়া উঠিল। ಗ್ವಾ श्शा, ज्ञऽश कात्रज्ञा च्ञिउभरथ वजिल-"Allow me**** introduce, Mr. GhoseMrs. Ghose.” আষাঢ়, ১৩১১ ] প্রথম পরিচ্ছেদ লণ্ডন নগরের পথানে স্থানে নিরামিষ ভোজনশালা আছে। আমি একদিন ন্যাশনাল গ্যালারিতে ঘরিয়া ঘরিয়া ছবি দেখিয়া নিজেকে অত্যন্ত ক্লান্ত করিয়া ফেলিলাম। কমে একটা বাজিল, অত্যন্ত ক্ষধাও অনুভব করিতে লাগিলাম। সেখান হইতে অনতিদারে, সেণ্ট মাটিসে লেনে এইরূপ একটি ভোজনশালা আছে,—মদমন্দ পদক্ষেপে তথায় গিয়া প্রবেশ করিলাম। তখনও লণ্ডনের ভোজনশালাগুলিতে লাঞ্চের জন্য বহলোক সমাগম আরম্ভ হয় নাই। হলে প্রবেশ করিয়া দেখিলাম, দুই চারিটি মাত্র ক্ষুধাতুর এখানে ওখানে বিক্ষিপ্তভাবে বসিয়া আছে। আমি গিয়া একটি টেবিলের সমখে বসিয়া, দৈনিক সংবাদপত্রగా নম্নমুখী ওয়েট্রেস আসিয়া দাঁড়াইয়া হকুমের প্রতীক্ষা করিতে গল। আমি সংবাদপত্র হইতে চক্ষ উঠাইয়া খাদ্যতালিকা হাতে লইয়া আবশ্যকমত অর্ডার দিলাম। ধন্যবাদ, মহাশয় বলিয়া ক্ষিপ্ৰগামিনী ওয়েট্রেস নিঃশব্দে অন্তহিত হইল। এই মহত্তে, আমার নিকট হইতে অলপ দরে আর একখানি টেবিলের প্রতি আমার নজর পড়িল। দেখিলাম, সেখানে একটি ইংরাজ-বালিকা বসিয়া আছে। তাহার পানে চাহিবামার, সে আমার মুখ হইতে নিজ দটি অন্যত্র ফিরাইয়া লইল। অবাক হইয়। সে আমাকে দেখিতেছিল। ইহাতে বিশেষ কোন নতনত্ব নাই, কারণ বেতবীপে আমাদের চমৎকার দেহবণটির প্রভাবে জনসাধারণ সববরই মোহিত হইয়া থাকে, এবং মনোযোগের অংশ, প্রাপোর কিঞ্চিৎ অধিক মাত্রাতেই আমরা লাভ করি। - বালিকাটির বয়স ত্রয়োদশ কিবা চতুৰ্দশ বৎসর হইবে। তাহার পোষাক যেন কিছ দরিদ্রতাধ্যঞ্জক। চলগুলি অজস্রধারায় পিঠের উপর পড়িয়াছে। বালিকার চক্ষ দুইটি বহৎ, যেন একটু বিষন্নতাযুক্ত। - সে জানিতে না পারে এমন ভাবে আমি মাঝে মাঝে তাহার পানে চাহিতে লাগিলাম। আমার খাদ্যদ্রব্যাদি আসিবার কিয়ৎক্ষণ পরেই সে আহার সমাধা করিয়া উঠিল। ওয়েষ্ট্রেস আসিয়া তাহার বিলখানি তাহাকে লিখিয়া দিল। বাহির হইবার দরজার নিকট আফিস আছে, সেখানে বিলখানি ও মাল্য দিয়া যাইতে হয়। বালিকা উঠিলে, আমার দটিও তাহাকে অনসরণ করল। বস্থানে বসিয়াই আমি দেখিলাম, বালিকা তাহার মল্য প্রদান করিয়া, কৰ্ম্মচারিণীকে চপি চাপ জিজ্ঞাসা করিতেছে– “Please Miss, ঐ যে ভদ্রলোকটি, উনি কি ভারতবষীয়?” “আমার তাহাই অনমান হয়।” “উনি কি সব্বদাই এখানে আসেন ?” “বোধ হয় না। আর কখনও লা দি ও অল নাই।