পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/৫৭৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কাহারও তেমন ভাল নয় এবং সষমার টাকার গন্ধেই তাহাদের এই ঘন ঘন যাতায়াত। একদিন বিকালে স্বামীসাঁতে কথাবাত্ত হইতেছিল। সাষমা তখন তাহার সখী ললিতার গহে চা-পানের নিমন্ত্রণ রক্ষা করিতে গিয়াছে। সুষমা ও ললিতা এক ক্লাসে পড়ে। মিসেস লাহিড়ী বলিলেন, "হাগা, সর্ষীর বিয়ের কি করছ?" লাহিড়ী বলিলেন, “তেমন মনের মতন পাত্র কই ?” “চেন্টা করলে পায় কি আর মেলে না ?” “এ ত সাধারণ হিন্দ ঘরের মেয়ের বিয়ে নয় যে ঘটক লাগিয়ে পাত্র স্থির করব । লভ ম্যারেজ (প্রেমের বিবাহ) ভিন্ন আর অন্য উপায় কি আছে ? কোনও ছেলের সঙ্গে যদি ওর ভালবাসা জন্মে যায়,—সে ছেলে নিজেই তখন বিয়ের প্রস্তাব করবে, তার গুণাগণে, তার, সাংসারিক অবস্থা বিবেচনা করে আমরা যদি ভাল বুঝি, তখন মত করবো।” “ঐ যে কুমদ চাটাজি আসে, ও ছেলেটি:ত মন্দ নয়। সাষীর সঙ্গে ওর একটা মেলামেশায় দিনকতক একট উৎসাহ দিলে হয় না?" “ও তো এই সবে বছর তিনেক হল ব্যারিস্টার হয়ে ফিরেছে। এখনও কিছহ করতে পারেনি। . বাড়ীর অবস্থা ভাল নয়। বিয়ে করে সংসার চালাবে কোথা থেকে ?” । “আর, বিনয় সেন ?” ”বাপের বিষয় সম্পত্তি কিছু পেয়েছিল বটে, কিন্তু শনি, তার বেশীর ভাগই উড়িয়েছে। পাঁড় মাতাল!” “আর ঐ যোগেশ মজুমদার ?” “ওর মা বাপ মহা হিন্দ। বিধয় আশয় বেশ আছে বটে; কিন্তু ছোঁড়াটা বড় অলস কিছু করতে চায় না। বাপের কাছে মাসহরা পায়ু, তাইতে সাহেবিয়ানা চলে। ওর বাপের চেষ্টা, খটিী হিন্দ মতে ওর বিয়ে দেন। তাঁর অমতে যদি ও বিধবা বিবাহ করে, বাপ হয়ত রেগে মাসহারাটি বন্ধ করে দেবেন, তখন খাবে কি ?” শনিয়া লাহিড়ী গহিণী নীরবে বসিয়া রহিলেন। একট পরে লাহিড়ী জিজ্ঞাসা করিলেন, “দেখ তেমন মনের মতন পাত্র একটি পাওয়াই যদি যায়, সযেী আবার বিয়ে করতে রাজি হবে ত ? এত চেষ্টা করেও ওকে মাছ মাংস খাওয়াতে পারা গেল না। তারপর তোমারই কাছে ত শুনেছি, আয়াকে দিয়ে ফল আনায়, রোজ ঘরে দোর বন্ধ করে ঠাকুরপজো করে। ওকি ফের বিয়ে করতে রাজি হবে ? তুমি বরঞ্চ আগে ওর ঙ্গে কথাবাৰ্ত্ত কয়ে ওর মনটি বকে দেখ। এ বিষয়ে কথাবাৰ্ত্ত কয়েছিলে কোনও iদন ?’ “না, তা কইন বটে। কিন্তু মনের মত বর পেলে বিয়ে করতে ওর আপত্তি হবে বলে ত বোধ হয় না। এত লেখাপড়া করছে, জাতো মোজা পরে বেড়াচ্চে, টেবিলে ৰসে বাবচ্চির রান্না খাচ্চে—ত্বা মাছ মাংস নাই খাক, বিলেতেও ত কত ভেজিটেরিয়ন (নিরামিষাশী) আছে—বিধবার বিয়ে করাকে নিশ্চয়ই ও দষ্য বলে মনে করবে না।” লাহিড়ী সাহেব হাসিন্থা বললেন, “ওটা ভাবা কিন্তু তোমার ভুল। জাতো মোজা । পরে বেড়ায়, বাবচ্চির রান্না খায়, ওগুলো সব বাইরের জিনিষ। কোনটা কৰ্ত্তব্য, কোনটা অকৰ্ত্তব্য, কোনটা ধৰ্ম্ম, কোনটা অধম'-এ সব হল অন্তরের জিনিষ। বাইরের আচারের সঙ্গে তার যে বড় বেশী যোগ আছে তা নয়। যা হোক, কথায়বাত্তায় তুমি ওর মনটি বুঝে দেখবার চেষ্টা কোরো।” “আচ্ছা তা আমি করবো।” এই সময় সক্ষমা ফিরিয়া আসিল। তাহার হাতে ফিকা নীল ফিতায় বাঁধা সন্দর একটি বাক্স। আসিয়া হাসিতে হাসিতে বলিল, “জ্যেঠাইমা, তোমার জন্যে আমি একটি গন্ধ এনেছি।”—বলিয়া বাক্সটি মিসেস লাহিড়ীর হাতে দিল। মিসেস লাহিড়ী উহা খলিয়া বলিলেন, “বাঃ শিশিটি কি সন্দের ! কোথায় কিনলি - ৩ ৩৭