পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/৫১৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


মিসেস ব্রাউন মন্দহাস্য করিয়া বলিল, “প্রথম প্রণয়ের সময় ঐরপেই হয় বটে।” বারীন্দ্র চেয়ারে উচ্চ হইয়া বসিয়া বলিল, “মিসেস ব্রাউন, তোমার সঙ্গে কেহ কখনও প্রেমে পড়িয়াছিল ?” মিসেস ব্রাউন রাষ্ট হইয়া বলিল, “কেন মহাশয় ? আমি কি কাহারও প্রণয় উদ্রেক করিবার উপযুক্ত নহি ?” “না না, তা বলিতেছি না। শধ্যে জিজ্ঞাসা করিতেছি, রাগ কর কেন ?” “কেহ যদি আমার সঙ্গে প্রণয়ে পড়ে নাই, তবে আমার বিবাহ হইল কেমন করিয়া মহাশয় ?” “তাও ত বটে। তুমি যে বিবাহিত রমণী, আমি তাহা ভুলিয়াই গিয়াজুিম। তোমায় দেখিলে ত গিন্নীবান্নী বলিয়া মনে হয় না।” - মনে মনে খাসী হইয়া মিসেস রাউন বলিল, “আপনি যথার্থ বলিয়াছেন। আমাকে কেহ কেহ বলে বটে ষে, আমার আসল বয়স অপেক্ষা আমাকে অনেক ছোট দেখায়। আচ্ছা আমার বয়স কত আপনি বলন ত।” মিসেস ব্রাউনের বয়স যে পঞ্চাশং বষের উপরে উঠিয়াছে, সে বিষয়ে কোনও দশকের প্রান্তি হইবারই সম্ভাবনা নাই। বারীন্দ্র রঙ্গ দেখিবার জন্য বলিল, “কত ? ত্রিশ ?" মিসেস ব্রাউনের মখ আনন্দে উৎফল্প হইয়া উঠিল। বলিল, "না, কিছ বেশী হইয়াছে। আপনার প্রণয়িণীর নাম কি মহাশয় ?” "মিস টেম্পল।” “আপনার প্রতি তাঁহার কিরাপ ভাব ?” “কি জানি, তাহা ত বলিতে পারি না, তবে তিনি আজ আমায় চা পান করিতে নিমন্ত্রণ করিয়াছেন।” “Zoo & I wish you a happy afternoon"—zios assogross 2-TR পুঁইপ মুখে করিয়া বারীন্দ্ৰ ভাবিতে লাগিল। গতকল্য তাহার মেঘদতের শেলাক লইয়া কি বিপদ উপস্থিত হইয়াছিল, তাহা সমরণ করিয়া হাসি পাইল। আর যাহাই হউক, মিস টেম্পল লোকটি যথেষ্ট অদ্ভূত বটে। আজ ঘণ্টা দই আগে বাহির হইয়া, রিটিশ মিউজিয়ম হইতে গোটাকতক “আসল” ধৰ্ম্মমশাস্ত্রের সংস্কৃত শেলাক মুখস্থ করিয়া লইয়া যাইবে। যোগশাস্ত্র সম্পবন্ধেও দুই চারিটা বোল সংগ্ৰহ করিয়া লইয়া গিয়া মিস টেপলকে অভিভূত করিয়া ফেলিবে। : বেলা চারটা বাজিলে, ব্রিটিশ মিউজিয়ম হইতে বাহির হইয়া, ক্যাব লইয়া ব্লারীন্দ্র মিস টেম্পলের গহে উপস্থিত হইল। বাড়ীটি পোর্টল্যাণ্ড প্লেসে অবস্থিত। এখানে আমেক ধনবান ব্যক্তি বাস করেন। বারীন্দ্র ড্রইংরমে প্রবেশ করিয়া কয়েক মিনিট অপেক্ষা করিল। ক্ৰমে মিস টেম্পল প্রবেশ করিয়া প্রাচ্য প্রথায় তাঁহাকে অভিবাদন করিলেন। মিস টেম্পল বসিয়া বললেন, “দেওয়ালে ঐ ছবিখানি দেখিতেছেন ? উনি আমার গয়ে।” • বারীন্দ্র দেখিল, মাদ্রিতনেত্রে যোগাসনস্থ অন্ধনগ্নকলেবর একটি বাঙ্গালী মাত্তি'। মিনে ইংরাজি ও সংস্কৃত ভাষায় লেখা রহিয়াছে—“স্বামী যোগানন্দ।" যোগশাস্ত্র সম্পবন্ধে কথা পাড়িয়া, নিজ সদ্য উপাজিত বিদ্যা প্রকাশ করিয়া বারীন্দ্র মিস টোপলকে চমৎকৃত করিয়া দিল। শেষে জিজ্ঞাসা করিল, “আপনি স্বামীজির নিকট যোগশালা সম্বন্ধে কোন উপদেশ লইয়াছেন কি ?” "না, কারণ অভ্যাস করিবার অধিকার আমার এখন নাই। স্বামীজি বলিয়াছেন, তিন বৎসরকান্স নিরামিষ ভোজন করিয়া শবোচারে থাকিয়া আবার ভারতবষে গেলে, আমাকে তিনি শিখাইবেন। tst། ཨ་ཁང་། ཧྥུ་ “ཨ་ཁང་། ཨ་ཁ། ལྷའི་སྨཅ མཱ་ལ་ཝ་ཤ་ཥ་ཡའི་ཁུང་ ፃ¢ -